ওয়েব হোস্টিং কি ? হোস্টিং কত প্রকার, দাম এবং কেনার নিয়ম

আপনি যদি একটি ব্লগ বা ওয়েবসাইট তৈরি করার কথা ভাবেন। তাহলে ওয়েব হোস্টিং এর বিষয়ে আপনার জেনে নেওয়া টা অনেক জরুরী।

কারণ মানুষের যেমন, বসবাস করতে একটি জায়গা প্রয়োজন হয়। ঠিক সেরকম ভাবে ব্লগ বা ওয়েবসাইট তৈরি করার জন্য একটি নির্দিষ্ট জায়গার প্রয়োজন হয়।

তাই অনলাইনে যে, কোন ব্লগ বা ওয়বসাইট চালু রাখার জন্য প্রথমে আপনাক একটি জায়গা কিনে নিতে হবে।

আর আপনার ওয়েবসাইট বা ব্লগ বানানোর জন্য যে, জায়গা কিনবেন তার নাম হলো- ওয়েব হোস্টিং।

আপনি যখন ওয়েবসাইট বা ব্লগের জন্য জায়গা বা হোস্টিং কিনবেন। তখন তাকে বলা হবে ব্লগ বা ওয়েব সাইট হোস্ট।

তাই আজ, আমি আপনাদের সাথে আলোচনা করব ওয়েব হোস্টিং কি?  হোস্টিং কত প্রকার, দাম এবং কেনার নিয়ম সম্পর্কে।

নিজের একটি ওয়েবসাইট থাকলে, সেটি পরিচালনা করা সবার পক্ষে কিন্তু সম্ভব না।

তার জন্য আপনার প্রোপার নলেজ থাকা অনেক জরুরী। একটি ওয়েবসাইট বা ব্লগ অনলাইনের দুনিয়াতে সফলতা পাওয়ার জন্য দুইটি জিসিন অনেক প্রয়োজন।

যেমন- ওয়েব হোস্টিং এবং ডোমেইন। উক্ত জিসিন গুলা ছাড়া, আপনি ওয়েবসাইট চালু করতে পারবেন না।

ডোমেইন কি? ডোমেইন কিভাবে কাজ করে এ বিষয়ে আমাদের এই আর্টিকেল আর্টিকেল পাবলিশ করা আছে। চাইলে সেই আর্টিকেল পড়ে বিস্তারিত জেনে নিতে পারবেন।

ওয়েব হোস্টিং কি ? হোস্টিং কত প্রকার, দাম এবং কেনার নিয়ম
ওয়েব হোস্টিং কি ? হোস্টিং কত প্রকার, দাম এবং কেনার নিয়ম

কারণ আজ আমরা আপনাকে জানাব ওয়েব  হোস্টিং সম্পর্কে। হোস্টিং সম্পর্কে বিস্তারিত ধারণা নিতে নিচে দেওয়া তথ্য গুলো মনযোগ দিয়ে পড়ুন।

ওয়েব হোস্টিং কি ? [what is web hosting]

আমরা আগেই বলেছি, ওয়েব হোস্টিং এমন একটি সেবা। যার মাধ্যমে আমাদের যে কোন ব্লগ বা ওয়েবসাইট অনলাইনের মাধ্যমে প্রকাশ করতে পারি।

আমরা যখন কোন হোস্টিং প্রোভাইডার থেকে হোস্টিং ক্রয় করি। তখন আমাদের ইন্টারনেট ওয়েব সার্ভার এ কিছু স্টোরেজ স্পেস বা জায়গা দেওয়া হয়।

উক্ত ওয়েব সার্ভার এমন একটি কম্পিউটার যা সকল সময় অনলাইনের সাথে যুক্ত থাকে।

এবং ওয়েব সার্ভার থেকে কিনে নেওয়া জায়গাতে যখন, আমাদের টেক্সট আর্টিকেল, ভিডিও, ফাইল, ইমেজ, মিডিয়া ইত্যাদি ব্লগ বা ওয়েবসাইট এর মাধ্যমে আপলোড করি তখন সেগুলো ওয়েব সার্ভারে গিয়ে জমা হয়।

