নতুন মৃত্যু নিবন্ধন অনলাইন আবেদন (প্রক্রিয়া জেনেনিন)

মৃত্যু নিবন্ধন আবেদন অনলাইন কিভাবে করব : আপনারা জন্ম নিবন্ধন সনদের মত নতুন মৃত্যু নিবন্ধন সনদ সহজেই করে নিতে পারবেন। আর এটি একটি গুরুত্বপূর্ণ ডকুমেন্ট।

আপনার পরিবারের কোনো সদস্য যদি মৃতবরণ করে, এবং তিনি যদি সরকারি খাতায় লিপিবদ্ধ থাকে। তবে দেখা যায় সে অনেক সময় তার তথ্য বিভিন্ন জায়গায় প্রদান করার প্রয়োজন হয়।

নতুন মৃত্যু নিবন্ধন অনলাইন আবেদন (প্রক্রিয়া জেনেনিন)
নতুন মৃত্যু নিবন্ধন অনলাইন আবেদন (প্রক্রিয়া জেনেনিন)

বর্তমান সময়ে, বস্তবাদের যুগে মানুষ ভবিষ্যতের কথা চিন্তা করা থাকে। এবং ভবিষ্যত চিন্তার জন্য লোকজন বিভিন্ন ব্যাংকের বিভিন্ন ধরনের অ্যাকাউন্ট খুলে থাকে।

এবং ভবিষ্যতে তহবিল গড়ে তোলার চেষ্টা করেন। তাছাড়া অনেক ক্ষেত্রে আছে। যারা ভবিষ্যতের কথা চিন্তা করে বিভিন্ন কাজ করে রাখেন।

পরিবারের সেই সদস্য এর অবর্তমানে সেই পরিবার থেকে যে ব্যক্তি উক্ত সম্পত্তির ওয়ারিশ থাকে। সেই সম্পত্তি পাওয়ার জন্য মৃত ব্যক্তির তথ্য প্রদান করার প্রয়োজন হয়।

এবং এক্ষেত্রে আপনি যে এলাকায় বসবাস করেন। সে এলাকার নিত্য নিবন্ধন সনদ স্থানীয় সরকার বিভাগের থেকে সংগ্রহ করার প্রয়োজন হয়।

কিন্তু আপনি যেখানে বসবাস করেন না কেন আপনার পরিবারের সদস্য মৃত্যুবরণ করলে। তার একটি মৃত নিবন্ধন সনদ আপনার নিকটস্থ স্থানীয় সরকার বিভাগ থেকে সংগ্রহ করতে হবে।

কিন্তু আপনাকে নিত্য নিমন্ত্রণ সংগ্রহ করতে হলে এটি ডিজিটাল পদ্ধতিতে, অনলাইন এর মাধ্যমে আবেদন করতে হবে।

এবং আবেদন পত্র জমা দিয়ে এটি আপনাদের ইউনিয়ন পরিষদ বা সিটি কর্পোরেশন থেকে সংগ্রহ করতে হবে।

মৃত্যু নিবন্ধন অনলাইন

অনলাইনের মাধ্যমে আপনারা যখন মৃত নিবন্ধন সনদ তৈরি করবেন। সে সময় অবশ্যই আপনাদেরকে বেশ কিছু তথ্য প্রদান করতে হবে। উক্ত তথ্যগুলো প্রদান করার ক্ষেত্রে আপনারা যারা মনে করেন।

যে, তথ্য গুলো আপনাদের সংগ্রহে নেই। তাহলে আমাদের ওয়েবসাইটে সার্চ করে আপনারা সরাসরি স্থানীয় বিভাগের সাথে যোগাযোগ করতে পারবেন।

তার কারণ মৃত নিবন্ধন সনদ পেতে চাইলে, জন্ম নিবন্ধন সনদ লাগবে এবং উক্ত জন্ম নিবন্ধন সনদ অবশ্যই ডিজিটালাইজড হতে হবে।

ডিজিটাল জন্ম নিবন্ধন সনদ না থাকলে আপনারা কোন পদ্ধতিতে এটি তৈরি করবেন এবং কি কি পদ্ধতি আপনাদেরকে অবলম্বন করতে হবে।

সেটি জেনে নেয়ার জন্য আপনারা সরাসরি স্থানীয় সরকার বিভাগের সাথে যোগাযোগ করলে। তারা আপনাকে এ বিষয়ে সঠিক দিকনির্দেশনা দেবে।

কিন্তু আপনার যদি সকল কাগজপত্র প্রস্তর থেকে থাকে। তবে আপনারা মৃত নিবন্ধন আবেদন অনলাইনে করতে পারবেন।

এবং আবেদন করে কিছুদিনের মধ্যে আপনার মৃত নিবন্ধন সংগ্রহ করে। জরুরী বা গুরুত্বপূর্ণ কাজ সম্পন্ন করে নিতে পারবেন।

