মোবাইলে গেম খেলে আয় করার পদ্ধতি

মোবাইলে গেম খেলে আয় : বর্তমান যুগে অনলাইনে সবসময় ট্রেডিং এবং জনপ্রিয়তার শীর্ষে আছে অনলাইন ভিডিও গেম। আর এখন দ্রুতই বাড়ছে ভিডিও গেম ইউজারের সংখা। আর যদি এমন গেম খেলা যায় যেগুলো খেলে আমরা মজাও পাই এবং অল্প ইনকাম ও করতে পারি তাহলে তো অবশ্যই গেম খেলার মজাও বেড়ে যাবে। ছাত্র বা ছাত্রী বেকার যুবকরা টাকা আয় করার জন্য এই এন্ড্রয়েড গেম গুলি খেলে দেখতে পারেন। শখের বশে যারা গেম খেলেন বা যাদের গেম খেলার প্রতি আসক্তি তারাও এই শখকে টাকা আয়ের এর উৎস হিসেবে কাজে লাগাতে পারেন।

মোবাইলে গেম খেলে আয় করার উপায়
মোবাইলে গেম খেলে আয় করার উপায়

গেম খেলে আয় করার জন্য যা প্রয়োজন:

মোবাইরে গেম খেলে আয় করার জন্য নিচের কোট গুলো আপনার মধ্যে থাকতে হবে।

# গেম খেলার প্রতি আপনার আগ্রহ থাকতে হবে। আগ্রহ ছাড়া আয় সম্ভব না।
#গেম খেলায় পারদর্শী হতে হবে।
#কম্পিউটার বা ভাল মানের মোবাইল থাকতে হবে।
#অবশ্যই ইন্টারনেট কানেকশন থাকতে হবে।
#ভালো গেমিং এর জন্য গেমিং কনসোল প্রয়োজন হবে।

মোবাইলে গেম খেলে অনলাইন থেকে আয় করার জন্য অসংখ্য উপায় রয়েছে। আপনি যদি একজন পারদর্শী গেমার হয়ে থাকেন তাহলে খুব সহজেই অনলাইন থেকে আয় করতে সক্ষম হবেন। একজন গেমার কিভাবে অনলাইন থেকে আয় করতে পারবে সে বিষয়ে আলোচনা করছি….

আরও পড়ুন:

১) গেমিং ইউটিউবার হয়ে আয়:

একজন গেমারের জন্য আয়ের সবচেয়ে সহজ ও জনপ্রিয় মাধ্যম হচ্ছে ইউটিউব। এখানে গেমারদের প্রচুর ডিমান্ড আছে। অনলাইনে গেমিং চ্যানেল গুলোর ভিউ বেশি পরিমাণে হয়ে থাকে। এছাড়া অন্যান্য ইউটিউবারদের মত গেমার ইউটিউবারদের খুব বেশি কষ্ট করতে হয়না।

একজন অভিজ্ঞ গেমার একটি ইউটিউব চ্যানেল তৈরি করে গেম এর বিভিন্ন অংশগুলো কিভাবে খেলতে হয় সে বিষয় নিয়ে ভিডিও তৈরি করে, ইউটিউবে ভিডিও আপলোড করে, ভিডিও গেম খেলার মাধ্যমে ইউটিউব থেকে আয় করতে পারবে। ভিডিও তৈরীর জন্য আপনাকে আলাদা কোন স্ক্রিপ্ট তৈরি করতে হবে না। একসাথে আপনি ভিডিও খেলার সখ ও ভিডিও তৈরীর কাজ করতে পারবেন।

ভিডিও গেম এর কঠিন ধাপগুলো খেলার উপায় ইউটিউবে প্রচুর পরিমাণে সার্চ করা হয় তাই আপনি গেম খেলার সময় ভিতরে কঠিন ধাপগুলো স্কিন ভিডিও রেকর্ড করে ইউটিউবে আপলোড করলে ভালো ভিডিও পেতে পারেন।

যে ভিডিও গেম সম্পর্কে আপনার ভাল ধারণা আছে সেই ভিডিও গেমের রিভিউ তৈরি করে ইউটিউবে আপলোড করতে পারেন। এক্ষেত্রে আপনার নতুন নতুন ভিডিও গুলোর আপডেট জানতে হবে।

আপনি ভিডিও গেম খেলার সময় ভিডিও গেমের ভিতরে কোথায় কি হচ্ছে, কোন স্টেপ এ কি হতে পারে,কি করতে হবে,গেম খেলার সময় খেলার সাথে সাথে সেগুলো কমেন্ট্রি করতে পারেন। এ ধরনের ভিডিওতে প্রচুর ভিউ হয়। এমন অনেক ইউটিউবার আছে যারা গেমপ্লে দেখিয়ে লাইভ স্ট্রিম করে লাখ লাখ টাকা ইনকাম করছে। এমনকি তাদের ভিউয়ার্স প্রতিটি ভিডিওতে কয়েক মিলিয়ন।