ওয়েব সার্ভার সব সময় ইন্টারনেট এর সাথে জড়িত থাকার কারণে। আমাদের ওয়েবসাইট গুলোতে যে কেউ মোবাইল বা কম্পিউটার এর মাধ্যমে এক্সেস করতে পারেন।

তবে এর জন্য আগে আমাদের একটি ডোমেইন নাম কিনতে হবে। তারপরে ডোমেইন ওয়েব সার্ভার এর সাথে যোগ করতে হবে।

আপনার ওয়েব সার্ভার এর সাথে যোগ করা ডোমেইন নাম এর মাধ্যমে যে, কেউ।

ইন্টারনেটের সাথে জড়িত যে, কোন মোবাইল বা কম্পিউটার দিয়ে ওয়েব সার্ভারে থাকা, টেক্সট কনটেন্ট, ভিডিও, ইমেজ, মিডিয়া ইত্যাদি দেখতে পারবে। আর উক্ত মাধ্যম কেই ব্লগ বা ওয়েবসাইট বলা হয়।

আর আপনি একটি ব্লগ বা ওয়েবসাইটে যে জিনিস গুলো দেখতে পারবেন। যে গুলো ওয়েব সার্ভার এ আপলোড করা হয়েছে।

এখন উক্ত আলোচনা অনুসরণ করে, বুঝতে পারছেন যে, ওয়েব হোস্টিং কি? ওয়েব হোস্টিং এমন একটি জায়গা যা আপনার অবশ্যই কিনে নিয়ে নিজের ব্লগ বা ওয়েবসাইটের সকল কিছু সক্রিয় করে রাখতে পারবেন।

ওয়েব হোস্টিং কত প্রকার এবং কি কি ?

আপনি উক্ত আলোচনাতে যেহেতু ওয়েব হোস্টিং কি এই বিষয়ে জেনে নিয়েছেন। তাহলে আপনাকে এখন জানতে হবে, ওয়েব হোস্টিং কত প্রকার ও কি কি?

ওয়েবসাইট এর প্রয়োজনীয়তা এবং সিকিউরিটি, স্পিড এর উপর নির্ভর করে অনেক ধরণের ওয়েব হোস্টিং আমরা ব্যবহার করতে পারি।

আমরা জানি, ওয়েব হোস্টিং এর অনেক প্রকার রয়েছে। এদের মধ্যে যে গুলো সব চেয়ে বেশি ব্যবহার করা হয় ওয়েবসাইট হোস্ট করার জন্যে সেগুলো হলোঃ

  • Shared Hosting
  • VPS Hosting
  • Dedicated Server
  • Cloud Hosting

উক্ত ওয়েব হোস্টিং গুলো ব্যবহার করে লোকেরা বিভিন্ন প্রকার ওয়েবসাইট তৈরি করে। এখন আমরা আপনাকে এই সকল হোস্টিং এর বিষয়ে বিস্তারিত তথ্য দেওয়া চেষ্টা করব।

ওয়েবসাইটের জন্য কোন হোস্টিং ভালো হবে এবং দাম কত ?

উক্ত আলোচনাতে আপনি ওয়েব হোস্টিং কি এবং হোস্টিং কত প্রকার সম্পর্কে জানতে পারলেন।

এখন আমরা আপনাকে জানাব, ওয়েবসাইটের জন্য কোন হোস্টিং ভালো হবে। এটি সম্পূর্ণ ভাবে নির্ভর করে আপনার ওবেসাইট এর উপার।

কারণ আপনি দি ব্লগ তৈরি করতে চান। তাহলে আপনাকে প্রথমে শেয়ারিং হোস্টিং কিনতে হবে।

আপনি অনেক কম খরচে শেয়ার্ড হোস্টিং কিনতে পারবেন। এবং প্রথম অবস্থায় আপনার ব্লগে তেমন কোন ভিজিটর আসবে না।

যখন আপনার ব্লগে বেশি ভিজিটর আশা শুরু হবে তখন আপনি Cloud Hosting নিয়েও কাজ করতে পারবেন।

ক্লাউড হোস্টিং সব দিক থেকেই সক্ষম। এটি অনেক শক্তিশালী ওয়েব হোস্টিং। এই ওয়েব হোস্টিং আপনার ব্লগ বা ওয়েবসাইট তৈরি করে, অনেক ট্রাফিক লোড নেওয়া ক্ষমতা রাখে।

