চুরি হয়ে যাওয়া মোবাইলের অবস্থান শনাক্ত করবে ‘থিফ গার্ড’

মোবাইল চুরি করে চোররা আর পার পাবে না। দেশের যে কোন জায়গায় চুরি যাওয়া মোবাইলের অবস্থান নিমিষেই শনাক্ত করা যাবে। আর এই অসম্ভবকে সম্ভব করেছেন সাইদুর রহমান নামে এক প্রযুক্তি উদ্যোক্তা। নিজের মোবাইল চুরি হওয়ার আক্ষেপ থেকে মোবাইল অ্যাপ ‘থিফ গার্ড’ বানিয়ে ফেলেছেন এই প্রযুক্তি উদ্যোক্তা। অ্যাপটি ব্যবহারে বছরে গ্রাহককে দিতে হবে ৩৫০ টাকা।
এতে প্রযুক্তি বিশেষজ্ঞরাও বলছেন, অ্যাপটির ফিচারগুলো আন্তর্জাতিক মানের। শিগগিরই বাজারে আসছে এ অ্যাপটি।

রাস্তায় চলতে চলতে হুট করে আপনার অ্যান্ড্রয়েট মোবাইল ফোনটি চুরি হয়ে গেল। তার সাথে খোয়া গেল নিত্যসঙ্গী মোবাইলের সব ব্যক্তিগত তথ্য। এমন পরিস্থিতিতে আপনি কি করবেন? আইনি ব্যবস্থা নিয়ে হন্যে হয়ে খুঁজতে খুঁজতে হয়তো এক সময় মোবাইল ফিরে পাবার আশাই ছেড়ে দিলেন।

তবে নিজের জীবনে এমন ঘটনা থেকে শিক্ষা নিয়ে সমাধান খুঁজতে গিয়ে সাইদুর রহমান নামে এক উদ্যোক্তা কয়েকজনকে সাথে নিয়ে তৈরি করে ফেললেন ‘থিফ গার্ড’ নামে মোবাইল অ্যাপ। এ প্রসঙ্গে সফটালোজি’র ব্যবস্থাপনা পরিচালক মো. সাইদুর রহমান জানান, আমরা ওই ফোনে অনেক গুরুত্বপূর্ণ বিষয় ছিল। সেটা আমাকে খুবই কষ্ট দিয়েছে।

১৩টি ফিচারের এই অ্যাপ বাজারে আনছে আইটি কোম্পানি সফটালোজি। ‘থিফ গার্ড ডট কম’ থেকে ডাউনলোড করে শুরুতে ইউজার নাম, মোবাইল নম্বর, ইমেইল, পাসওয়ার্ড দিয়ে অ্যাপ চালু করতে হবে। যে কেউ আপনার মোবাইলে ভুল পাসওয়ার্ড দিতে চাইলেই বেজে উঠবে অ্যালার্ম। চাইলেই কেউ সিম খুলতে বা মোবাইল বন্ধ করতে পারবে না। উল্টো মোবাইল ফোনটি স্বয়ংক্রিয়ভাবে ছবি ও লোকেশন পাঠিয়ে দিবে আপনার ইমেইলে।

এতে প্রযুক্তি বিশেষজ্ঞরা বলছেন, অ্যাপটি বিশ্বমানের। তবে, আরও যাচাইবাছাই করে গ্রাহকবান্ধব করার পরামর্শ তাদের। এদিকে, তথ্যপ্রযুক্তি বিশেষজ্ঞ সালাউদ্দিন সেলিম বলেন, অ্যাপটি আন্তর্জাতিক মানের। এটি আন্তর্জাতিক পর্যায়ে বিশেষ ভূমিকা রাখতে পারেন।ব্যবহারকারীদের আস্থা অর্জন করতে পারলে এ ধরনের আরও অ্যাপ তৈরি করতে চায় প্রতিষ্ঠানটি।

