ডোমেইন কি এবং কেন কিনতে হয়। প্রকারভেদ সহ বিস্তারিত

What is Domain/ডোমেইন কিঃ  আজকাল অনলাইনে আয় করা এবং অনলাইনে ব্যবসা করাটা অনেক জনপ্রিয় মাধ্যম হয়ে উঠেছে। অনেকে অনলাইনে বিভিন্ন ধরনের ব্যবসা পরিচালনা করে আসছে বিভিন্ন ওয়েবসাইটের মাধ্যমে। এছাড়াও অনেকেই তাদের নিজস্ব ব্যবসা প্রতিষ্ঠানকে বিশ্ববাসীকে জানানোর জন্য ওয়েবসাইট বানাচ্ছে এবং ওয়েবসাইট বানানোর জন্য অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ একটি ডোমেইন। ডোমেইন ছাড়া একটি ওয়েবসাইট তৈরি করা অসম্ভব।

ডোমেইন কি? কেন ডোমেইন ব্যবহার করা হয়? ডোমেইন কত প্রকার কি কি? প্রত্যেকটি বিষয় এই টিউটোরিয়ালে নিখুতভাবে আলোচনা করা হয়েছে।

what is Domain registration
what is Domain registration

ডোমেইন কি?

ডোমেইন এর অর্থ হলো স্থান। কিন্তু আমরা যে ডোমেইন নিয়ে আলোচনা করছি তা হলো মূলত একটি ইউনিক আইপি ঠিকানাকে কোন নামে রূপান্তর করার মাধ্যমে ডোমেইন তৈরি করা হয়।

এক কথায়, একটি ওয়েব সাইটের ঠিকানাই/Address ই হলো ডোমেইন। যেমন, jit.com.bd, google.com, facebook.com এই প্রত্যেকটি হলো এক একটি ডোমেইন।

আরও পড়ুনঃ  ডোমেইন রেজিষ্ট্রেশন করার সময় যে বিষয়গুলি লক্ষ রাখা উচিৎ

ডোমেইন কেন ব্যবহার করা হয়

কোন প্রতিষ্ঠান বা ব্যবসায়িক ওয়েবসাইট তৈরি করতে গেলে একটি ডোমেইন এর প্রয়োজন হয়। ডোমেইন হলো একটি ইউনিক ঠিকানা যে ঠিকানা দিয়ে ওয়েবসাইট তৈরি করা হয়েছে শুধুমাত্র ঐ ওয়েবসাইটটি খুঁজে পাওয়া যাবে। যেকোনো একটি প্রতিষ্ঠানের নামে একটি ডোমেইন রেজিস্ট্রেশন করা হলে সেই ডোমেইন দিয়ে শুধুমাত্র সেই প্রতিষ্ঠান খুঁজে পাওয়া যাবে কেননা ডোমেইন নামটি হচ্ছে সম্পূর্ণ ইউনিক অদ্বিতীয়।

তাই যেকোনো ব্র্যান্ড বা ব্যবসা কে বিশ্বব্যাপী ছড়িয়ে দেওয়ার একমাত্র মাধ্যম হলো ওয়েবসাইট এবং একটি ওয়েবসাইটের জন্য একটি ডোমেইন জরুরী। অর্থাৎ একটা ডোমেইন নাম দ্বারা একটি ওয়েবসাইট এর পরিচিতি লাভ হয়।

আরও পড়ুনঃ

অনলইনে আয়ের সেরা মাধ্যমগুলো

হোস্টিং কেনার আগে যে বিষয়গুলি জানা জরুরী

ডোমেইন এর প্রকারভেদ

আমরা জানতে পারলাম ডোমেইন কি এবং কেন ব্যবহার করতে হয়। এখন আমরা জানবো ডোমেইন আসলে কত প্রকার।

আমরা প্রাথমিক অবস্থায় ডোমেইন কে  3 টি ভাগে ভাগ করতে পারিঃ

১. TLD – বা Top Level Domainsঃ (টপ লেভেল ডোমেইন)

টপ লেভেল ডোমেইন/Top level domain (TLD) ইন্টারনেটে যত ডোমেইন রয়েছে তার মধ্যে সবচেয়ে মূল্যবান। এবং টপ-লেভেল ডোমেইন গুলো সবচেয়ে বেশি ব্যবহার করা হয়। একটা প্রতিষ্ঠান বা ব্যবসার ক্ষেত্রে টপ লেভেল ডোমেইন সবারই প্রথম পছন্দ।

