মোবাইল এপ এ টাকা ইনকামের উপায়

Android apps দিয়ে মোবাইলে অনলাইনে আয় করার উপায় : মোবাইল এপ এ টাকা ইনকাম

আমি আগে যেরকম বললাম অনলাইন থেকে আপনি দুইভাবে ইনকাম করতে পারবেন। যেমন short term and long term।

সেই ভাবে মোবাইল অ্যাপস এর মাধ্যমেও আপনি short teরm এবং long term দুই ভাবে ইনকাম করতে পারবেন।

ইন্টারনেটে বহু মোবাইল অ্যাপ আছে যার মাধ্যমে shrot trem আয় করতে পারেবন,যেমন গেম খেলে বা কোনো সার্ভে ফিল করে বা ছোটখাটো কিছু টাস্ক পূরণ করে শর্ট টাইমে কিছু এক্সট্রা টাকা ইনকাম করতে পারবেন। কিন্তু এতে কিছুদিন কাজ করার পর বন্ধ হয়ে গেলে আপনাকে বেকার (একপস এর জগতে) বসে থাকতে হবে।

কিন্তু আপনি যদি long term এ প্যাসিভ ইনকাম করতে চান, তারও কিছু অ্যাপস আছে যেগুলো থেকে মাসে ২০-৩০ হাজার টাকা করা যায়। এগুলো কিছুটা বিশ্বাসযোগ্য হবে। তবে তার জন্য আপনাকে যথেষ্ট কষ্ট করতে হবে সঙ্গে সঙ্গে রেজাল্ট পাবেন না, বেশ কিছু দিন অপেক্ষা করতে হবে। কিন্তু এটা ফুলটাইম মোবাইল দিয়ে টাকা আয় করার ভালো পন্থা। আপনাকে তারা বিশ্বস্ততার সঙ্গে পেমেন্ট করে থাকবে।

নিচে আমি দুই ধরনের অ্যাপ সম্পর্কে আলোচনা করবো,  আপনারা নিজের পছন্দ অনুযায়ী সেই অ্যাপস গুলো ব্যবহার করে শর্ট টাইম বা লং টাইম ইনকাম জেনারেট করতে পারবেন।

Meesho app :

 

মিশো একটা রিসেলিং অ্যাপ। এখানে নতুন প্রোডাক্ট কে রিসেল করে ইনকাম করা যায়।এই অ্যাপটি সম্পর্কে আরো বিস্তারিত ভাবে বলতে গেলে,

এখানে আপনি অনেকগুলো প্রোডাক্ট পেয়ে যাবেন সেই প্রোডাক্ট গুলা আপনাকে হোয়াটসঅ্যাপ,ফেসবুকের মধ্যে শেয়ার করতে হবে। আপনি আপনার প্রোডাক্ট গুলির রেট নির্ধারিত করবেন। মানে আপনি কোন প্রোডাক্ট 100 টাকায় কিনলে সেটা আপনি 150, 200 টাকায় রিসেল করতে পারবেন।

Meesho সম্পূর্ণ ফ্রি অ্যাপ,আপনি আপনার অ্যান্ড্রয়েড মোবাইলে প্লে স্টোর থেকে আজ ই ডাউনলোড করতে পারবেন। প্লে স্টোরে এই অ্যাপটি 10 মিলিয়ন +  ডাউনলোড হয়ে গেছে, এবং এর রেটিং প্রায় 4.4। তাই এই অ্যাপ এর সাহায্যে long term এ আপনি মাসে 20 হাজার টাকা পর্যন্ত প্যাসিভ মোবাইলে অনলাইনে আয় করতে পারবেন।

ফ্যান্টাসি গেম অ্যাপ:

এই ধরনের বিভিন্ন অ্যাপ মার্কেটে মজুদ রয়েছে এবং কিছু হয়তো আপনারা অনেকেই জানেন। এই অ্যাপ গুলো থেকে আপনি শর্টাম ইনকাম জেনারেট করতে পারবেন।

আপনার যদি ক্রিকেট,ফুটবল বা অন্যানো গেম খেলতে খুব ভালো লাগে, মোবাইল এ ক্রিকেট ম্যাচ, ফুটবল ম্যাচ দেখেন তাহলে এই ফ্যান্টাসি অ্যাপস দ্বারা ইনকাম করতে পারবেন, এটা পুরোপুরি ইন্ডিয়াতে লিগাল এবং যদি খেলেন তাহলে অবশ্যই এখান থেকে আয় করা সম্ভব।

আমি নিচে কত গুলো অ্যাপ এর নাম বলে দিচ্ছি সেগুলো চেক করতে পারেন-

MyTeam 11.

Fantasy Power11 App.

Dream 11.

Howzat.

My11Circle.

