দ্রুত অনলাইনে ইনকামের সহজ ব্লগিং টপিক

কিভাবে খুব দ্রুত এবং সহজে অনলাইন থেকে ইনকাম করা যায়: আমাদের এই ওয়েবসাইটে ম্যাক্সিমাম আর্টিকেলগুলো রয়েছে অনলাইনে ইনকাম (Online Income) কিভাবে করা যায় এর ওপর। তারই ধারাবাহিকতায় আজকের এই টিউটোরিয়াল এ থাকছে কিভাবে অল্প সময়ে সহজ টপিক নিয়ে ব্লগিং করে অনলাইনে আয় করবেন।

এখানে আরো রয়েছে বিস্তারিত গাইড এবং টিউটোরিয়াল সম্পূর্ণ বাংলায়

আপনি অনলাইন ইনকামের নিয়ম নীতি কিছুই জানেন না? সমস্যা নেই আমাদের এখানে যারা আসেন তাদের ম্যাক্সিমাম নতুন ইউজার। এবং সবাই শুরু থেকেই শিখে। কেউ কখনো আসে না।

আমরা এমন ভাবে বর্ণনা করেছি যেন একজন নতুন ইউজার খুব সহজেই অনলাইন থেকে ইনকাম শুরু করতে পারে।

দ্রুত ও সহজ উপায়ে অনলাইনে আয় করার উপায়
দ্রুত ও সহজ উপায়ে অনলাইনে আয় করার উপায়

তো বন্ধুরা চলুন মূল আলোচনায় চলে যাই।  অনলাইন থেকে খুব দ্রুত এবং সহজ উপায়ে কিভাবে আয় করা যায় তার কিছু জনপ্রিয় টপিক নিয়ে আলোচনা করছি।

অনলাইনে ইনকাম (Online Income)

অনলাইনে ইনকাম আসলে কি? যদিও এ প্রশ্নটি কেউ করেন না তারপরও কিছুটা মনের ভিতর অজানা থেকে যায়। আমি বলছি অনলাইনে ইনকাম হলো ঘরে বসে কম্পিউটার, অথবা মোবাইল ফোনের মাধ্যমে ইন্টারনেটের সাহায্যে কিছু কাজ করে আয় করা যায় সেটি হচ্ছে অনলাইন ইনকাম।

এবং বর্তমানে অসংখ্য ছেলেমেয়েরা ঘরে বসে লক্ষ লক্ষ টাকা ইনকাম করছেন। কয়েক বছর আগেও এর সংখ্যা অনেক কম ছিল। চাইলে আপনিও আমাদের ব্লগিং থেকে খুব সহজেই অনলাইন থেকে ইনকাম করতে পারেন।

আমাদের এই ওয়েব সাইটে রয়েছে অনলাইন ইনকাম এর অসংখ্য তথ্য। আপনি তার যেকোনো একটি পছন্দ করে নিয়ে সে অনুযায়ী কাজ করতে থাকুন ইনকাম হবেই ইনশাআল্লাহ।

আমাদের সাইটে রয়েছে পূর্ণাঙ্গ বাংলায় ব্লগ টিউটোরিয়াল। চাইলে দেখে আসতে পারেন।

দ্রুত অনলাইনে ইনকামের রাস্তা

অনেকেই আছেন যারা অনলাইনে এসেই উঠেপড়ে লেগে পড়েন অনলাইনে ইনকাম করার জন্য। সে সমস্ত লোকের কথা হলো আমাকে অনলাইন থেকে ইনকাম করতেই হবে তাও আবার খুবই দ্রুত।

আরে ভাই ,আপনি যে কাজই করেন না কেন সে কাজেই আপনাকে সময় দিতে হবে, শিখতে হবে, তারপর-ই ইনকাম করতে পারবেন।

তারপরও আজকের এই টিউটোরিয়ালে আমি বেশ কিছু বিষয় নিয়ে আলোচনা করছি যে বিষয়গুলোতে ব্লগিং করে খুব অল্প সময়ে এবং সহজে ভালো পজিশনে অবস্থান করা যায় অর্থাৎ খুব ভালো আয় করা সম্ভব।

আরো পড়ুন:

দ্রুত আয় করা যায় এমন ব্লগিং টপিক

যে বিষয়গুলো নিয়ে ব্লগিং করে খুব সহজে এবং অল্প সময়ে ইনকাম করতে পারবেন সে রকম কিছু টপিক আমি নিচে আলোচনা করছি। মনে রাখবেন আপনি যে বিষয় নিয়ে ব্লগিং শুরু করেন না কেন সে বিষয়টি আপনাকে আগে ভালোভাবে জানতে হবে। এবং সঠিক নিয়মে ব্লগিং করতে হবে। আপনি যদি কোন নিয়ম বা নীতিমালার তোয়াক্কা না করে মনগড়া কাজ করেন তাহলে কিন্তু ব্লগিং লাইফে ভালো করতে পারবেন না।

