আমার ওয়েবসাইট বা আর্টিকেল গুগল সার্চে Rank হচ্ছেনা (কারণ জেনেনিন)

আপনার ওয়েবসাইট বা আর্টিকেল গুগল সার্চে ইনড্রেক্স বা রেঙ্কিং হচ্ছে না। আর নয় চিন্তা আর নয় ভাবনা, কারণ আজ আমি আপনাদের সাথে আলোচনা করতে যাচ্ছি। গুগল সার্চে আর্টিকেল Rank না হওার কারণ সম্পর্কে আলোচনা করব।

আপনি যদি ব্লগ, ওয়েবসাইট বা আর্টিকেল গুগল সার্চে ইনড্রেক্স + রেঙ্ক করাতে চান। তাহলে আমাদের দেওয়া আর্টিকেল শেষ পর্যন্ত মনযোগ দিয়ে পড়ুন।

বর্তমানে ব্লগিং নিয়ে অনেকের মনে অনেক রুচি সৃষ্টি হচ্ছে। এবং ব্লগিং এর প্রতি থাকা ইন্টারেস্ট এর কারণ হলো ব্লগিং থেকে আয় করা অনেক সহজ।

তবে, ব্লগিংকে বর্তমানে একটি প্রফেশনাল বিজনেস বা ক্যারিয়ার হিসেবে মানুষ বেছে নিচ্ছে। তাই উক্ত ব্লগিং করার ক্ষেত্রে অনেক প্রতিযোগিতা করতে হবে। কারণ এটাই স্বাভাবিক। যার মাধ্যমে সহজেই টাকা আয় করা যায়, সেই বিষয়ে নিয়ে তো প্রতিযোগিতা হবেই।

আমরা যদি ব্লগিং করি, তাহলে গুগল সার্চ ইঞ্জিন থেকে প্রচুর পরিমাণের ভিজিটর পাওয়া সম্ভব হয়। আর আপনি যদি গুগল থেকে বেশি ভিজিটর নিতে চান। তাহলে আপনাকে অনেক প্রতিযোগিতা মূলক কাজ করতে হবে।

আর আপনি ব্লগিং করার সময় যদি কোন ব্লগ বা ওয়েবসাইটে আপত্তি কর জনক তথ্য প্রকাশ করেন। তাহলে গুগল সেটি বুঝতে পেরে, আপনার সাইট এর আর্টিকেল, গুগলে কখনই ইনড্রেক্স ও রেঙ্কিং করবে না।

তো চলুন জেনে নেওয়া যাক ওয়েবসাইট বা আর্টিকেল গুগল সার্চে কেন রেঙ্ক হচ্ছে না।

আমার ওয়েবসাইট বা আর্টিকেল গুগল সার্চে Rank হচ্ছেনা (কারণ জেনেনিন)
আমার ওয়েবসাইট বা আর্টিকেল গুগল সার্চে Rank হচ্ছেনা (কারণ জেনেনিন)

নতুন ওয়েবসাইট বা ব্লগ কেন গুগল সার্চে rank হচ্ছে না ?

আপনার ওয়েবসাইট বা ব্লগ যদি নতুন হয় তাহলে গুগল বট সেই নতুন সাইট Crawl করতে কিছু সময় নিয়ে থাকে।

একটি নতুন ওয়েবসাইট বা ব্লগ গুগল সার্চে রেঙ্কিং হতে প্রায় মাস খানেক সময় লাগে। তাই আপনি যদি আপনার ব্লগ ওয়েবসাইট নতুন করে গুগলে জমা করেন। তাহলে সম্পূন্ন সাইট গুগলে ইনড্রেক্স এবং রেঙ্ক হতে কিছু সময় লাগবে।

আপনি যদি গুগল সার্চের মাধ্যমে গিয়ে “site:jit.com.bd এরকম লিখে সার্চ করেন। তাহলে দেখতে পারবেন আপনার ওয়েবসাইট বা আর্টিকেল রেঙ্ক হয়েছে কি না।

উক্ত নিয়মে আপনার সাইট এর নাম লিখে গুগলে সার্চ করবেন। তাহলে দেখতে পারবেন, আপনার সাইটে কোন আর্টিকেল গুলো rank হয়েছে।

আপনার ওয়েবসাইট বা আর্টিকেল যদি ইনড্রেক্স হয় তাহলে আপনি ওয়েবসাইট এর সম্পূর্ণ পেজ গুগল সার্চ পেজে দেখতে পারবেন।