সম্প্রতি আনুষ্ঠানিকভাবে এই অ্যাপটি চালু করা হয়েছে বলে প্রতিষ্ঠানের পক্ষ থেকে এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, মোবাইল ফোন চুরি হলে চোরের ছবি ও লোকেশন জানতে সহায়তা করবে অ্যাপটি। এ সময় চোর মোবাইল ফোন বন্ধ করতে পারবে না। চোর মোবাইল ফোনটি কম্পিউটারের সঙ্গে কানেক্ট করতেও পারবে না। সিম চেঞ্জ করলে মোবাইলে মালিককে নতুন সিম নাম্বার জানিয়ে দিবে। অনুমতি ব্যতীত কেউই ডিভাইসে থাকা কোনো ডাটাতে অ্যাক্সেস করতে পারবে না।

মোবাইল ফোন চুরি হওয়ার সঙ্গে সঙ্গে হাতের কাছে যেকোনো স্মার্টফোন অথবা কম্পিউটার থেকে www.thiefguardbd.com ওয়েবসাইটে গিয়ে ইউজারনেম ও পাসওয়ার্ড দিয়ে লগইন করলেই চুরি হয়ে যাওয়া মোবাইল ফোনের ক্যামেরা চালু করা যাবে এবং চুরি হওয়া মোবাইল থেকে মোবাইলের মালিকের ইমেইলে ছবি পাঠাতে থাকবে। এ সময় জিপিএস অন করে দিলে লোকেশনও পাঠাতে থাকবে।

এই অ্যাপে অন্যান্য ফিচারের মধ্যে রয়েছে- মোবাইল ফোনের মালিক চাইলে হারিয়ে যাওয়া ফোনের স্ক্রিন লক করতে পারবেন। এছাড়া যেকোনো সময় ভাইরাস স্ক্যান করতে পারবেন। যেকোনো পাবলিক প্লেসে অন্য কেউ পকেট থেকে মোবাইল বের করতে চাইলে সাইরেন বেজে উঠবে। মোবাইলটা টেবিলে বা চার্জে দিয়ে আপনি অন্য কোথাও থাকলে এবং সে সময়ে কেউ মোবাইলটা চার্জ থেকে খুলতে চাইলে তাৎক্ষণিক সাইরেন বেজে উঠবে। যতক্ষণ পর্যন্ত সঠিক প্যাটার্ন দিয়ে নির্দিষ্ট অপশনে গিয়ে বন্ধ না করবে ততক্ষণ পর্যন্ত অ্যালার্ম বাজতেই থাকবে।

সদ্য উন্মুক্ত হওয়া অ্যাপটির ব্যাপারে সফটালজি লিমিটেডের ব্যাবস্থাপনা পরিচালক, জনাব মো. সাইদুর রহমান বলেন, বাংলাদেশে দ্রুত গতিতে স্মার্টফোনের ব্যবহার বাড়ছে। প্রিয় এই স্মার্টফোনে অতিপ্রয়োজনীয় অনেক তথ্য, ফোন নাম্বার, ছবি সহ আরো অনেক গুরুত্বপূর্ণ তথ্য সংরক্ষিত থাকে। কিন্তু ফোনটি চুরি হলে বা হারিয়ে গেলে সেসব দরকারি তথ্যাদি পাওয়া অনেক কঠিন হয়ে যায়। আমাদের উদ্ভাবিত অ্যাপ স্মার্টফোনে ইন্সটল করা থাকলে আগামীতে নির্ভয়ে ফোন ব্যবহার করা যাবে এবং আপনার ব্যক্তিগত তথ্য, ফোন নাম্বার ও প্রিয় মোবাইল ফোনটি সুরক্ষিত থাকবে।

এই অ্যাপটি অ্যান্ড্রয়েড-৭ থেকে যেকোনো ভার্সনে ব্যবহার করা যাবে। আপাতত এক বছর ও দুই বছর মেয়াদে এ থিফগার্ড অ্যাপটি সারাদেশের মোবাইল ফোনের দোকানে পাওয়া যাচ্ছে। এ সম্পর্কে আরো বিস্তারিত জানা যাবে www.thiefguardbd.com এই ওয়েবসাইটে।

থিফ গার্ড কি?

