গেমস খেলেই টাকা আয় করুন – মোবাইলে

বর্তমান সময়ে গেমস নামটি এক আসত্তি এর ন্যায় রূপ লাভ করেছে।  “গেমস ” শব্দটি শুনলেই তরুণদের মধ্যে এক আনন্দ নামক অনুভুতির সৃষ্টি হয়। অনেকেই গেমস খেলতে এতটাই ভালবাসে যে সারাদিন গেমস খেলে তাদের মুল্যবান সময় নষ্ট করে। এতে অধিকাংশেরই পড়ালেখার ক্ষতি হয়। তাহলে চলুন জেনে নেই কিভাবে আপনার মুল্যবান সময় বাচিয়ে গেমস খেলে টাকা আয় করতে পারবেন।

কথাটি আসলে বিশ্বাস না হলেও সত্যি। আমি যে গেমস আপনাদের সাথে শেয়ার করবো সেটি ১০০% টাকা দিবে কোনো রকম রেফার ছাড়াই। অনেকেই রেফার করতে পারে না বলে তাদের আয়টাও কম হয়।ফলে তারা আাশাহীন হয়ে পরে। আজকের এই পোস্ট শুধুমাত্র তাদের জন্য যারা রেফার করতে  ঝামেলা মনে করেন।

এই গেমস টি আমি নিজেও সময় করে খেলি। আপনারা গেমস টা একবার খেলে দেখুন,,, আমার বিশ্বাস কেউ নিরাশ হবেন না।

গেমস কিঃ

আসলে গেমস কি এই প্রশ্নের কোনো উত্তর কেউই সঠিকভআবে বলতে পারবে না।কারন গেমস এক একজনের কাছে এক একরকম।যেমন আমার কাছে গেমসের মানে হলো যেটার সাহায্যে মানুষের মনে আনন্দ আসে,মজা করে, অনেক এর বেকার সময় টাও কেটে যায়। অর্থাৎ, এটি একটি ক্রিয়াকলাপ যা বিনোদন বা মজার সাথে যুক্ত। বর্তমান যুগে ছোটো বড় সকলের হাতেই অ্যান্ড্রয়েড ফোন রয়েছে। বিশেষ ভাবে বাচ্চাদের কথা না বললেই নয়। বাবা মা তাদের কাজের জন্য সন্তানের টিক মতো কেয়ার করতে পারে না। বাচচাকে স্মার্টফোন দেয় সময় কাটানোর জন্য। তখন তারা গেমস এর প্রতি  আকর্ষিত হয়ে পরে।

বিভিন্ন ধরনের গেমসঃঃ

প্লে স্টোরে বিভিন্ন ধরনের গেমস পাওয়া যায়। বিভিন্ন ধরনের পাজেল,  রেসিং,কুকিং, ড্রয়িং, হোম ডিজাইন,  সব ধরনের গেমস । যেমনঃ speed car, buble shooter, My cooking, Subway surfers, PUBG, Clash of clans,Candy crush, Bike race, Temple run, asphalts racing ইত্যাদি।  এছাড়াও অনেক জনপ্রিয় গেমস রয়েছে। তবে এসকল গেমস থেকে টাকা পাওয়া যায় না। যারা গেমস খেলে সময় নষ্ট করছেন, বুঝতেই পারছি তাদের গেমস অনেক ভালো লাগে। একই সাথে  গেমস ও টাকা পেলে আপনার সময় ও নষ্ট হবে না  আবার গেমস এর মজাটাও উপভোগ করতে পারবেন।

আসলে অবসর সময়ে গেমস খেলে  একইসাথে মজা ও টাকা পাওয়ার বিষয়টি অনেক ভালোই লাগে। অনেকেই এটি হয়তো বিশ্বাস না  করে উল্টা পাল্টা মন্তব্য করে। কিন্তু আমি আজকে এমন কিছু গেমস এর নাম বলবো যেখান থেকে আপনারা সহজেই আসল টাকা উপার্জন করতে পারবেন। আমি এই গেমসটি খেলে টাকা হাতে হাতে পেয়েছি। তাই ভাবলাম আপনাদের সাথে শেয়ার করা জাক।

