2021 সালে সেরা ৭টি ফ্রিল্যান্সিং ওয়েবসাইট

ফ্রিল্যান্সিং ওয়েবসাইট- এর মাধ্যমে বর্তমানে অনলাইনে কাজ করা খুবই জনপ্রিয় একটি পেশা। বিভিন্ন ফ্রিল্যান্সিং ওয়েবসাইট এ নিজস্ব দক্ষতা কাজে লাগিয়ে বিভিন্ন ধরণের কাজ করে ঘরে বসেই হাজার হাজার টাকা আয় করা সম্ভব। আউটসোর্সিং প্রজেক্টের মাধ্যমে বিশ্বের অনেক বড় বড় প্রতিষ্ঠান  ফ্রিল্যান্সারদের দ্বারা কাজ করিয়ে নিচ্ছে। যেমনঃ এয়ারবিএনবি, ড্রপবক্স প্রভৃতি।

বর্তমানে বাংলাদেশে বিশ্বের দ্বিতীয় বৃহত্তম ফ্রিল্যান্সার কমিউনিটি বিদ্যমান।

অর্থাৎ, পৃথিবীতে সর্বমোট যে সংখ্যক ফ্রিল্যান্সার আছে, তার মধ্যে বাংলাদেশের অবস্থান দ্বিতীয়। প্রথম স্থানে আছে ভারত এবং তৃতীয় স্থানে আছে যুক্তরাষ্ট্র।

এই বিশাল সংখ্যক ফ্রীল্যান্সারের অধিকাংশ বিভিন্ন ওয়েবসাইটের মাধ্যমে কাজ শুরু করেছেন। সেই ওয়েবসাইটগুলি সম্পর্কে কৌতূহল জাগে? জানতে চান সেই সম্পর্ককে?

আজকের লেখায় অনলাইনে আয় করার সবচেয়ে জনপ্রিয় ওয়েবসাইটগুলোর মধ্য থেকে সেরা ৭টি ওয়েবসাইট সম্পর্কে আপনাদের জানাবো।

সর্বাধিক আয় করার ফ্রিল্যান্সিং ওয়েবসাইট 

১. আপওয়ার্ক

যদি কোন পেশাদার ফ্রীল্যান্সারের কাছে জানতে চাওয়া হয় যে বিশ্বের সবচেয়ে জনপ্রিয় ফ্রিল্যান্সিং সাইট কোনটি? তবে নিঃসন্দেহে তিনি বলবেন ‘আপওয়ার্ক’। সর্বোপ্রথম এটি ওডেস্ক নামে যাত্রা শুরু করে। পরবর্তীতে ২০১৫ সালে এটি ওডেস্ক নাম পরিবর্তন করে আপওয়ার্ক নাম নেয়। একইসময় জনপ্রিয় ফ্রিল্যান্সিং প্ল্যাটফর্ম  ‘ইল্যান্স’ আপওয়ার্কের সাথে যুক্ত হয়।

www.upwork.com

আপওয়ার্কে আপনি ফিক্সড এবং ঘন্টা ভিত্তিক রেটে কাজ পাবেন। এখান থেকে পেপাল, পেওনিয়ার এবং ব্যাংক ট্র্যান্সফার পদ্ধতিতে পেমেন্ট নেয়ার সুবিধা আছে।

Freelancing website

২. ফাইভার 

পূর্বে ফাইভারে শুধু ৫ ডলারের কাজ পাওয়া যেত। কিন্তু এখন এখানে ৫ ডলার থেকে শুরু করে অনেক ভাল অ্যামাউন্টের কাজ পাওয়া যায়। একি সাইটের উল্লেখযোগ্য ও জনপ্রিয় ক্যাটাগরি হলোঃ লোগো ডিজাইন, ভয়েস রেকর্ড, আর্টিকেল লেখা ইত্যাদি। এছাড়া অন্যান্য ছোট ছোট কাজও পাওয়া যায়।

www.fiverr.com

এখানে ফ্রিল্যান্সারদের যেমন বিড করার সুযোগ আছে তেমনি, বায়াররা সরাসরি ফ্রিল্যান্সার সার্চ করেও প্রজেক্ট অফার করে থাকেন। ফাইভারে ঘণ্টা ভিত্তিক(আওয়ারলি) কোনো জব নেই। এখানে সবই ফিক্সড প্রাইসের প্রজেক্ট। এখান থেকে পেপাল, পেওনিয়ার এবং ব্যাংক ট্র্যান্সফার পদ্ধতিতে পেমেন্ট নেয়ার সুবিধা আছে।