টপ লেভেল ডোমেইন দুটি অংশে বিভক্ত: প্রথম অংশ হলো বিজনেস নেম তারপর একটি  (Dot) অতঃপর দ্বিতীয় অংশ হোস্ট নেম

যেমন, Google.com এখানে প্রথম অংশ (Google) হলো ব্যান্ড/ব্যবসার নাম এবং দ্বিতীয় অংশ com হলো হোষ্ট নেম (domain extension)।

বিভিন্ন ক্যাটাগরি অনুযায়ী টপ-লেভেল ডোমেইন /Top Level Domain extension এর বেশ কিছু জনপ্রিয় এক্সটেনশন নিচে দেওয়া হলঃ

.com( commercial)

.net (Network)

.info(Information)

.org (Organization)

.gov( Government)

.edu (Education)  ইত্যাদি।

অর্থাৎ উপরের দেয়া এক্সটেনশন গুলো থেকে আপনি যেকোন এক্সটেনশন আপনার প্রয়োজন অনুযায়ী রেজিস্ট্রেশন করে আপনার ওয়েবসাইট তৈরি করতে পারবেন।

২. CcTLD – Country Code Top Level Domain/ দেশ ভেদে কোড সহ টপ লেভেল ডোমেইন

আপনার ওয়েবসাইটটি যদি বিশেষ কোনো দেশ বা এরিয়া ভেদে তৈরি করা হয় সে ক্ষেত্রে আপনি যেকোন CcTLD – Country Code Top Level Domain রেজিস্ট্রেশন করে একটি ওয়েবসাইট তৈরি করতে পারেন। এই ডোমেইনগুলো টপ লেভেল ডোমেইন হিসেবেই পরিচিত। তবে এ ধরনের ডোমেইনের তিনটি অংশ থাকেঃ

যেমনঃ jit.com.bd, এখানে

১ম অংশটি হলো (jit) ব্র্যান্ড/বিজনেস নাম,

২য় অংশটি হলো (com) টপ লেভেল এক্সটেনশন/ হোস্ট নেম এবং

৩য় অংশটি হলো (bd) এটি কান্ট্রি কোড।

Country code top level ডোমেইনের কিছু উদাহরণ

.Bd (Bangladesh)

.In (India)

.Us (United States)

.Cn (China)ৎ

.Ca (canada)

.Ro (Romania)

.br (Brazil)

.sg (Singapore)  ইত্যাদি

ডোমেইন এর দাম কতঃ

উপরে যে সমস্ত এক্সটেনশন দেওয়া হয়েছে এ সমস্ত এক্সটেনশন সহ একটি টপ-লেভেল ডোমেইন আপনি 9 শত টাকা থেকে শুরু করে 12 শত টাকার মধ্যে পেয়ে যাবেন। আপনি চাইলে বিভিন্ন এক্সটেনশন দিয়ে লোকাল এবং ইন্টারন্যাশনাল যে কোম্পানি গুলো রয়েছে সেগুলোতে দাম যাচাই করে সেখান থেকে ভালো মানের ডোমেইন কিনতে পারেন।

কোথায় থেকে রেজিষ্ট্রেশন করবেন/কিনবেন

একটি ডোমেইন কেনার আগে অবশ্যই ডোমেইন কোম্পানি সম্পর্কে ভালোভাবে ধারণা নিতে হবে এবং সে কোম্পানির ডোমেইন সার্ভার কেমন ফাস্ট এটা আপনাকে জেনে নিতে হবে। আপনি চাইলে দেশীয় যেকোনো লোকাল কোম্পানি থেকে ডোমেইন কিনতে পারেন তারা যেকোনো ইন্টারন্যাশনাল কোম্পানি থেকে ডোমেইন কিনে রিসেলার করে আপনাদের কে দিয়ে দেবে। এছাড়াও আপনি চাইলে সরাসরি ইন্টারন্যাশনাল কোম্পানি থেকে কিনে নিতে পারেন। ইন্টারন্যাশনাল কোম্পানির মধ্যে জনপ্রিয় যে কোম্পানি গুলো রয়েছে তার মধ্যে প্রধানত যে কোম্পানিগুলোঃ

  • Namecheap.com
  • domains.google
  • Domain.com
  • name.com
  • godaddy.com

ডোমেইন নেম কিভাবে কাজ করে?