এর জন্য যারা ব্লগিং এ নিয়োজিত আছেন এমন কারোর পরামর্শ নিয়ে কাজ করতে পারেন। অথবা গুগল বা ইউটিউবে সার্চ করে তথ্য সংগ্রহ করতে পারেন।

শিক্ষা ও চাকরি (Education and Jobs)

সবচেয়ে সহজ এবং অল্প সময়ে আয় করার যে টপিকগুলো রয়েছে তার মধ্যে সবচেয়ে জনপ্রিয় এবং অন্যতম টপিক হচ্ছে শিক্ষা এবং চাকুরী সংক্রান্ত বিষয়ে ব্লগিং করা।

চাকরি এবং শিক্ষাসংক্রান্ত বিষয়ে ব্লগিং করলে আপনি বেশ কিছু সুবিধা পাবেন।

যেমন,

  • চাকরি এবং শিক্ষা সংক্রান্ত সকল আর্টিকেল প্রায় একই রকম থাকে।
  • সকল তথ্য আপনি অফিশিয়াল ওয়েবসাইট গুলো থেকে পেয়ে যাবেন।
  • শিক্ষা এবং চাকুরী সংক্রান্ত নোটিশ গুলো প্রতিষ্ঠান কর্তৃক দেওয়া হয়ে থাকে আপনি শুধু আপনার ওয়েবসাইটে প্রতিদিন আপডেট করবেন।
  • খুব অল্প সময়ে অধিক আর্টিকেল লেখা সম্ভব।
  • সবচেয়ে বড় সুবিধা হল, শিক্ষা এবং চাকুরী সংক্রান্ত ওয়েব সাইট গুলোতে প্রচুর ভিজিটর থাকে। আপনার ওয়েবসাইট এ তথ্য আপডেট করলে, এবং ভালো করে উপস্থাপন করতে পারলে, অল্প সময়েই আপনার ওয়েবসাইটে প্রচুর পরিমাণে ভিজিটর আসবে।

ট্রেন্ডিং নিউজ (Tranding News)

তারপর যে বিষয়টি রয়েছে সেটি হলো ট্রেন্ডিং নিউজ, সমসাময়িক সময়ে যে সকল বিষয় প্রচুর পরিমাণে সার্চ হয়ে থাকে। বর্তমান বিশ্বে বিভিন্ন সোশ্যাল মিডিয়াতে একেক সময় একেক বিষয় নিয়ে প্রচুর পরিমাণে ভাইরাল বিষয় চলে আসে, যেগুলো মানুষের জানার আগ্রহে প্রচুর পরিমাণে সার্চ করে থাকে।

আপনি যদি এরকম ভাইরাল টপিক নিয়ে ব্লগিং শুরু করেন তাহলে দেখবেন খুব অল্প সময়ে আপনার ওয়েবসাইটে প্রচুর ভিজিটর আসে এবং প্রচুর আয় হচ্ছে।

তবে এর জন্য আপনাকে অবশ্যই চোখ কান খোলা রাখতে হবে, কখন কোন সময় কোন বিষয়টি সোশ্যাল মিডিয়া এবং অন্যান্য প্লাটফর্মে ভাইরাল হচ্ছে সেদিকে খেয়াল রাখতে হবে।

ট্রেন্ডিং নিউজ নিয়ে কাজ করতে হলে আপনাকে অবশ্যই ভাইরাল বিষয়গুলো নিয়ে যত দ্রুত সম্ভব আর্টিকেল লিখতে হবে এবং পাবলিশ করতে হবে।

হাউ টু গাইড ‍ও টিউটরিয়াল (How to Guide & Tutorial)

এরপর যে বিষয়টি রয়েছে সেটি হচ্ছে হাউ টু গাইড এবং টিউটোরিয়াল (How to guide and tutorials)। এই টপিকটা নিয়ে কাজ করতে হলে আপনাকে অবশ্যই ভালো দক্ষতা সম্পন্ন একজন লোক হতে হবে। হাউ টু গাইড মানেই হচ্ছে যেকোনো একটি বিষয়ের সমাধান।

অর্থাৎ যেকোনো ব্যক্তি যে কোন বিষয়টি সম্পর্কে যখন জানতে অনলাইনে সার্চ করবে তখন যাতে আপনার ওয়েবসাইটটি আসে সেই সমস্যার সমাধান হিসেবে।