এই এ্যাপটি আপনার মূল্যবান মোবাইল ফোনটি কে সুরক্ষিত রাখবে। এমনকি মোবাইল ফোনটি চুরি হয় গেলেও খুবই সহজেই আপনি চোরের ছবি ও লোকেশন জানতে পারবেন সহজেই। আরো আকর্ষণীয় বিষয় হচ্ছে চোর মোবাইল ফোনটি কে বন্ধ করতে পারবে না, ফ্লাশ করতে পারবে না এমনকি চুরি হওয়ার পরও মোবাইল ফোনটিকে আপনি নিজেই নিয়ন্ত্রন করতে পারবেন। ফলে আপনার মোবাইল ফোনটি ফিরে পেতে সহজ হবে। Thief Guard আপনার তৃতীয় নয়ন হিসেবে কাজ করবে সবসময়ই। তাই আজই আপনার মোবাইল ফোনে ব্যাবহার করুন Thief Guard এ্যাপ

Read More:

অ্যাপ এর ফিচারসমূহঃ

ইনট্রুডার সেলফি

চোর মোবাইলটি চুরি করার পর পিন অথবা প্যাটার্ন কিংবা ফিঙ্গার প্রিন্ট দিয়ে মোবাইলটি আনলক করতে গেলে, ভুল প্যাটার্ন বা পাসওয়ার্ড প্রবেশ করালে তাৎক্ষণিক চোরের ছবি ও অবস্থান আপনার ইমেইলে চলে আসবে। আপনার বিকল্প নাম্বারে এসএমএস এর মাধ্যমেও চোরের লোকেশন জানাবে। তবে চোরের সঠিক লোকেশন জানার জন্য অবশ্যই আপনার মোবাইলে জিপিএস/লোকেশন সিস্টেম চালু রাখতে হবে।

স্টপ শাট- ডাউন

আপনার অনুমতি ছাড়া আপনার মোবাইলটি অন্য কেউ বন্ধ করতে পারবে না। এটি আপনার মোবাইলটিকে চুরি যাওয়া থেকে রক্ষা করতে এবং আপনার মোবাইলের ডেটা সংরক্ষণ করতে সহায়ক।

স্টপ পিসি কানেকশন

যদি কেউ আপনার ফোনটি ইউএসবি ক্যাবলের মাধ্যমে পিসি (কম্পিউটার) এর সাথে সংযুক্ত করে, মোবাইলটি অটোমেটিক লক হয়ে যাবে। সঠিক প্যাটার্ন / পিন / পাসওয়ার্ড প্রবেশ না করা পর্যন্ত মোবাইলে অ্যালার্ম বাজতে থাকবে। এটি আপনার ডিভাইসটিকে চুরি থেকে রক্ষা করতে এবং আপনার মোবাইলের ডেটা সংরক্ষণ করতে সহায়ক।

পকেট থেফট

ফোনটি আপনার পকেট থেকে বের করা হলে অথবা বের হয়ে গেলে আপনার বিকল্প নম্বরে একটি নোটিফিকেশন যাবে। এছাড়া এটি আপনাকে তৎক্ষণাৎ অ্যালার্ম বাজিয়েও সতর্ক করবে।

সাইলেন্ট ক্যামেরা

যেকোনও ডিভাইস থেকে আপনার ফোনে এসএমএস করে আপনার সংরক্ষিত পাসওয়ার্ড প্রেরণ করুন। ডিভাইসটি এসএমএস পাওয়ার পরে এটি স্বয়ংক্রিয়ভাবে সামনের / পিছনের ক্যামেরা ব্যবহার করে মোবাইল চোরের ছবি তুলবে এবং আপনার ইমেইল আইডিতে পাঠানোর পাশাপাশি মোবাইল নম্বরটিতেও এসএমএস প্রেরণ করবে। ওয়েব অ্যাডমিন বিভাগের মাধ্যমে আপনি ছবিটি সংগ্রহ করতে পারবেন।