এছাড়া যদি গুগলে আপনার সাইট এর পেজ বা আর্টিকেল ইনড্রেক্স না হয় তাহলে কোন ভাবেই গুগল সার্চ ফলাফলে কোন সাইট বা আর্টিকেল দেখানো হবে না।

আরো পড়ুনঃ

আপনি উক্ত প্রক্রিয়ার মাধ্যমে জানতে পারবেন, গুগল সার্চে আপনার ওয়েবসাইট বা আর্টিকেল rank করেছে কি না।

আপনার ওয়েবসাইট এর আর্টিকেল পেজ গুলো ইনড্রেক্স হওয়ার পরেও কিন্তু নতুন অবস্থায় গুগল সার্চে রেঙ্ক পাওয়াটা সহজ হবে না।

কারণ আপনি যখন আপনার ওয়েবসাইট বা ব্লগ নতুন শুরু করবেন। তখন ওয়েবসাইট ডোমেইন অথরিটি কম থাকবে।

তাই আপনার ডোমেইন যত দ্রুত বাড়তে তত দ্রুত আপনার নতুন ওয়েবসাইট এর আর্টিকেল গুলো গুগল সার্চে ইনড্রেক্স হবে এবং rank হবে।

তাই নতুন ব্লগার হিসেবে, নতুন ওয়েবসাইট বা ব্লগ আর্টিকেল গুগল সার্চে রেঙ্ক হওয়ার জন্য, ২-৩ মাস সময় ধৈয্য ধরতে হবে ওয়েবসাইট বা আর্টিকেল গুগল সার্চে রেঙ্ক দেখার জন্য।

আপনি দ্রুত রেঙ্ক পেতে চাইলে, ওয়েবসাইটে নিয়মিত আর্টিকেল লিখতে হবে। এতে করে আপনার ডোমেইন অথরিটি বাড়বে আর আপনার সাইট ইনড্রেক্স হতে সময় কম লাগবে আর রেঙ্কিং হতেও।

হাই প্রতিযোগিতা কিওয়ার্ড / নিশ ব্যবহার করার ফলে rank হচ্ছে না ?

আমরা আগেই বলেছি ব্লগিং এর ক্ষেত্রে, অনেক প্রতিযোগিতা রয়েছে। বর্তমান সময়ে প্রতিদিন একই বিষয়ে হাজার হাজার ব্লগ পোস্ট পাবলিশ করা হয় বিভিন্ন ওয়েবসাইট বা ব্লগ হতে।

যার ফলে, আপনার লেখার কোয়ালিটি যদি খারাপ থাকে, তাহলে আপনার আর্টিকেল গুলো গুগলে ইনডেক্স হবে না।

এখন আপনার যদি এমন একটি টপিক নিয়ে ব্লগ তৈরি করেন। বা এই ধরণের কিওয়ার্ড টার্গেট করে আর্টিকেল লিখেন। সেই সকল বিষয়ে বা কিওয়ার্ড নিয়ে হাজার হাজার ব্লগ বা ওয়েবসাইট তৈরি করা আছে।

তবে, আপনার জন্য সেই নিশ/ কীওয়ার্ড নিয়ে গুগল সার্চ এর প্রথম পাতায় রেঙ্কিং পেতে অনেক  প্রতিযোগী সাইট এর সাথে মোকাবিলা করতে হবে, তাদের থেকে আরো ভালো কোয়ালিটির আর্টিকেল পাবলিশ করে।

এই জন্য, আপনার প্রতিযোগী ওয়েবসাইট বা ব্লগ গুলোর থেকে আর্টিকেল কেয়ালিটি, এসইও এবং ডোমেইন অথরিটি সব কিছু উচ্চ মানের হয় তাহলে, আপনি গুগল সার্চে ওয়েবসাইট বা আর্টিকেল রেঙ্ক করাতে পারবেন।

কিন্তু, আপনি যদি হাই প্রতিযোগী কিওয়ার্ড নিয়ে আর্টিকেল লিখেন তাহলে ওয়েবসাইট rank করার জন্য অনেক শ্রম দিয়ে কাজ করতে হবে। যেমন-

তাই আপনি যখন কোন বিষয়ে আর্টিকেল লিখবেন তখন অবশ্যই ভালো ভাবে, রিসার্চ করে আর্টিকেল লিখবেন। তাহলে আপনার আর্টিকেল গুলো দ্রত গুগল সার্চে rank করাতে পারবেন।

কোয়ালিটি আর্টিকেল এর অভাবে rank হচ্ছে না ?

