একজন হ্যাকার তৈরিকৃত একটি লিঙ্কে ক্লিক করে হ্যাক করে নিতে পারে আপনার সকল তথ্য। একজন হ্যাকার কৌশলে আপনাকে একটি লিংক পাঠাবে এসএমএসে বা অন্য কোন উপায়ে আপনি যদি কখনো সেই লিঙ্কটাতে ক্লিক করে ফেলেন তাহলে একজন হ্যাকার আপনার সমস্ত তথ্য সেখান থেকে মুহূর্তেই চুরি করে নিতে পারবে। এবং এতে আপনি পড়ে যাবেন অনেক বড় বিপদের মধ্যে। একজন হ্যাকার হাতিয়ে নিতে পারে আপনার মোবাইলের সকল তথ্য এমনকি আপনার ডেবিট এবং ক্রেডিট কার্ডের এবং ব্যাংক একাউন্ট এর সকল কিছুই। এখন প্রশ্ন হচ্ছে-

শুধু Link এ ক্লিক করার মাধ্যমে হ্যাক করা যায় ?

Ans: হ্যা যায়!!!!!!

হ্যাকাররা কিভাবে হ্যাক করে
হ্যাকাররা কিভাবে হ্যাক করে

একটি লিংকে ক্লিক করার ফলে হ্যাকাররা কি কি হ্যাক করতে পারে- এবং কিভাবে

  • হ্যাকার আপনার Contact list, message, location, Camera access পেতে পারে।
  • আপনার Device এ Autometicly Spyware install হয়ে সেটা Execute হয়ে আপনার প্রায় পুরো ডিভাইস হ্যাক হতে পারে।
  • যদি Execute না হয়,তাহলে লিংকে ক্লিক করতেই অটু ভাবে একটা picture,pdf,doc file, বা যেকোনো ধরনের ফাইল Download হতে পারে,এবং সেটাতে শুধু Click করার মাধ্যমেই আপনার Device এ Virus ডুকে যেতে পারে।
  • হ্যাকার যদি Browsee exploit use করে, যেমন Beef! তাহলে আপনি Link এ ক্লিক করলে আপনার Browser এ Saved password হ্যাকার পেতে পারে। আপনার Location,contact list পেতে পারে,(যদি Password সেইভ না থাকে তাহলে আপনাকে Advance Phishing পেইজে নিয়ে আপনার Id pass hack হতে পারে।
  • হ্যাকার Link Exploit Use করলে সেটার মাধ্যমেও আপনার কম্পিউটার হ্যাক হতে পারে।

হ্যাকাররা এর জন্য কি কি কৌশল ব্যবহার করে

এটা অনেক ভাবেই হতে পারে, এখন চলুন বিস্তারিত আলোচনায় আসি। আমি শুধু ৪-৫ টা স্টেপ উল্লেখ করবো।

এস.এম.এস এর মাধ্যমে

আমাদের ফোনে অনেক সময় মেসেজ আসে “১০ জিবি ফ্রি নিনে নিন Mygp বা অন্য কোনো App link দিয়ে বলে Download দিতে”  Bulk Sms বা sms spoofing করে এ কাজটি খুব সহজেই করা যায়।

এই কাজটা হ্যাকারও করতে পারে Bulk Sms বা sms spoofing করে। ,App এর ভিতরে Virus Bind করে দিবে! আপনি App Download দিবেন সেটা ঠিক ভাবেই চলবে,এবং ভাইরাসও ডুকে থেকে যাবে। App uninstall দিলেও ভাইরাস অন্য কোনো নামে ডিভাইসে রয়ে যাবে। (যদি Embed থাকে তাহলে অন্য কথা) আর আপনি হয়ে যাবেন হ্যাকড!

ইমেইল এর মাধ্যমে

আমাদের কাছে ইমেইল আসে অনেক, বড় বড় কোম্পানি গুলো প্রতিদিনই ইমেইল চ্যাক করে। ধরুন কোনো কাস্টমার ইমেইল করলো,উনি কোনো ডেমু দিলো। বা লিংক দিলো বিস্তারিত জানার জন্য। কোম্পানি থেকে ইমেইল অপেন করতেই অটু একটা ফাইল Download হয়ে যাবে আর auto execute হয়ে যাবে,,,! এমনটা না হলে কোনো Error আসবে Display তে,সেটা Cancel বা ok যেটাই দিন। Execute হবেই ভাইরাস। ব্যাস,Pc hacked. Data leaked. অথবা মোটা অঙ্কের টাকা দাবি করে। অথবা Ransomeware Attack এ সব Data encrypted!