মনে করুন, আপনার কম্পিউটারে উইন্ডোজ টেন অটোমেটিক আপডেট হচ্ছে। আপনি চাচ্ছেন আপনার উইন্ডোজ একটি নির্দিষ্ট টাইম এ আপডেট হোক  এবং বাকি সময় আপডেট বন্ধ থাকুক। কিন্তু আপনি জানেন না কীভাবে এ সেটিংটি করবেন।

তখন আপনি গুগলে গিয়ে সার্চ করবেন, How to stop windows 10 autu apdate, ফাইন, দেখবেন নিচে অনেকগুলো রেজাল্ট চলে আসবে আপনি চাইলেই সে রেজাল্ট গুলো দেখে কিভাবে আপনার উইন্ডোজ ট্রেনটি অটো আপডেট বন্ধ করবেন সেটি করতে পারবেন।

অর্থাৎ এ বিষয়টি হলো যেকোনো একটি সমস্যার সমাধান নিয়ে ওয়েবসাইট, বর্তমানে এটি খুবই চাহিদা সম্পন্ন একটি টপিক হিসেবে ব্লগিং জগতে কাজ করছে।

আপনি যদি এই বিষয়টি নিয়ে কাজ করেন তাহলে গুগল এডসেন্স এর পাশাপাশি বিভিন্ন এফিলিয়েট মার্কেটিং করে অর্থাৎ ডিজিটাল প্রোডাক্ট এর এফিলিয়েট মার্কেটিং করতে পারবেন।

কোটস, বানী বা সাকসেস ষ্টোরি (Quotes and Success Stories)

অতঃপর সবচেয়ে সহজ এবং দ্রুত ইনকাম করার যে ক্যাটাগরি রয়েছে সেটি হচ্ছে কোটস বাণী এবং সাকসেস স্টোরী। এতে করে বিভিন্ন কিংবদন্তি ব্যক্তিবর্গের যে উক্তি তথা বাণী চিরন্তনী রয়েছে সেগুলি সর্বত্র একই রকম হয়ে থাকে। আপনি শুধু বাণী তথা বাণী চিরন্তনী গুলো একটু ভিন্নভাবে উপস্থাপন করার মাধ্যমে আপনার ব্লগ তৈরি করতে পারেন।

যেমন অনেকে গুগলে খুঁজে থাকেন, wishes quotes, happy new year scores, Happy New Year, good morning quotes, good night quotes, good evening quotes, fathers Day quotes, Mothers Day quotes, happy birthday quotes, ইত্যাদি নানান ধরনের কোটস বিষয়ে।

এই বিষয়গুলোতে কম্পিটিশন অনেক কম হওয়ায়, এবং প্রচুর পরিমাণে সার্চ হয় খুব সহজে একটি ওয়েবসাইট বানিয়ে সেখান থেকে গুগল এডসেন্সের মাধ্যমে ভালো পরিমাণে ইনকাম করা যায়।

ছবি ডাউনলোড (Image Download Website)

তারপরে যে বিষয়টি রয়েছে সেটি হলো ছবি ডাউনলোড। আপনি যদি ছবি ডাউনলোড এর একটি ওয়েবসাইট বানান তাহলে সেখান থেকে খুব দ্রুত ইনকাম করতে পারবেন।

বর্তমানে অনলাইনে ছড়িয়ে ছিটিয়ে থাকা বিভিন্ন ধরনের স্টক ইমেজ ওয়েবসাইট গুলো থেকে আপনি ছবি কালেকশন করে এই ওয়েবসাইটটি তৈরি করতে পারবেন। বর্তমানে অসংখ্য ওয়েবসাইট রয়েছে যেখান থেকে ছবি কালেকশন করলে তারা কপিরাইট স্ট্রাইক দেয় না।

অর্থাৎ কপিরাইট ফ্রি ছবি আপনি চাইলেই অনলাইন থেকেই সংগ্রহ করতে পারছেন। আরো পড়ুন: কোথায় থেকে কপিরাইট ফ্রি ছবি সংগ্রহ করবেন।

স্বাস্থ্য ও ফিটনেস (Health and Fitness)

অতঃপর যে বিষয়টি রয়েছে সেটি হচ্ছে স্বাস্থ্য ও ফিটনেস বিষয়ে ব্লগিং করা। স্বাস্থ্য এবং ফিটনেস বিষয়ে প্রচুর পরিমাণে সার্চ হয়। যদিও এই বিষয়গুলোতে অনেক ওয়েবসাইট রয়েছে, তারপরও যেহেতু এই ওয়েবসাইটগুলোতে বেশি পরিমাণে ভিজিটর থাকে তাই আপনিও কম-সেকম কিছু ভিজিটর পাবেন এবং অনলাইন থেকে ইনকাম করতে পারবেন।

