মাস্টার কার্ড কি? মাস্টার কার্ড খোলার নিয়ম (বিস্তারিত)

মাস্টার কার্ড এক ধরণের ডুয়েল কারেন্সি কার্ড। যার মাধ্যমে বিশ্বের যে, কোনো দেশ থেকে অন্য আরেকটি দেশে টাকা লেনদেন করতে পারবেন।

বর্তমান সময়ে এমন অনেক লোক আছে। যারা মাস্টার কার্ড কি? এবং মাস্টার কার্ড খোলার নিয়ম পর্যন্ত জানেন না।

তাই আমরা এই পোস্টের, মাধ্যমে আপনাকে জানাব। মাস্টার কার্ড কি? মাস্টার কার্ড খোলার নিয়ম সমূহ। আপনি যদি এ বিষয়ে সঠিক ধারণা নিতে চান, তাহলে আমাদের লেখা শেষ পর্যন্ত মনযোগ দিয়ে পড়ুন।

বর্তমানে সকলেই প্রযুক্তির উপর নির্ভরশীল। কোন না কোন ভাবে, আমাদের প্রযুক্তির ছত্রছায়ায় ঠাই নিতে হচ্ছে। আর এখন প্রযুক্তির ছোয়া এসেছে ব্যাংক গুলোতেও।

আমরা উক্ত প্রযুক্তির ছায়া ব্যাংকের মাধ্যমে দেখতে পাচ্ছি। এবং গ্রাহক এর কল্যাণ ও তাদের সঞ্চয়ের টাকা গুলো সঠিক ভাবে লেনদেন করার সুযোগ পাচ্ছে।

উক্ত প্রযুক্তির মাধ্যমে গ্রহকরা সঠিক ভাবে তাদের জমানো সঞ্চয়ের টাকা নিরাপত্তার সাথে উত্তোলন করতে পারছে। এবং নানা রকম সুবিধা ভোগ করছে। তার মধ্যে অন্যতম হলো- মাস্টার কার্ড।

মাস্টার কার্ড একটি আন্তর্জাতিক কার্ড, ডুয়েল কারেন্সি যুক্ত কার্ড। এর মাধ্যমে আপনি নিজের দেশ থেকে শুরু করে বিশ্বের যে, কোন দেশের সাথে টাকা লেনদেন করতে পারবেন।

উক্ত মাস্টার কার্ড দিয়ে আপনি যে, কোন ধরণের লেনদেন ঝামেলা মুক্ত করতে পারবেন। কিন্তু ক্রেডিট কার্ড বা ডেবিট কার্ডের সাথে মাস্টার কার্ডের বিশেষ এক ধরণের মিল আছে।

মাস্টার কার্ড কি? মাস্টার কার্ড খোলার নিয়ম (বিস্তারিত)
মাস্টার কার্ড কি? মাস্টার কার্ড খোলার নিয়ম (বিস্তারিত)

মাস্টার কার্ড গুলো দেখতে বর্তমান সময়ের যে, সকল ডেবিট কার্ড দেখা যায়। সেগুলোর মতোই হচ্ছে মাস্টার কার্ড।

অন্যান্য কার্ডের মতো মাস্টার কার্ডকে দেখা গেলেও, এখানে অনেক ভিন্নতা আছে। যেমন- মাস্টার কার্ড দিয়ে আপনি বিশ্বের যে, কোন জায়গায় লেনদেন করতে পারবেন। আর অন্যান্য কার্ড ব্যবহার করে সীমাবদ্ধতার মধ্যে লেনদেন করতে হবে। মানে সকল জায়গায় লেনদেন করতে পারবেন না।

মাস্টার কার্ড কি?

বর্তমানে বিশ্বের সবচেয়ে জনপ্রিয় কার্ড হলো- মাস্টার কার্ড। যার মাধ্যমে বিশ্বের যে, কোন দেশের টাকা লেনদেন করা যায়।

আমাদের বাংলাদেশে যে, সকল ডেবিট কার্ড গুলো ব্যবহার করা হয়। সেগুলো  শুধু নিজের দেশে মধ্যে লেনদেন করা যায়।

তবে ডেবিট কার্ড গুলো বাহিরের দেশ গুলোতে লেনদেন করতে পারবেন না। তাই মাস্টার কার্ড ইন্টারন্যাশনাল কার্ড ডুয়েল কারেন্সি কার্ড, যার মাধ্যমে নিজের দেশের পাশাপাশি বিশ্বের যে, কোন জায়গায় টাকা লেনদেন করার সুযোগ পাবেন।

আপনি যদি উক্ত লেখা অনুসরণ করেন। তাহলে আপনি মাস্টার কার্ডের ধারণা নিতে পারছেন। কারণ এই কার্ড হলো- আন্তর্জাতিক মানের একটি কার্ড। যাকে ডুয়েল কারেন্সি কার্ড বলা হয়।

আরো দেখুনঃ

মাস্টার কার্ডের সুবিধা কি ?