(BONUS) KhelChamps Fantasy.

instagram app –

আপনি ইনস্টাগ্রাম থেকে আয় করতে পারবেন।

এখান থেকে কিভাবে আর্নিং করবেন বলে দেই-

এখানে ভালো ভালো পোস্ট শেয়ার করতে হবে,আস্তে আস্তে আপনার যেমন সাবস্ক্রাইব,ফলোয়ার্স পারবে তখন আপনার এখানে বিভিন্ন স্পন্সরশিপ পাবেন সেখান থেকে আয় করতে পারবেন।

facebook app

ইউটিউব এর মতো এখানেও ভিডিও পাবলিশ করে লং ট্রামে প্যাসিভ ইনকাম জেনারেট করতে পারবেন।

shop 101 –

এটা ও একটা রিসেলিং অ্যাপ,আপনি চেক করতে পারেন তবে Meesho এর সঙ্গে যদি এর পার্থক্য করেন তা আমি বলব Meesho অ্যাপ টা বেশি ভালো,তাও আপনি এটা একবার দেখুন ডাউনলোড করে। প্লে স্টোরে পেয়ে যাবেন 5 মিলিয়নের ডাউনলোড হয়েছে।

ব্লগিং করে টাকা আয় করার উপায়

swagbuck website :

Swagbuck একটি ওয়েবসাইট এটা আপনি  মোবাইল ফোন থেকে খুলতে পারবেন। এর কোন অ্যাপস নেই এখন পর্যন্ত, তবে আপনি ক্রোম ব্রাউজার থেকে ওয়েবসাইট সার্চ করলে পেয়ে যাবেন।

এখানে আপনি অনেকগুলো সার্ভে পাবেন এগুলা পূরণ করলে তার বদলে কিছু পয়সা পাবেন, তবে তার পরিমাণ খুব বেশি না, হ্যাঁ অবশ্য আপনি এখানে শর্ট টাইম কিছু টাকা মোবাইলের সাহায্যে ইনকাম করতে চাইলে একবার দেখতে পারেন।

uc media :

ইউসি মিডিয়াতে আপনি নিজের একটা অ্যাকাউন্ট খুলুন

সেখানে আপনি ব্লগিং এর মতনই আর্টিকেল পোস্ট করতে পারেন।

ইউসি ব্রাউজার একটা জনপ্রিয় প্লাটফর্ম, আপনি দেখবেন যখন uc browser  ওপেন করবেন তখন যে নিউজ গুলা দেখতে পান ওখানে আপনি আপনার নিউজ বা আর্টিকেল post করতে পারেন যত লোক আপনার নিউজ পড়বে ততই আপনি ইনকাম করতে পারবেন।

তাই এটা আপনার একটা প্যাসিভ ইনকামের রাস্তা হতে পারে ।আপনি ইউসি মিনি টি ওপেন করুন সেখানে সাইন আপ করুন এবং আপনার একাউন্ট অনুমোদিত হয়েগেলে আপনি পোস্ট লেখা আরম্ভ করুন আপনার আর্টিকেল যত বেশি লোকে পড়বে আপনার প্রফিট তত বেশি।

OLX এবং QUIKR  পুরনো জিনিস গুলো বিক্রি করার জায়গা এখান থেকে আবার কিভাবে ইনকাম করতে পারেন।

তো দেখুন আমি বলে দিচ্ছি এখানে আপনাকে কোনো নিজের জিনিস বিক্রি করতে হবে না।

OLX এবং QUIKR অনেক প্রোডাক্ট সস্তায় সেকেন্ড হ্যান্ড কিনে নিন এবং সেটাই আবার বিক্রি করে অন্য ক্রেতা কে।বুঝতে পারলেন না চুলুন বিস্তারিত ভাবে বলি –

ধরুন আপনি QUIKR এ একটা ফোন দেখলেন যেটা 10 হাজার টাকা দাম আপনি কি করবেন সেই প্রোডাক্টটা  OLX এ 12000 টাকা দিয়ে লিস্ট করে দিলেন যদি কোন ব্যক্তির ওটা পছন্দ হয় বা কিনার ইচ্ছা রাখে তাহলে আপনি কি করবেন ওই প্রোডাক্টটা QUIKR এর কাছ থেকে কিনে সেটা ওই ব্যক্তিকে বিক্রয় করে দেবেন।

 

সিম্পল কাজ করে আপনি 2000 টাকা আয় করে নিলেন আর এর জন্য আপনার কোন কম্পিউটার এর দরকার পড়বে না। এটা আপনি ঘরে বসে মোবাইল থেকে করতে পারবেন।

এটা বুঝতে পারছেন এটা একটা খুব বড় মার্কেট,এখানে মার্কেটিং এর বিভিন্ন স্ট্র্যাটেজি ফলো করা হয় এই স্ট্র্যাটেজি যদি আপনি বুঝতে পারেন তাহলে এখান থেকে আপনার নিজের প্রফিট বা ফায়দা বের করা খুব কঠিন না।

তো আজকের মতো আল্লাহ হাফেজ। আজ আর নয়।

Read More

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Scroll to Top