আপনি যদি ব্লগ বা ওয়েবসাইটে আর্টিকেল লিখেন। সেটি যদি, কোয়ালিটি সম্পন্ন না হয়। তাহলে আপনার ranking এর জন্য সমস্যা হবে।

একটি ওয়েবসাইট বা ব্লগের জন্য কোয়ালিটি আর্টিকেল হলো- আর্টিকেল গুলো এমন ভাবে লিখতৈ হবে। যে গুলোর মাধ্যমৈ আপনার ভিজিটর তাদের সকল প্রশ্নের উত্তর পেয়ে যাবে আর্টিকেল পড়ার মাধ্যমে।

আমি অনলাইনে রিসার্চ করে, দেখিছি যে, বর্তমান সময়ে অনেক ব্লগার আছে। যারা তাদের ওয়েবসাইট বা ব্লগে, স্পষ্ট ভাবে আর্টিকেল লিখে না।

মানে অনেক লোক আছে যারা, ব্লগ বা ওয়েবসাইট হাতে টাইপিং না করে মাইক্রো ফোন ব্যবহার করে ভয়েজ টাইপিং করে। এক্ষেত্রে অনেক বানান লেখার সময় ভুল হয়ে থাকে যেমন- ভিজিটর লেখতে গেলে ডিজিটাল হয়ে যায়।

এখন আপনার প্রশ্ন হতে পারে যে, যারা হাতে টাইপিং পারে না, তারা কি ব্লগিং করা বাদ দিবে। না বন্ধুরা, আপনি যদি ভয়েজ টাইপিং করতে চান করুন। কিন্তু আপনি যে বিষয়ে আর্টিকেল লিখবেন, তখন সেই আর্টিকেল প্রতিটি লাইন ভালো করে পড়ে নিবেন। যদি কোন ভুল বানান/ শব্দ থাকে তাহলে সেগুলো সংশোধ করে নিবেন।

এছাড়া আরো অনেক ভুল কাজ করে থাকে আর্টিকেল লেখার সময় যেমন- অনেক ব্লগার আছে, মনে করে যে, ব্লগ বা ওয়েবসাইটে 300 – 500 ওয়ার্ডের আর্টিকেল লিখে পাবলিশ করলেই চলবে একটি একটি বড় ভুল।

একটি ওয়েবসাইটে 300- 500 শব্দের আর্টিকেল লেখলে অনেক কম হয়ে যায়। সেখানে ভালো কোন তথ্য থাকে না। যার কারণে ভিজিট আর্টিকেল পছন্দ করে না। আর এই কারণে আপনারদের আর্টিকেল গুগল সার্চে rank হচ্ছে না।

আপনি যদি দ্রুত ওয়েবসাইট বা আর্টিকেল গুগল সার্চে রেঙ্ক করাতে চান। তাহলে আপনার সাইটে কোয়ালিটি সম্পন্ন 1000 – 1500 ওয়ার্ড এর আর্টিকেল লেখার চেষ্টা করুন। আর প্রয়োজনীয় তথ্য গুলো যুক্ত করুন। তাহলে দ্রুত আপনার আর্টিকেল গুগল সার্চে rank করাতে পারবেন।

ওয়েবসাইট পেজ লোডিং স্পিড বেশি থাকার জন্য rank হচ্ছে না ?

আপনার ওয়েবসাইট এর লোডিং স্পিড যদি বেশি থাকে তাহলে, গুগল আপনার সাইট রেঙ্কিং করা থেকে বিরত থাকে।

কারণ গুগল মনে করে, আপনার সাইটে ভিজিটর প্রবেশ করতে পারে না। কোন তথ্য ঠিক মতো জানতে পারে না। মানে সাইট লোডিং স্পিড বেশি থাকার জন্য সাইটে প্রবেশ করা যায় না।

আপনার সাইট যদি স্লো থাকে, তাহলে সেই বিষয়ে টেস্ট করে নিবেন। অনলাইনে অনেক ফ্রি টুলস আছে। যে গুলো ব্যবহার করে, আপনি ওয়েবসাইট পেজ লোডিং স্পিড টেস্ট করে নিতে পারবেন।

আপনার ওয়েবসাইটে কোন ভিজিটর প্রবেশ করার পরে যদি সাইট ১ মিনিট পরে শো করে তাহলে ভিজিটর আপনার সাইটে প্রবেশ করবে না। তাই আপনার সাইট স্পিড বাড়িয়ে নিন।

ওয়েবসাইট লোডিং স্পিড যদি ৫ সেকেন্ড থেকে ১০ সেকেন্ড তারপরে মোটামুটি ভালো। আপনার ওয়েবসাইটে লোডিং স্পিড কম থাকলে দ্রুত আর্টিকেল ইনড্রেক্স হবে এবং দ্রুত rank হবে।

ওয়েবসাইট মোবাইল ফ্রেন্ডলি না হওয়ায় rank হচ্ছে না ?