Read More

রিং সেটআপ

এই ফিচারটির কারণে আপনার ফোনটি সাইলেন্ট বা ভাইব্রেটেড মুডে থাকলেও রিং বেজে উঠবে।

জিপিএস সেটআপ

জিপিএস ফিচার আপনাকে মোবাইল টেক্সটিং ব্যবহার করে আপনার ফোনের অবস্থান জানাবে।

মুভমেন্ট এলার্ট

যখনই আপনার ফোনটি সরানো হবে এটি আপনাকে অবহিত করবে। আপনার ফোনটি কোথাও রাখা অবস্থায় কেউ যদি এটি সরিয়ে নেওয়ার চেষ্টা করে তখনই এটি আপনাকে সতর্ক করবে। আপনাকে সতর্ক করতে অ্যাপ্লিকেশনটি অ্যালার্ম বাজাবে।

আনপ্লাগ চার্জার এলার্ট

চার্জে রাখা অবস্থায় কেউ যদি আপনার ফোনের চার্জারটি সংযোগ বিচ্ছিন্ন করে দেয়, অ্যাপ্লিকেশন আপনাকে অ্যালার্ম দিয়ে সতর্ক করবে। অর্থাৎ আনপ্লাগড বা চার্জ ব্যাহত হলে এটি আপনাকে নোটিফিকেশন/ রিং বাজানো মাধ্যমে সতর্ক করবে।

প্যাসিভ লোকেশন & ট্র্যাক ইওর ফোন

এই অপশনটি সেট করে, যদি আপনার ফোনটি কখনও হারিয়ে যায় বা আপনি মোবাইলটি কোথায় রেখেছেন ঠিক মনে করতে পারছেন না এমতাবস্থায় আপনি ফোনটি সহজে সনাক্ত করতে পারবেন। অ্যাপ্লিকেশনটি আপনার নিবন্ধিত মোবাইল নম্বরে প্রতি ৩০ মিনিট অন্তর এসএমএস এর মাধ্যমে হারিয়ে যাওয়া মোবাইলটির বর্তমান অবস্থান জানাবে। আপনি ওয়েব অ্যাডমিন বিভাগের মাধ্যমেও মোবাইলটির অবস্থান জানতে পারবেন।

সিম কার্ড সিকিউরিটি

সিম সুরক্ষার প্রমাণীকরণের জন্য। পাসওয়ার্ড এবং বিকল্প মোবাইল নম্বর সেট করুন। ব্যবহারকারী একবার সিম অ্যাপ্লিকেশনটি বের করে নিলে অ্যাপটি স্বয়ংক্রিয়ভাবে ফোনটি লক করে অ্যালার্ম বাজানো শুরু করবে। নিবন্ধিত মোবাইল নম্বরে এসএমএস প্রেরণ করবে। অ্যাপটি নতুন সিমটিও ট্র্যাক করে আপনার ইমেল আইডিতে নতুন সিমের পুরো তথ্য প্রেরণ করবে। তবে এই সুবিধা পেতে গ্রাহককে অবশ্যই মোবাইলে জিপিএস সিস্টেম/ লোকেশন চালু রাখতে হবে।

লক ডিভাইস

যেকোনও ডিভাইস থেকে আপনার ফোনে এসএমএস করে আপনার সংরক্ষিত পাসওয়ার্ড প্রেরণ করুন। ডিভাইসটি এসএমএস গ্রহণ করার পরে এটি স্বয়ংক্রিয়ভাবে আপনার ডিভাইসের স্ক্রিনটি লক হয়ে যাবে। আপনি ওয়েব অ্যাডমিন বিভাগের মাধ্যমেও স্ক্রিনটি লক করতে পারবেন। আপনি যদি নিজের ডিভাইসে পাসওয়ার্ড / পিন / প্যাটার্ন সেট না করে থাকেন তবে ডিভাইসটি আনলক করতে আপনার নিচের পাসওয়ার্ডটি ব্যবহার করতে হবে।

Read More

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Scroll to Top