একটি ডোমেইন মূলত কয়েকটি ধাপে তার কার্য সম্পন্ন করে থাকে।

ধরি jit.com.bd সাইটি ভিজিট করতে চাচ্ছেন। তাহলে এই সাইটি নিম্নে দেয়া ধাপগুলো অনুযায়ী এই সাইটি প্রদর্শন করবে। নিচের দেয়া ধাপগুলো সম্পন্ন হতে

ধাপ ১ঃ লোকাল ব্রাউজার মেশিন নেম সার্ভারে রিকোয়েস্ট পাঠাবে, ওয়েবসাইটের আইপি এড্রেস পাওয়ার জন্য।

ধাপ ২ঃ লোকাল নেম সার্ভারের cache এ ডোমেইন নেম নেই। এটি এখন একটি রিকোয়েস্ট পাঠাবে SG নেম সার্ভারে যেটি মেইনটেইন করছে SGNIC ।

ধাপ ৩ঃ SG নেম সার্ভার এখন এর টেবিলে খুঁজবে এবং myexample.com.sg এর প্রাইমারি নেম সার্ভারে রিকোয়েস্টের প্রত্যুত্তর দিবে।

ধাপ ৪ঃ লোকাল নেম সার্ভার প্রাইমারি নেম সার্ভারের সাথে যোগাযোগ করবে।

ধাপ ৫ঃ প্রাইমারি নেম সার্ভার এখন তার ডাটাবেজ টেবিলে myexample.com.sg খোঁজ করবে এবং www.myexample.com.sg এর আইপি এড্রেস পাঠাবে নেম সার্ভারে।

ধাপ ৬ঃ এখন লোকাল নেম সার্ভার ব্রাউজার আইপি এড্রেস পাঠাবে।

ধাপ ৭ঃ ওয়েবসাইটটি এবার ব্রাউজারে প্রদর্শিত হবে।

ডোমেইন নেম রেজিস্ট্রেশন করতে কি কি প্রয়োজন?

ডোমেইন নাম বা ডোমেনই রেজিষ্ট্রেশন করতে/ কিনতে তেমন কিছুই লাগে না। একটি সচল ইমেইল আইডি অবশ্যই থাকা দরকার, একটি সচল ফোন নম্বর দরকার। আর, বিলিং ঠিকানা দরকার।

তবে হ্যা আপনি যদি কো CcTLD DOMAIN  রেজিষ্ট্রেশন করতে চান সে ক্ষেত্রে বিভিন্ন দেশের কিছু নিয়ম থাকে সেগুলো অনুস্বরন করতে হয়। আবার কিছু CcTLD DOMAIN এক্সটেনশন আছে যেগুলো কোনরূপ ঝামেলা ছাড়াই বিশ্বের যে কোন জায়গা থেকে রেজিষ্ট্রেশন করা যায়।

সবশেষে আমাদের পরামর্শঃ

আপনি যদি ডোমেইন রেজিস্ট্রেশন করতে চান সে ক্ষেত্রে অবশ্যই বেশ কিছু বিষয়ে লক্ষ্য রাখতে হবে। যেমন, সহজ শব্দ নির্বাচন করা, ভালো টিএলডি এক্সটেনশন নির্বাচন করা, সংখ্যা বা চিহ্ন এড়িয়ে চলা। এছাড়া আরো বেশ কিছু বিষয় খেয়াল রাখতে হবে যেগুলি আমি আমার এই আর্টিকেলে আলোচনা করেছি অথবা আপনি এখনো দেখতে পারেন- ডোমেইন রেজিস্ট্রেশন করার সময় যে বিষয়গুলো লক্ষ্য রাখা উচিত

সর্বোপরি যদি এই আর্টিকেলটি আপনার কাছে ভালো লাগে তাহলে অবশ্যই আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করবেন। এবং যদি কোন পরামর্শ থাকে তাহলে অবশ্যই কমেন্ট করবেন। ধন্যবাদ ।

বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন।

You May Like

Leave a Comment