যে সকল গেমস টাকা দেয়ঃ

প্লে স্টোরে এমন কিছু গেমস রয়েছে যা থেকে  টাকা ইনকাম করা যায়। এসকল গেমসের টাকা বিভিন্ন ধরনের একাউন্টে নেয়া যায় যেমন Paypal, বিটকয়েন, কয়েনবেস Eth, litecoin ইত্যাদি। বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই পেপালের মাধ্যমে টাকা প্রদান করে থাকে।তবে আজকে আমি যে গেমসের  কথা বলব সেটি বিটকয়েনের মাধ্যমে টাকা প্রদান করে থাকে।

Paypal অ্যাকাউন্টে দেয়ঃ

পেপাল  এ টাকা দেয় এমন কিছু গেমস এর নাম হচ্ছে ; Real cash games, play and win, Puppy town ইত্যাদি। এদের মধ্যে অন্যতম হচ্ছে clip clash।  কিন্তু বাংলাদেশে পেপাল  অনুমোদিত না।

Bitcoin দেয় এমন গেমসঃ

বর্তমান সময়ে 1 btc সমান ৪৬ হাজারের বেশি। এটি বাংলাদেশে  অনুমোদন প্রাপ্ত। অনুমোদিত হওয়ায় যে কেউ টাকা উপার্জন করতে পারে এবং সেই অর্থ  হাতে পেতে পেতে পারি। তাহলে  আসুন জেনে নেই সেই গেমস এর  এর নাম গুলিঃ বিটকয়েন ব্লাস্ট, বিটকয়েন পপ,বিটকয়েন ব্লাস্ট, বিটকয়েন ফুড। এই গেমসটা থেকে রিয়েল  বিটকয়েন  আয় করতে পারি। এই গেমসটি খেলার জন্য সর্বপ্রথম কয়েনবেস  অ্যাকাউন্ট দরকার হবে। কারণ গেমস থেকে ক্যাশআউট দিলে সরাসরি তা কয়েনবেস এ চলে যাবে।

যেভাবে গেমস খেলবেনঃ

প্রথমেই গেমসটি ডাউনলোড করতে হবে প্লে- স্টোর হতে। তারপর নির্দেশনা  সাইন আপ করতে হবে।

  • যে gmail দিয়ে  কয়েনবেস অ্যাকাউন্ট খোলা হয়েছে সেটি দিয়েই গেমসে লগ ইন করতে হবে।
  • গেমস এর ১ লাখ কয়েন হলে বাংলাদেশের ৬/৭ টাকা হয়।
  • কখনো কখনো  টাকার মান  বেরে যায় আবার কমে ও যেতে পারে।
  • অতঃপর  কয়েন কোন বিশ্বাসি ওয়েবসাইটে সেল করে দিতে হবে।

বিঃদ্রঃ বিকাশ,রকেট, নগদ ইত্যাদি নাম্বারে টাকা নিতে পারবেন। আরও ভালোভাবে বুজতে  জানতে নিজের ভিডিও দেখতে পারেন।

সব থেকে মজার বিষয় হচ্ছে  বিটকয়েন এর নিজস্ব যে গেমস গুলো  রয়েছে  একই  gmail   খোলা হলে সব গুলো কয়েন এক সাথেই  যুক্ত হয়ে যায়। ফলে সহজেই অনেক টাকা  পাওয়া  যায়।

বিটকয়েন পপঃ

এই গেমসটি অনেকেই অতি সহজে খেলতে পারবে। কারন এই গেমস অনেকটা  বাবল শুটার গেমস এর মতো। ছোট বাচ্চারও এটি সহজেই খেলতে পারে। বিভিন্ন কালার বা রঙ  এর  বল কে ওই  কালার  বা রঙের মুভ দিয়ে আঘাত  করতে হয়।

বিটকয়েন ব্লকসঃ

 

Bitcoin Blast Earning

এখানে অনেক গুলো কয়েন এক সঙ্গে থাকে। কখনো কখনো কিছু বল দেয়া থাকে এবং সেগুলো উদ্ধার করতে বলা হয়। আবার কখনো কখনো কয়েন গুলো বেলুন দারা আবৃত থাকে সেগুলো কে উদ্ধার করার নির্দেশনা দেওয়া হয়। অনেক সময় জেলখানার মতো কিছু case দেয়া থাকে সেগুলো কে ভাংচুর করতে বলা হয়ে থাকে।  যখন যে রকম নির্দেশনা দেয়া হয়   তখন সেরকম কাজ করে গেমসের রাউন্ড শেষ করতে হয়।