অর্থাৎ এই ওয়েবসাইটগুলোতে প্রচুর ভিজিটর, ভালো একটি কিওয়ার্ড রিসার্চ করে আপনি কাজ শুরু করে দিন অবশ্যই গুগলের অ্যাড করতে পারবেন এবং ভালো পরিমাণে ইনকাম করতে পারবেন।

অনলাইন ইনকাম (Online Income)

সহজে এবং অল্প সময়ে আয় করা টপিকগুলোর মধ্যে তালিকায় রয়েছে অনলাইন ইনকাম এর যাবতীয় মাধ্যমগুলো নিয়ে ব্লগিং করা।

অর্থাৎ একজন ব্যক্তি কিভাবে অনলাইন থেকে ইনকাম করবে, অনলাইনে আয় করার নিয়ম কানুন। অনলাইন থেকে আয় করার জন্য দক্ষতা অর্জন করার জন্য কি কি করতে হবে। কিভাবে অনলাইন থেকে খুব সহজে আয় করতে পারবে। অনলাইনে আয় করতে গিয়ে যেন প্রতারিত না হয় তার জন্য সতর্কীকরণ।

অনলাইন ইনকাম রিলেটেড ওয়েবসাইট বানাতে হলে উপরের বিষয়গুলো অবশ্যই রাখতে হবে। যেন একজন নতুন ইউজার অনলাইনে আয় করার সকল গাইডলাইন এখান থেকে পেয়ে যায়।

ব্লগিং ও টুলস (Blogging and Tools)

ব্লগিং করে সহজে অনলাইন থেকে আয় করার আরও একটি জনপ্রিয় টপিক হচ্ছে ব্লগিং ও ব্লগিং টুলস। যারা ব্লগিং করার ইচ্ছা নিয়ে নতুন অনলাইনে প্রবেশ করছে তাদের এই বিষয়গুলো খুবই গুরুত্বপূর্ণ। নতুন ব্লগার রা প্রতিনিয়ত অনলাইনে খুঁজছে, কিভাবে এসইও করা যায়, এসইও টুলস, ফাস্ট ব্লগার থিম, ফাস্ট ওয়ার্ডপ্রেস থিম, জনপ্রিয় ওয়াডপ্রেস প্লাগইন ইত্যাদি।

যদি ব্লগিং অথবা ব্লগিং শুরু করেন তাহলে, এফিলিয়েট মার্কেটিং করে প্রচুর টাকা ইনকাম করা সম্ভব। এছাড়াও গুগল এডসেন্স তো আছেই।

উপরে যে বিষয়গুলো আলোচনা করেছি এগুলো ছাড়াও আরো অনেক টপিক রয়েছে । যেগুলো থেকে খুব সহজে অনলাইনে আয় করা সম্ভব।  তবে তার মধ্যে সবচেয়ে সহজ এবং অল্প সময়ে আয় করার জন্য যে টপিকগুলো সবচেয়ে ভালো সেগুলোই আমি আলোচনা করলাম।

Some Tag: দ্রুত অনলাইনে ইনকাম, সহজে অনলাইনে আয়, দ্রুত ইন্টারনেটে ইনকাম ইত্যাদি।

সর্বোপরি আমাদের পরামর্শঃ

আপনি যদি অনলাইনে ব্লগিং করে ইনকাম করতে চান তাহলে, প্রাথমিক অবস্থায় উপরের যে বিষয়গুলো আলোচনা করেছি সেগুলো থেকে যে কোন একটি বিষয় নিয়ে ব্লগ শুরু করে দিন। অবশ্যই মনে রাখবেন যে বিষয় নিয়ে শুরু করুন সে বিষয়ে আপনাকে স্বচ্ছ ধারণা রাখতে হবে। আপনার যদি স্বচ্ছ ধারনা না থাকে তাহলে কিন্তু ব্লগিং করে বেশিদুর অগ্রসর হতে পারবেন না।

আপনার যদি ব্লগিং সম্পর্কে আরো কিছু জানার থাকে, অথবা কোনো পরামর্শ থাকে তাহলে অবশ্যই আমাদের কমেন্ট করে জানাবেন। আল্লাহ হাফেজ।

আরও পড়ুন

1 thought on “দ্রুত অনলাইনে ইনকামের সহজ ব্লগিং টপিক”

Leave a Comment