৩. ফ্রিল্যান্সার ডটকম

ফ্রিল্যান্সার ডটকম একটি প্রথম সারির অনলাইন ভিত্তিক জব মার্কেটপ্লেস। এখানে ফিক্সড প্রাইস প্রজেক্টের পাশাপাশি আওয়ারলি রেটের প্রজেক্ট পাওয়া যায়। এখানে প্রায় সব ধরণের অনলাইন জব রয়েছে, এবং প্রচুর ফ্রিল্যান্সার এখানে কাজ করে।

www.freelancer.com

জনপ্রিয় এই ফ্রিল্যান্সিং কোম্পানিটির হেডঅফিস অস্ট্রেলিয়ায় অবস্থিত। এখান থেকে পেপাল, স্ক্রিল, পেওনিয়ার এবং ব্যাংক ট্র্যান্সফার পদ্ধতিতে পেমেন্ট নেয়ার সুবিধা আছে।

৪. পিপল পার আওয়ার 

অনলাইনে আয় করার অন্যতম জনপ্রিয় ফ্রিল্যান্সিং ওয়েবসাইট হলো পিপল পার আওয়ার। এটি লন্ডন, যুক্তরাজ্য ভিত্তিক ফ্রিল্যান্সিং প্রতিষ্ঠান।

 www.peopleperhour.com

এখানে ও আওয়ারলি রেটের পাশাপাশি ফিক্সড প্রাইস প্রজেক্ট পাওয়া যায়। পিপল পার আওয়ার থেকে পেপাল, স্ক্রিল, পেওনিয়ার এবং ব্যাংক ট্র্যান্সফার পদ্ধতিতে পেমেন্ট নেয়ার সুবিধা আছে।

৫. নাইনটি নাইন ডিজাইনস

আপনি যদি ডিজাইন করতে ভালোবাসেন এবং ডিজাইনে দক্ষ হয়ে থাকেন , তাহলে 99designs আপনার জন্য খুব ভালো একটি কাজের জায়গা। ফ্রিল্যান্সিং ওয়েবসাইট-এ বিভিন্ন দেশের বায়াররা প্রজেক্ট অফার করে থাকেন। তাঁরা  পেশাদার গ্রাফিক ডিজাইনারদের কাছে থেকে অর্থের বিনিময়ে লোগো, ওয়েবসাইট ও অন্যান্য গ্রাফিক ডিজাইনের কাজ করিয়ে নেন।

99designs.com

এটি যুক্তরাষ্ট্রের সান ফ্র্যানসিস্কো ভিত্তিক একটি মাল্টিন্যাশনাল কোম্পানি, যারা অনলাইন ডিজাইনের জন্য সরবাধিক পরিচিত। 99designs থেকে পেপাল এবং পেওনিয়ারের মাধ্যমে পেমেন্ট নেয়ার সুবিধা আছে।

৬. গুরু ডটকম 

গুরু ডটকম একটি অ্যামেরিকান ফ্রিল্যান্সিং ওয়েবসাইট। এখানে ফিক্সড প্রোজেক্টের পাশাপাশি এবং আওয়ারলি  প্রজেক্ট পাওয়া যায়। গুরু ডটকম থেকে  পেপাল, পেওনিয়ার ও ব্যাংক ট্র্যান্সফার পদ্ধতির , মাধ্যমে পেমেন্ট নেয়া যায়।

 www.guru.com

৭. বিল্যান্সার ডটকম

বিল্যান্সার বাংলাদেশি ফ্রিল্যান্সিং ওয়েবসাইট। এখানে বিভিন্ন ধরণের দেশি প্রজেক্ট পাওয়া যায়।দেশের পাশাপাশি এটি এখন বিদেশ থেকেও  ক্ল্যায়েন্ট ও ফ্রিল্যান্সার আনার পরিকল্পনা করছে বলে জানিয়েছে।

belancer.com

বিল্যান্সার ডটকমে আপনি যেমন ছোট আকারের (১০০ টাকা) প্রজেক্ট পাবেন তেমনি অনেক বড় অ্যামাউন্টের প্রজেক্টও পাবেন। এই মার্কেটপ্লেসে শুধু ফিক্সড প্রাইস প্রোজেক্ট পাওয়া যায়। আপনি চাইলে আপনার ফ্রিল্যান্সার ক্যারিয়ার দেশি সাইট থেকেই শুরু করতে পারেন।

বিল্যান্সার থেকে ব্যাংক ট্র্যান্সফার, বিকাশ, অথবা সরাসরি ফ্রিল্যান্সার অফিসে গিয়ে পেমেন্ট নিতে পারবেন।

এই ছিলো জনপ্রিয় সেরা ৭টি ফ্রিল্যান্সিং ওয়েবসাইট সম্পর্কে আলোচনা। এছাড়াও আরও অনেক ফ্রিল্যান্সিং মারকেটপ্লেস আছে। আপনি আপনার সুবিধামত যেকোন একটিতে কাজ শুরু করতে পারেন। তবে এই ৭টি থেকে যে কোন একটি বেছে নিয়ে কাজ শুরু করাই বুদ্ধিমানের কাজ হবে। আশা করি লেখাটি আপনাদের উপকারে আসবে।

আরও পড়ুন

Leave a Comment

Share via
Copy link
Powered by Social Snap