আপনি উক্ত আলোচনাতে জানতে পারলেন, মাস্টার কার্ড কি? এখন আপনাকে জানাব, মাস্টার কার্ডের সুবিধা সম্পর্কে।

বর্তমান সময়ে যারা, মাস্টার কার্ড ব্যবহারকরে তারা, ব্যাংক থেকে বিভিন্ন ধরণের সুবিধা ভোগকরতে পারে। কিন্তু এই সময়ের মধ্যে বসবাস করেও অনেকে জানে না মাস্টার কার্ড ব্যবহার করে কি কি সুবিধা অর্জন করা যায়।

আপনি মাস্টার কার্ড ব্যবহার করেন। তাহলে বিভিন্ন সুবিধা ভোগ করতে পারবেন। মাস্টার কার্ড ব্যবহার করার সব চেয়ে বড় সুবিধা হলো- এটি একটি আন্তর্জাতিক ডুয়েল কারেন্সি কার্ড।

এর মাধ্যমে আমরা নিজের দেশের পাশাপাশি বিশ্বের যে কোন দেশে টাকা লেনদেন করার সুযোগ পেয়ে থাকি।

উক্ত মাস্টার কার্ড দিয়ে বিশ্বের যে, কোন জায়গা থেকে টাকা আদান প্রদান করার মূল কারণ হলো এটি একটি ডুয়েল কারেন্সি কার্ড।

আপনি মাস্টার কার্ড ব্যবহার করে, এক দেশ থেকে অন্য দেশে টাকা পাঠিয়ে উত্তোলন করতে পারবনে কোন ঝামেলা ছাড়াই।

এছাড়া আপনি মাস্টার কার্ড ব্যবহার করে দেশে বা বিদেশে যে কোন জায়গার ই-কমার্স পণ্য ক্রয় করতে পারবেন। আপনি বাংলাদেশের যে কোন জায়গায় বসবাস করেন না কেন আপনি যদি বিদেশি কোন পণ্য কিনতে চান, তাহলে মাস্টার কার্ডের মাধ্যমে টাকা পে- করতে পারবেন।

উক্ত সুবিধা গুলো ছাড়াও আরো অনেক সুবিধা আছে। যে গুলো আপনি মাস্টার কার্ড তৈরি করার পরে বুঝতে পারবনে।

মাস্টার কার্ড খোলার নিয়ম 

আমরা প্রথমেই আপনাকে বলেছি, মাস্টার কার্ড একটি আন্তর্জাতিক ডুয়েল কারেন্সি কার্ড। যার মাধ্যমে আপনি পৃথিবীর সকল স্থানে টাকা লেনদেন করতে পারবেন।

আপনি যদি উক্ত সুবিধা ভোগ করতে চান? তাহলে আপনাকে অবশ্যই মাস্টার কার্ড একাউন্ট তৈরি করতে হবে। তবে তার আগে আপনাকে জানতে হবে মাস্টার কার্ড খোলার নিয়ম কি? কিভাবে মাস্টার কার্ড খোলতে হয়।

আপনি যদি মাস্টার কার্ড খোলতে চান? তাহলে আপনার প্রয়োজনীয় কিছু ডকুমেন্ট লাগবে। আপনি যে, ব্যাংকের মাধ্যমে মাস্টার কার্ড করবেন সেই ব্যাংকে ডকুমেন্ট গুলো জমা দিতে হবে।

তো চলুন জেনে নেওয়া যাক মাস্টার কার্ড খোলার জন্য কি কি ডকুমেন্ট দরকার-

আপনি যদি মাস্টার কার্ডের সুবিধা ভোগ করতে চান। তাহলে আপনাকে একটি ব্যাংক একাউন্ট খোলতে হবে।

কিন্তু একাউন্ট খোলার সময় অবশ্যই জেনে নিতে হবে, সেই ব্যাংকের মাধ্যমে মাস্টার কার্ড করার সুবিধা দেওয়া হয় কিনা।

যদি ব্যাংক কর্তৃক মাস্টার কার্ড খোলা যায় এই কথা বলে। তাহলে আপনার একাউন্ট খোলা জন্য কিছু দরকারী ডকুমেন্ট লাগবে। যেমন-