নতুন মৃত্যু নিবন্ধন অনলাইন আবেদন

মৃত নিবন্ধন আবেদন অনলাইন করার জন্য আপনাকে যে ওয়েবসাইটে প্রবেশ করতে হবে সেটি আমরা এখানে আপনাকে দেখিয়ে দেব।

আপনারা নতুন মৃত্যু নিবন্ধন অনলাইন আবেদন করতে চাইলে এই bdris.gov.bd/dr/application ওয়েবসাইটে প্রবেশ করতে হবে।

উপরের যে লিংকটি দেখতে পাচ্ছেন এর মাধ্যমে প্রবেশ করার পাশাপাশি। আপনারা মৃত নিবন্ধন সনদ লিখলে আপনাদের সামনে সরাসরি অফিসিয়াল ওয়েবসাইটে চলে আসবে।

নতুন মৃত্যু নিবন্ধন অনলাইন আবেদনের প্রক্রিয়া

সেখানে আপনারা প্রবেশ করে, নতুন মৃত নিবন্ধনের জন্য যখন আবেদন করবেন। তখন ওয়েবসাইট এর নিয়ম অনুযায়ী আপনাকে জন্ম নিবন্ধন নাম্বার প্রদান করতে হবে।

জন্ম নিবন্ধন নাম্বার আপনারা যদি দিতে না পারেন। এছাড়া সেই নাম্বার যদি ওয়েবসাইটে খুজে পাওয়া না যায়। তবে আপনার এই মৃত নিবন্ধনের আবেদন করার জন্য আপনাকে ঝামেলায় পড়তে হবে।

তাই বারবার বলে রাখছে যে জন্ম নিবন্ধন সম্ভব বাধ্যতামূলক এবং এটি আপনাদেরকে তৈরি করতে হবে এবং যারা এই পোস্ট অনুসরণ করছেন।

তাদের প্রয়োজন না থাকলেও জন্ম নিবন্ধন এর প্রয়োজনীয় তথ্য প্রদান করে ডিজিটাল ভাবে তৈরি করে নিতে হবে।

কিন্তু কিছু কিছু ক্ষেত্রে আপনাদের জন্ম নিবন্ধন নাম্বার প্রদান করার পাশাপাশি জন্ম তারিখ অযুক্ত করার জন্য বলা হবে।

এখন আপনি আপনার জন্ম নিবন্ধন প্রদান করার পরে সার্চ করে সেই নাম খুঁজে পান এবং সে নাম যদি আপনাদের চাহিত তথ্য অনুযায়ী খুঁজে পাওয়া যায়।

তবে আপনাদেরকে সেটি নির্বাচন করতে হবে এবং কনফার্ম করে দিতে হবে।

তারপর আপনাদেরকে পরবর্তী পেজে নিয়ে যাওয়া হবে এবং পরবর্তী লেখা অপশনে ক্লিক করলেই সেখানে গিয়ে যার জন্য মৃত নিবন্ধন তৈরি করবেন। তার ঠিকানা সংক্রান্ত তথ্য প্রদান করতে হবে।

সেখানে সে ব্যক্তির-

  • দেশের নাম
  • বিভাগের নাম
  • জেলার নাম
  • অফিসের নাম ইত্যাদি

সকল তথ্যগুলো প্রদান করার পাশাপাশি মৃত ব্যক্তির যে সকল তথ্য পাওয়া যাবে। সেগুলো যথাযথভাবে প্রদান করার চেষ্টা করতে হবে।

প্রথমে আপনাদের বলে নেওয়া ভালো, জন্ম নিবন্ধন সনদ এবং মৃত নিবন্ধন সংশোধন করার এখন প্রক্রিয়াগুলো ঝামেলা পণ্য হয়ে যাওয়ার জন্য। আপনাদেরকে প্রতিটি তথ্য প্রথম থেকে সঠিকভাবে প্রদান করার জন্য বলা হয়েছে।

এবং এইজন্য প্রতিটি কাজ যদি আপনারা এই কাগজ গুলো দেখে করেন। তাহলে দেখা যাবে যে পরবর্তীতে অন্য কোন কাগজেও ভুল হওয়ার সম্ভাবনা থাকবে না।

তো আপনারা যখন পরবর্তী ঘরে চলে যাবেন তখন মৃত্যুর তারিখ উল্লেখ করতে হবে।

আপনারা পরবর্তী অপশন এ গিয়ে মৃত ব্যক্তির মৃত্যুর কারণ এর অপশন পেয়ে যাবেন। এবং সেখানে একাধিক অপশন দেওয়া রয়েছে। এবং যে কারণে একজন মানুষের মৃত্যু হয়ে থাকে সেই কারণগুলো আপনারা সেখান থেকে খুজে পাবেন।

তবে মারা গিয়েছে তা সঠিক অপশন সিলেক্ট করে, তথ্যটি প্রদান করবেন। তারপর মৃত ব্যক্তি যদি একজন মহিলা হয়ে থাকে। তবে তার স্বামীর নাম এবং মৃত ব্যক্তি যদি পড়ে শুয়ে থাকে।

