আপনি নিশ্চয়ই ভাবছেন আসলে কি অনলাইন থেকে আয় করা যায়? অনলাইন থেকে যে এখন আয় করা যায় এটা আর কারো অজানা নয়। অনলাইন আর্নিং নিয়ে আমাদের এই ব্লগে অসংখ্য আর্টিকেল রয়েছে। বর্তমানে অনলাইন থেকে আয় করার বিভিন্ন মাধ্যম রয়েছে।  তার মধ্যে আজকে আমি আপনাদের সাথে যে বিষয়টি নিয়ে আলোচনা করব সেটা হচ্ছে অনলাইন থেকে আর্টিকেল লিখে কিভাবে আয় করা যায়।

আর্টিকেল লিখে অনলাইন থেকে আয় করতে হলে আপনাকে কি কি কাজ করতে হবে এবং কোথায় থেকে আয় করতে পারবেন, কত টাকা আয় করা সম্ভব, আজকে এই আর্টিকেলে আমি আপনাদের সাথে বিস্তারিত আলোচনা করছি।

 

অনলাইন থেকে আর্টিকেল লিখে আয় করার বিভিন্ন মাধ্যম গুলো এখানে আলোচনা করা হলোঃ

নিজের ব্লগে আর্টিকেল লিখে আয়

আপনি যদি খুব ভালো আর্টিকেল লিখতে পারেন তাহলে আপনি নিজের নামে একটি ওয়েবসাইট বানিয়ে সেখানে ভালো ভালো আর্টিকেল পোস্ট করে আয় করতে পারেন। বিভিন্ন তথ্য সংগ্রহ করে বিজিটরকে আকৃষ্ট করে আপনার ওয়েবসাইটে আনতে পারেন এবং যখনই আপনার ওয়েবসাইটে ভালো পরিমানে ভিজিটর আসবে তখন সেখান থেকে আপনি বিভিন্ন মাধ্যম অবলম্বন করে খুব ভালো পরিমাণে ইনকাম করতে পারবেন।

আপনি যখনই নিজের ব্লগে একটি আর্টিকেল প্রকাশ করবেন সে আর্টিকেলটি আপনার ওয়েবসাইটের যতদিন থাকবে ততদিন সেই আর্টিকেল থেকে আপনার ইনকাম আসতে থাকবে। যদি আপনি ভাল আর্টিকেল লিখেন তাহলে এটাই হচ্ছে সবচেয়ে উত্তম পন্থা। আর যদি আপনি অন্য মার্কেটপ্লেসে কাজ করেন আপনি যখনই মার্কেটপ্লেসে একটি কাজ সাবমিট করবেন এবং সেটা পেমেন্ট পাবেন এবং সেখান থেকে আপনার কাজ শেষ এবং আপনার ইনকামও শেষ সেজন্য মার্কেটপ্লেসে কাজ করার চেয়ে নিজের ব্লগ আর্টিকেল লিখে কাজ করা সবচেয়ে উত্তম। আপনি যদি ব্লগিং করে ইনকাম করতে চান তাহলে এখানে দেখুন।

বিভিন্ন  ব্লগে পোষ্ট লিখে আয়

বেশ কিছু ওয়েবসাইট রয়েছে সেখানে আপনি চাইলে আপনার ব্লগ পোস্ট সাবমিট করে প্রতি পোস্ট থেকে আপনি একটি নির্দিষ্ট পরিমাণ টাকা ইনকাম করে নিতে পারেন। আমি কিছু সাইট নিচে দিয়ে দিলাম এই সাইট গুলো থেকে আপনি আর্টিকেল লিখে ইনকাম করতে পারবেনঃ

১। Funds for writers:

২। writersweekly

৩।Make a living writing

লিস্ট আর্টিকেল লিখে আয়ঃ

আপনি চাইলে বিভিন্ন টপিকের উপর লিস্ট করেও টাকা আয় করতে পারেন। নিচে এই ধরনের কিছু সাইট এর লিঙ্ক দিলাম।

  1. listverse.com
  2. toptenz.ne
  3. crowdsource.com

কপিরাইটিং থেকে আয়ঃ

আর্টিকেল লিখে অনলাইনে ইনকাম করার মধ্যে আরেকটি মাধ্যম হচ্ছে কপিরাইটিং।  কপিরাইট এর মধ্যে কয়েকটি ক্যাটাগরি, যেমন কয়েকটা আর্টিকেল থাকবে সে আর্টিকেলগুলো আপনাকে রিচার্জ করে নিজের ভাষায় সেই আর্টিকেলগুলো অংশগুলো লিখতে হবে।  অথবা আপনি স্ক্যান করা ফাইল দেওয়া হবে সেগুলো দেখে দেখে টাইপ করে দিতে হবে। বর্তমান ফ্রীলান্স, আপওয়ার্ক, ফাইভার মত মার্কেট প্লেসে কঁপিরাইটিং কাজের অভাব নেই। আপনাকে শুধু বিট করে কাজ নিতে হবে। এটা বর্তমানের মার্কেটপ্লেসে  কাজ পাওয়া খুবই কষ্টসাধ্য কাজ।

বিভিন্ন মার্কেটপ্লেসে থেকে আর্টিকেল লিখে আয়

আপনি বিভিন্ন মার্কেটপ্লেসে আর্টিকেল লিখে আয় করতে পারেন।  বর্তমানে Freelancer, Upwork, Articleweiter, hirewriter সহ আরো অনেক মার্কেটপ্লেস রয়েছে। মার্কেটপ্লেসে প্রথমে অর্ডার পাওয়াটা খুবই কষ্টসাধ্য ব্যাপার।  কিন্তু যখন আপনি মার্কেটপ্লেস থেকে কিছু অর্ডার সরবরাহ করবেন এবং ভালো করে কাজের ডেলিভারি দিবেন তখন আপনার কাজের অর্ডার এমনিতেই পেরে যাবে।

আপনার লেখা আর্টিকেল বিক্রয় করে আয়

আপনি চাইলে বর্তমানে বিভিন্ন মার্কেটপ্লেসে আপনার আর্টিকেলগুলো কে বিক্রয় করেও নির্দিষ্ট পরিমাণে টাকা আয় করতে পারেন।  এর জন্য অবশ্যই আপনাকে খুব ভালো মানের আর্টিকেল রাইটার হতে হবে। কেননা বর্তমান মার্কেটপ্লেসে খুবই কম্পিটিশন। এরকম কিছু সাইট হলোঃ hirewriter, fiverr etc.

পরিশেষেঃ 

এছাড়াও আরোও অনেক মাধ্যম রয়েছে অনলাইনে আয় করার মতো। অনলাইনে আয়ের বিষয়ে আমাদের ব্লগে আরোও লেখা রয়েছে।

যদি লেখাটি ভালোলাগে শেয়ার করবেন। আর যদি কোন কিছু জানার থাকে তবে কমেন্ট করুন।

1 COMMENT

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here