এই  ক্ষেত্রে অনেক গুলো কালার বা রঙ  এক সাথে  থাকে  এবং শুধু কালার গুলোর উপর টাচ করতে হয়। কাঙ্খিত  উপাদান  পেলেই গেমস এর পরবর্তী  রাউন্ডে নিয়ে যায়।

বিটকয়েন ব্লাস্টঃ

Bitcoin blast

এটি সব থেকে সহজ গেমস। শুধু টাচ করে বিভিন্ন কয়েন কালার অনুযায়ী মিলাতে হবে। এক্ষেত্রেও তেমন একটা সময় কেটে যায় না। অতি অল্প সময়ে অনেকগুলো রাউন্ড শেষ করা যায়। এই গেমসটি খেলার জন্য আপনার  মূল্যবান সময় দেয়ার কোন প্রয়োজন নেই আপনার বাচ্চারা খেলেই  এখান থেকে টাকা আয় করতে পারে।

বিটকয়েন ফুডঃ

Bitcoin pop

এই ক্ষেত্রে  একটা খাবার এর ছবি ঘুরতে থাকবে। ঘুরানো অবস্থায় চামচ দিয়ে বার করে খাবার কেটে ফেলতে হবে। পরবর্তীতে একই ভাবে আবার খাবার আসবে  এবং খাবার কাটতে হবে।

আসলে গেমস গুলো খুবই সহজ।। আপনারা ট্রাই করতে পারেন।। মজা পাবেন এবং টাকা ও পাবেন।

ক্যাশ আউটঃ

ক্যাশ আউট এর জন্য আপনাকে কোনো টেনশন করতে হবে না। কারণ এই গেমস ১০০%  রিয়েল অর্থ দেয়। আপনাকে  যে কাজ টা করতে হবে তা হচ্ছে ;

আপনার কয়েনবেস অ্যাকাউন্ট  টা  দিতে হবে। সেখানে আপনাকে বলা হবে কিছুক্ষণ ওয়েট বা অপেক্ষা  করার কথা  বলা হবে। তার ৪৮ ঘন্টা এর মধ্যেই আপনার কয়েনবেস অ্যাকাউন্ট এ টাকা চলে যাবে। তখন গেমস এ আপনাকে সো করানো হবে যে টাকা  পৌছে গিয়েছে। তারপর আপনাকে কিছু দিনের টাইম বা সময়  দেওয়া হবে এবং সেখানে দেখাবে কতো  দিন পরে আবার আপনি ক্যাশ আউট করতে পারবেন।  তবে সাধারণত  ৫ দিন পর পর টাকা উত্তোলন করা যায়।  একবার ক্যাশ আউট দেয়ার পরেই গেমসে উপরে অর্থাৎ  ড্যাসবোর্ডের উপরে   কমপ্লিট লেখা থাকে সেখানে  ক্লিক করে নতুন করে কয়েন জমানো শুরু  করা হয়।

আরোও ক্লিয়ার  ভালো করে বোঝার জন্য উপরে দেওয়া লিঙ্ক থেকে ভিডিওটি দেখে নিতে পারেন। ভিডিওটিতে  প্রমান সহকারে  দেখানো হয়েছে  কিভাবে কয়েনবেস অ্যাকাউন্ট এ ক্যাশ আউট করবেন এবং কতক্ষনের ভিতর আপনি টাকাটি পেয়ে যাবেন।

বিঃদ্রঃ এই গেমসটির ক্ষেত্রে সবথেকে ভালো দিক হচ্ছে এখানে কোনো রেফার সিস্টেম নেই।

বর্তমান যে সকল গেমস টাকা দেয় অধিকাংশ ক্ষেত্রেই  রেফার সিস্টেম ব্যবহার করা হয়েছে। কিন্তু  এই গেমস এ আপনাকে কেনো  রেফার করতে হবে না। শুধু মাত্র গেমস খেলুন আর টাকা জিতুন।

আজকের মতো এখানেই শেষ করছি। ভালো রিভিউ এবং রেসপন্স পেলে আপনাদের মাঝে আরও ভালো কিছু নিয়ে আসবো। কোনো কিছু জানার থাকলে comment এ জানিয়ে দিবেন।ধন্যবাদ সবাইকে।

Read More

2 thoughts on “গেমস খেলেই টাকা আয় করুন – মোবাইলে”

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Scroll to Top