আরো দেখুনঃ

আপনার একটি জাতীয় পরিচয় পত্র এর ফটোকপি। আপনার যদি জাতীয় পরিচয় পত্র না থাকে তাহলে জন্ম নিবন্ধন বা ড্রাইভিং লাইসেন্স এর কাগজ জমা দিয়ে একাউন্ট তৈরি করে নিতে পারবেন।

এছাড়া একাউন্ট খোলার জন্য আপনার দুই কপি রঙিন ছবি জমা দিতে হবে। উক্ত ছবি অবশ্যই পাসপোর্ট সাইজের হতে হবে। এবং উক্ত ছবি’র পেছন সাইটে আপনার স্বাক্ষর থাকতে হবে।

এবং আপনার ব্যাংক একাউন্ট এর যে, নমিনি থাকবে, তার স্বাক্ষর প্রয়োজন হবে।

আপনি যদি উক্ত ডকুমেন্ট সংগ্রহ করে ব্যাংক একাউন্ট তৈরি করতে পারেন। তাহলে আপনি যে কোন সময় আপনার মাস্টার কার্ড করে নিতে পারবেন।

আপনি যখন ব্যাংক একাউন্ট খোলবেন। তার সাথে আপনি একাউন্ট এর বয়স ছয় মাস হতে হবে। আপনার ব্যাংক একাউন্ট এর বয়স যখন 6 মাস কম থাকবে তখন আপনি মাস্টার কার্ড খোলতে পারবেন না। তাই 6 মাস পরে আপনাকে মাস্টার কার্ড খোলার জন্য আবেদন করতে হবে।

এছাড়া মাস্টার কার্ড খোলার জন্য 6 মাস এর মধ্যে আপনার ব্যাংক একাউন্টে প্রতি মাসে ৫,০০০/- (পাঁচ হাজার) টাকা লেনদেন করতে হবে। এবং উক্ত টাকা প্রতি মাসের জন্য প্রযোজ্য হবে।

আপনি যখন ব্যাংক একাউন্টে টাকা লেনদেন করবেন তখন সেখানে কিছু টাকা রেখে দিবেন। আপনি যদি উক্ত কাজ গুলো 6 মাসের মধ্যে পুরণ করতে পারেন।

তাহলে আপনিও সঠিক ভাবে ব্যাংক কর্তৃপক্ষের সাথে যোগাযোগ করে মাস্টার কার্ডের আবেদন করতে পারবেন।

পরবর্তীতে ব্যাংক কর্তৃপক্ষ আপনার একাউন্ট যাচাই করে, যোগ্য মনে করে তাহলে আপনাকে মাস্টার কার্ড প্রদান করবে। আপনি মাস্টার কার্ড হাতে পাওয়ার পরে, বিশ্বের যে কোন দেশের সাথে টাকা আদান প্রদান করার সুযোগ পেয়ে যাবেন।

আরো পড়ুনঃ

শেষ কথাঃ

তো বন্ধুরা, আমাদের এই পোস্টে আপনাদের সাথে আলোচনা করা হলো- মাস্টার কার্ড কি? এবং মাস্টার কার্ড খোলার নিয়ম সম্পর্কে।

আপনি যদি উক্ত বিষয় সঠিক ভাবে অনুসরণ করে থাকেন। তাহলে আপনিও দ্রুত কোন ব্যাংক একাউন্ট তৈরি করে। সেখান থেকে মাস্টার কার্ড করে নিতে পারবেন।

ট্যাগঃ মাস্টার কার্ড কি? মাস্টার কার্ড খোলার নিয়ম (বিস্তারিত) মাস্টার কার্ড কি? মাস্টার কার্ড খোলার নিয়ম (বিস্তারিত) মাস্টার কার্ড কি? মাস্টার কার্ড খোলার নিয়ম (বিস্তারিত) মাস্টার কার্ড কি? মাস্টার কার্ড খোলার নিয়ম (বিস্তারিত)

মাস্টার কার্ড কি? মাস্টার কার্ড খোলার নিয়ম (বিস্তারিত) মাস্টার কার্ড কি? মাস্টার কার্ড খোলার নিয়ম (বিস্তারিত) মাস্টার কার্ড কি? মাস্টার কার্ড খোলার নিয়ম (বিস্তারিত)

আমাদের লেখা আপনার যদি ভালো লাগে তাহলে একটি কমেন্ট করে জানাবেন। এবং উক্ত আর্টিকেল বিষয়ে আপনার বন্ধদের জানাতে একটি শেয়ার করবেন। আমাদের সাইট থেকে আরো নতুন নতুন আর্টিকেল পড়তে নিয়মিত ভিজিট করুন, ধন্যবাদ।

আরও পড়ুন

Leave a Comment

Share via
Copy link
Powered by Social Snap