২) গেমিং ব্লগ সাইট তৈরি করে আয়:

গুগোল ব্লগার কাজে লাগিয়ে আপনি একটি ব্লগ সাইট খুলে নিতে পারেন। এতে করে আপনার ব্লগ সাইটে ভিউ আসবে। আপনি যদি গেমিং এ অভিজ্ঞ থাকেন তাহলে এটি আপনার কাছে খুব সহজ হবে। গেমের রিভিউ সাজিয়ে গুছিয়ে লিখতে পারলে আপনার রিভিউ সবাই পড়বে। এতে করে অনেক ভিউ আসবে এবং আপনি সহজে আয় করতে পারবেন।

৩) গেমিং ইনকাম সাইট থেকে আয়:

খেলাঘর এমপিএল এরকম বিভিন্ন গেমিং সাইট আছে। সেখানে ভাল গেইমাররা অনেক টাকা ইনকাম করতে পারে। এখানে প্রথমে অ্যাড ফি দিতে হয়। তারপর প্রথম দ্বিতীয় তৃতীয় স্থান সিলেক্ট করে বিপুল পরিমাণ টাকা দেয়া হয়। এখানে দৈনিক 1000 টাকা পর্যন্ত ইনকাম করা যায় এবং বিকাশে টাকা উঠানো যায়।

>> কিভাবে একটি ফ্রি ওয়েবসাইট তৈরি করবেন ? বিস্তারিত  এখানে

৪) গেমিং ভিডিও আপলোড করে আয়:

ভিডিও শেয়ারিং প্ল্যাটফর্ম যেমন Twitch এ গেমিং ভিডিও আপলোড করা হয়। এখানে ভিডিও গেম এর বিভিন্ন অংশ,গেমের লাইভ স্ট্রিমিং, আপলোড করা হয়। ভিডিও তৈরীর অভিজ্ঞতা থাকলে আপনি খুব সহজে এখান থেকে আয় করতে পারবেন।

৫) গেমিং টুর্নামেন্ট খেলে আয়:

বর্তমানে বিভিন্ন গেমাররা অনলাইনে ভিডিও গেমের টুর্নামেন্ট খেলে থাকে। এটা এখন অফলাইনে ও খেলা যায়। আর যারা পাবজি এবং কল অফ ডিউটি খেলতে পছন্দ করেন এবং যারা খেলতে এক্সপার্ট তারা অনলাইনে রেজিস্টার করে বিভিন্ন দলের সাথে পাবজি খেলে ঘরে বসে টাকা আয় করে নিতে পারবেন। তবে অভিজ্ঞতা না থাকলে আপনি ইনকাম করতে পারবেন না কেননা এখানে অনেক অভিজ্ঞ গেমার রয়েছে। তাই অভিজ্ঞ হলে আপনি খুব সহজেই টাকা আয় করতে পারবেন।

৬) গেম টেস্টার হয়ে আয়:

নতুন নতুন গেম লঞ্চ করার আগেই গেম কম্পানি এর কোনো ত্রুটি আছে কিনা এবং লোকজনের কিরকম আগ্রহ আছে এটা দেখার জন্য গেম টেস্ট করে থাকে। সেজন্য তাদের গেম রিলিজের আগে গেম টেস্টার এর প্রয়োজন পড়ে।

এ ধরনের কাজে প্রচুর পরিমাণে অভিজ্ঞতা থাকতে হয় কেননা আপনি গেমের ভুল ত্রুটি ধরিয়ে তাদের সাহায্য করবেন। দক্ষতা ছাড়া তাই এটি সম্ভব না।এছাড়া সহজে এই কাজটি কেউ পায় না। এ কাজ পেতে হলে নির্ভরযোগ্য একটি ওয়েবসাইট খুঁজে বের করতে হবে। এছাড়াও বড় বড় মার্কেটপ্লেসে তারা গেম টেস্টার খুঁজে থাকে সেসব জায়গায় আপনার খোঁজ রাখতে হবে। দক্ষতা দিয়ে আপনিও একজন ভালো গেম টেস্টার হয়ে আয় করতে পারেন।

উপরোক্ত সোর্সগুলো ছাড়াও আরো বিভিন্ন প্লাটফর্ম রয়েছে যেখান থেকে আপনি অনলাইনে গেম খেলে টাকা আয় করতে পারবেন। তাই আপনার যদি গেমে আসক্তি থাকে তাহলে শুধু শুধু গেম খেলে সময় নষ্ট না করে বিভিন্ন সোর্স খুঁজে খেলুন এবং আয় করুন।

Read More

1 thought on “মোবাইলে গেম খেলে আয় করার পদ্ধতি”

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Scroll to Top