এভাবেই বড় বড় কোম্পানি গুলো হ্যাক হয় প্রতিনিয়ত। Freelancer রাও হ্যাক হয়। কারন সবাই Windows user, প্রতিদিনই Client এর ডেমু দেখা লাগে,Download দিয়ে ওপেন করা লাগে। কত কি। এতেই তারা বেশি হ্যাক হয়। Drive by exploit বলা যায় এটাকে।

**** আপনার Android device দিয়েই একটা link Open করলেন। যতক্ষন আপনার Browser এ Open link এর Tab টা Open থাকবে ততক্ষন আপনার Browser টা হ্যাকার এর কাছে আরামসে শান্তিতে ভালোবাসা লেনদেন করতে থাকবে।
এতে আপনার Camera access পেতে পারে,Location access পেতে পারে। বা Saved password সব নিয়ে নিতে পারে। অনেক সময় দেখবেন অনেকেই Camerar উপরে ট্যাব লাগিয়ে রাখে। এজন্যই লাগিয়ে রাখে।

**** আমরা ভিবিন্ন Website browser দিয়ে Browse করি। মাঝে মাঝে বিরক্তকর popup আসে, Auto redirect হয়ে আপনাকে অন্য কোনো পেইজে নিয়ে যায়।
**** এভাবে আপনার ফোনের ডাটা হ্যাক হতে পারে। তখন আপনার Camera access নিয়ে আপনি কি করতাছে দেখতে পারবে, Record করে আপনাকে ব্ল্যাক মেইলও করতে পারে।

এখন আরেকটা কথা, Browser exploit এর ক্ষেত্রে আপনার Tab যতক্ষন Open থাকবে ততক্ষনই আপনার ডিভাইস হ্যাকারের ভালোবাসায় মেতে থাকবে, আপনি Tab close করতেই তাদের ব্রেকআপ হয়ে যাবে। বাট ডিপেন্ড করে হ্যাকর কতটা Smart…! যদি বেশি Smart হয়,, আপনি Tab close করলেও লাভ নাই ভায়া,তাদের ভালোবাসা চলতেই থাকবে!!!

(আরো অনেক ভাবেই যায়,এক পোস্টে এত কিছু সম্ভব না লিখা,তাই বেশি বিস্তারিত লিখতে পারিনাই।)

কিভাবে নিজেকে সেইফ রাখবেন?

ভালো Antivirus ব্যাবহার করেন। যদিও আমি আমার ডিফেন্ডার,Real time protection, Firewall সবকিছুই Disabld করে রাখছি। আমি সেইফ ভাবে ব্যাবহার করতে পারি,কিছুটা বুঝতে পারি। তাই বলে আপনিও এমনটা করবেন না। অবশ্যই ভালো Antivirus ব্যাবহার করবেন। যদিও হ্যাকার সেটা বাইপাস করতে পারবে। তবুও অনেকটা Secure থাকবেন।

আপনি Linux এ আসতে পারেন। আমি ডুয়াল বুট ব্যাবহার করি, Windows এর চাইতে লিনাক্সে বেশি থাকি।

link ওপেন করার সময় সেটা Facebook বা যেখান থেকেই হোক ডাইরেক্ট ওপেন না করে, Link টা কপি করে Incognito mode বা যেই Browser এ সেইভ নাই কিছুই সেটা দিয়ে ওপেন করতে পারেন। অবশ্যই Laptop এর ক্যামেরার উপর ট্যাপ লাগিয়ে রাখবেন। 😛 আমারটা বহুদিন যাবত লাগানো আছে!

আপনি কিভাবে এসব Attack দিবেন?

(কিছু কিছু জিনিস নিজে থেকে শিখে নিতে হয়। ট্রাই করেন পারবেন ইন শা আল্লাহ, Browser exploit ব্যাবহার করবেন,Rat, doc exploit,image exploit etc সব ব্যাবহার করে সুন্দর ভাবে সাঝাবেন যাতে ভিক্টিম আপনার Scam টা বিলিভ করে। Detectable exploit গুলো ফ্রিতেই পাওয়া যায়, Undetectable Silent exploit গুলো অনেক সময় কিনতে হয়)
Creadit-  Charlie cres



ব্যাক্তিগত রেফারেল লিংকঃ

শেয়ার করুন
জে-আইটি - অনলাইন আয়ের সমাধান। জে-আইটি একটি উন্মোক্ত প্লাটফর্ম। এখানে আমরা অনলাইন আর্নিং, ও টেকনোলজী বিষয়ে বিভিন্ন আপডেট দিয়ে থাকি। আপনি এখান থেকে যেকোন টিউটরিয়াল দেখে শিখতে পারবেন।

রিপ্লাই করুন

আপনার মতামত দিন
এখানে আপনার নাম লিখুন