আমরা জানি বর্তমান সময়ে 80% মানুষ তাদের স্মার্ট ফোন ব্যবহার করে ইন্টারনেট ইউজ করে। আর তাই আপনি যখন একটি ব্লগ বা ওয়েবসাইট তৈরি করবেন, তখন যদি মোবাইল ফ্রেন্ডলি না তৈরি করেন। তাহলে আপনার ওয়েবসাইট গুগল সার্চে রেঙ্ক করবে না।

কারণ আমরা আগেই বলেছি, বেশির ভাগ মানুষ মোবাইল এর মাধ্যমে ইন্টারনেট ব্যবহার করে। তাই আপনাকে ওয়েবসাইট তৈরি করার সময় অবশ্যই মোইল ফ্রেন্ডলি সেটআপ করতে হবে।

আপনি যদি উক্ত নিয়ম অনুযায়ী ওয়েবসাইট তৈরি করতে পারেন। তাহলে দ্রুত গুগল সার্চে আপনার আর্টিকেল rank করাতে পারবেন।

আরো পড়ুনঃ

কপি বা চুরি করা আর্টিকেল প্রকাশ করার জন্য rank হচ্ছে না ?

আপনি যদি কষ্ট করে একটি ব্লগ বা ওয়েবসাইট তৈরি করেন। এবং সেখানে নিজের জ্ঞান থেকে আর্টিকেল না লিখে অন্যের সাইট থেকে আর্টিকেল চুরি করে নিজের সাইটে প্রকাশ করেন। তাহলে কোন ভাবেই আপনার সাইট গুগল সার্চে rank হবে না।

তাই আপনি যদি দ্রুত গুগল সার্চে আর্টিকেল রেঙ্ক করতে চান। অবশ্যই নিজের জ্ঞান থেকে আর্টিকেল লিখে পাবলিশ করতে হবে। তাহলেই আপনি গুগল সার্চে আপনার সাইট ও আর্টিকেল রেঙ্ক করাতে পারবনে।

শেষ কথাঃ

তো বন্ধরা, আজ আমাদের এই পোস্ট থেকে জানতে পারলেন, ওয়েবসাইট বা আর্টিকেল গুগল সার্চে কেন rank হচ্ছেনা। আপনি যদি উক্ত নিয়ম গুলো অনুসরণ করে থাকেন।

তাহলে আপনার ওয়েবসইটে উক্ত বিষয় গুলো মাথায় রেখে কাজ করতে হবে। আপনি যদি সফল ভাবে ওয়েবসাইট বা আর্টিকেল গুগলে দীর্ঘস্থায়ী ভাবে rank করাতে চান। তাহলে নিজের মেথা- জ্ঞান দিয়ে আর্টিকেল লিখন তাহলে দ্রুত ভালো কিছু করা সম্ভব হবে।

ট্যাগ: আমার ওয়েবসাইট বা আর্টিকেল গুগল সার্চে Rank হচ্ছেনা (কারণ জেনেনিন) আমার ওয়েবসাইট বা আর্টিকেল গুগল সার্চে Rank হচ্ছেনা (কারণ জেনেনিন) আমার ওয়েবসাইট বা আর্টিকেল গুগল সার্চে Rank হচ্ছেনা (কারণ জেনেনিন) আমার ওয়েবসাইট বা আর্টিকেল গুগল সার্চে Rank হচ্ছেনা (কারণ জেনেনিন)

আমার ওয়েবসাইট বা আর্টিকেল গুগল সার্চে Rank হচ্ছেনা (কারণ জেনেনিন) আমার ওয়েবসাইট বা আর্টিকেল গুগল সার্চে Rank হচ্ছেনা (কারণ জেনেনিন) আমার ওয়েবসাইট বা আর্টিকেল গুগল সার্চে Rank হচ্ছেনা (কারণ জেনেনিন)  আমার ওয়েবসাইট বা আর্টিকেল গুগল সার্চে Rank হচ্ছেনা (কারণ জেনেনিন)

আমাদের দেওয়া আর্টিকেল আপনার কেমন লাগলো কমেন্ট করে জানাবেন। আর নতুন নতুন আর্টিকেল পড়তে চাইলে আমাদের জে-আইটির সাথেই থাকুন ধন্যবাদ।

আরও পড়ুন

Leave a Comment

Share via
Copy link
Powered by Social Snap