তাহলে তার স্ত্রীর নাম উল্লেখ করা থাকতে হবে সে ক্ষেত্রে সে ব্যক্তির জন্ম নিবন্ধন নম্বর এবং জাতীয় পরিচয় পত্র এর নম্বর প্রদান করে দিতে হবে।

তারপরে, সেই ব্যক্তির নাম ইংরেজিতে এবং বাংলায় দুইভাবে লিখতে হবে। কিন্তু জন্ম নিবন্ধন ওয়েবসাইট এর একটি গুরুত্বপূর্ণ সুবিধা হচ্ছে, যে সেখানে প্রতিটি তথ্য বাংলাতে যা হয় জন্য যে কোন ব্যক্তি খুব সহজে তথ্যগুলো ইমপুট করতে পারেন।

তারপরে আপনাকে নিয়ম অনুযায়ী মৃত স্থানের বিবরণ দিতে হবে। মানে তিনি কোথায় মৃত্যুবরণ করেছেন। এ সকল তথ্য এর পাশে অপশন অনুযায়ী প্রদান করবেন এবং এক্ষেত্রে ডাকঘর বাংলায় এবং ইংরেজিতে লিখতে হবে।

জন্ম নিবন্ধন ফি পেমেন্ট পরিশোধ করার উপায়

এজন্য আপনার যদি মৃত্যুর থানের বিবরণ প্রদান করার সময় মৃত স্থান এবং তার বসবাসের স্থায়ী ঠিকানা একই জায়গায় হয়ে থাকে।

তবে নিচে যে ফাঁকা ঘরটি দেখতে পারবেন সেখানে টিক চিহ্ন প্রদান করার মাধ্যমে একই অপশন নির্বাচন করে দিবেন।

আর মৃত ব্যক্তির যদি স্থায়ী ঠিকানা এবং মৃত স্থান আলাদা হয়ে থাকে সেক্ষেত্রে আপনাকে আলাদা ভাবে অপশন নির্বাচন করতে হবে।

এরকমভাবে মৃত স্থানের বিবরণ প্রদান করার পরে আপনারা পরবর্তী অপশনে চলে যাবেন। এবং সেই ব্যক্তি এ সকল তথ্য গুলো প্রদান করেছেন। তার নাম দিতে হবে।

সাধারণত জন্ম নিবন্ধন তথ্য প্রদান করার সময় তথ্য ইনপুট করার কাজ আপনি নিজে করতে পারলেও যিনি মৃত্যুবরণ করেছেন। তার জন্য কেউ এই কাজটি করতে হয়।

তাই তথ্য প্রদানকারী যিনি তথ্য প্রদান করছেন তার ঘোষণা দিতে হবে যে এক্ষেত্রে তার জন্ম নিবন্ধন নম্বর এবং নাম প্রদান করার পাশাপাশি।

জাতীয় পরিচয় পত্রের নাম্বার এবং মোবাইল নাম্বার প্রদান করতে হবে। এ সকল কাজ যখন সম্পন্ন করা হবে। তখন আবেদনকারের ঠিকানা প্রদান করতে হবে।

এবং যে সকল তথ্য যেভাবে চাওয়া হবে। সে গুলো সঠিকভাবে দিয়ে, আপনারা আবেদনকারীর সাথে মৃত্যুবরণকারীর ব্যক্তির সম্পর্ক কি সেটি নির্বাচন করে দিতে হবে।

এজন্য সম্পর্ক যদি অন্যান্য হয়ে থাকে তবে অন্যান্য অপশন নির্বাচন করে দিবেন। আর আপনারা সর্বশেষ সাবমিট বাটনে ক্লিক করবেন।

শেষ কথাঃ

তো বন্ধুরা আপনারা যারা আপনার পরিবারের সদস্যদ যারা মৃতবরণ করেছে নতুন মৃত নিবন্ধন অনলাইন আবেদন করতে চান।

তারা উপরোক্ত তথ্যগুলো অনুসরণ করে সহজে জন্ম নিবন্ধনের অফিসিয়াল ওয়েবসাইট থেকে মৃত নিবন্ধন অনলাইন আবেদন করতে পারবেন।

তো বন্ধুরা শেষ পর্যন্ত আমাদের আর্টিকেলটি পড়ার পর আপনার কাছে কেমন লাগলো অবশ্যই কমেন্ট করে জানিয়ে দিবেন।

আর নতুন মৃত্যু নিবন্ধন অনলাইন আবেদন প্রক্রিয়াটি আপনার পরিচিত ব্যক্তিদের জানাতে নিচে দেওয়া যে কোনো সোশ্যাল মিডিয়াতে শেয়ার করে দিবেন।

আর আমাদের এই ওয়েবসাইট থেকে জন্ম নিবন্ধন এবং মৃত নিবন্ধন সম্পর্কে নতুন নতুন তথ্য পেতে, নিয়মিত ভিজিট করুন ধন্যবাদ।

Leave a Comment