অনেক ওয়েব হোস্টিং আছে, যে গুলোতে অতিরিক্ত কিছু ভিজিটর প্রবেশ করলে ডাউন হওয়ার সম্ভাবনা থাকে।

কিন্তু আপনি যদি উক্ত ক্লাউড হোস্টিং ব্যবহার করবেন। তাহলে অধিক পরিমাণের ভিজিটর এক সাথে সাইটে প্রবেশ করলে কোন সমস্যা হবে না।

আপনি যদি উক্ত হোস্টিং কিনতে চান তাহলে namecheap কোম্পানি থেকে কিনে নিতে পারবেন।

আর আপনি যদি হোস্টিং কিনতে আগ্রহী থাকেন। তাহলে ভালো মানের হোস্টিং নিতে পারবেন নেমচিপ কোম্পানি থেকে।

এখানে হোস্টিং এর মান ভালো তবে একটু দাম বেশি। আপনি যদি এক বছরের জন্য হোস্টিং কিনতে চান তাহলে আপনার খরচ হতে পারে প্রায় এক বছরের জন্য 2,000/- থেকে 2,500/- টাকা পর্যন্ত।

আর আপনি যদি উক্ত নেমচিপ থেকে ডোমেইন এবং হোস্টিং এক সাথে কিনতে চান। তাহলে কিছু টাকা ছাড়ে দুইটি জিনিস নিতে পারবেন। অনেক অল্প দামে এক বছরের জন্য।

মোট কথা আপনি যদি ব্লগ বা ওয়েবসাইট তৈরি করার জন্য ডোমেইন এং ওয়েব হোস্টিং কিনতে চান তাহলে নেমচিপ থেকে কিনতে পারবেন।

আর আপনার ডোমেইন কেনার খরচ হতে পারে = 1,000/- টাকা আর ওয়েব হোস্টিং এর জন্য খরচ হতে পারে = 2,000/- টাকা। মোট 3,000/- হাজার টাকা খরচ করে আপনি একটি ওয়েবসাইট বা ব্লগ তৈরি করে নিতে পারবেন।

আরো পড়ুনঃ

শেষ কথাঃ

তো বন্ধুরা, আজ আমাদের এই পোস্ট থেকে জানতে পারলেন, ওয়েব হোস্টিং কি? হোস্টিং কত প্রকার, হোস্টিং এর দাম এবং হোস্টিং কেনার নিয়ম সম্পর্কে।

আপনি যদি উক্ত আলোচনা অনুসরণ করে থাকেন। তাহলে ওয়েব হোস্টিং সম্পর্কে বিস্তারিত জেনে নিতে পারছেন।

আমাদের দেওয়া আর্টিকেল আপনার কাছে কেমন লাগলো কমেন্ট করে জানাবেন। এবং আমাদের এই ওয়েবসাইটে ফ্রি ওয়েব হোস্টিং নেওয়ার বিষয়ে আর্টিকেল পাবলিশ করা আছে।

ট্যাগঃ ওয়েব হোস্টিং কি ? হোস্টিং কত প্রকার, দাম এবং কেনার নিয়ম ওয়েব হোস্টিং কি ? হোস্টিং কত প্রকার, দাম এবং কেনার নিয়ম ওয়েব হোস্টিং কি ? হোস্টিং কত প্রকার, দাম এবং কেনার নিয়ম

ওয়েব হোস্টিং কি ? হোস্টিং কত প্রকার, দাম এবং কেনার নিয়ম ওয়েব হোস্টিং কি ? হোস্টিং কত প্রকার, দাম এবং কেনার নিয়ম ওয়েব হোস্টিং কি ? হোস্টিং কত প্রকার, দাম এবং কেনার নিয়ম

আপনি চাইলে ফ্রি ওয়েব হোস্টিং ব্যবহার করেও একটি ওয়েবসাইট তৈরি করে নিয়ে কাজ শুরু করতে পারবেন।

আমাদের আর্টিকেল শেষ পর্যন্ত পড়ার জন্য আপনাকে ধন্যবাদ।

আরও পড়ুন

Leave a Comment

Share via
Copy link
Powered by Social Snap