হার্ডডিস্ক কি ? কম্পিউটার হার্ডডিস্ক কিভাবে কাজ করে ?

হার্ডপিস্ক কি : বর্তমান সময়ে আমরা সকল কাজ সম্পন্ন করি কম্পিউটার বা ল্যাপটপ এর সাহায্যে। আর ক্রমাগত ভাবে কম্পিউটার ব্যবহার এর চাহিদা দিন দিন বেড়েই যাচ্ছে।

হার্ডডিস্ক কি ? কম্পিউটার হার্ডডিস্ক কিভাবে কাজ করে ?
হার্ডডিস্ক কি ? কম্পিউটার হার্ডডিস্ক কিভাবে কাজ করে ?

আপনি যদি কম্পিউটার ব্যবহার করেন তাহলে আপনি অবশ্যই জানেন যে, একটি কম্পিউটার বিভিন্ন ধরণের হার্ডওয়্যার দিয়ে তৈরি করা হয়। আর উক্ত কম্পিউটারে যত ‍গুলো উপাদান আছে। তার মধ্যে অন্যতম একটি হার্ডওয়্যার হলো হার্ডডিস্ক। হার্ডডিস্ক ছাড়া একটি কম্পিউটার ডিভাইসকে কল্পনাই করা যায় না।

আপনি যখন কোন একটি কম্পিউটার ব্যবহার করবেন। সেই সময় কম্পিউটার এর বিভিন্ন ধরণের ডাটা জমা করে রাখার দরকার হয়। সেই ডাটা গুলো জমা করে রাখতে পারি জন্যই আমরা পরবর্তী সময় গুলোতে উক্ত ডাটা গুলো ব্যবহার করতে পারি। আর এই সকল কাজের পেছনে হার্ডডিস্ক এর অনেক গুরুত্ব রয়েছে।

আপনি যদি একজন কম্পিউটার ইউজার হয়ে থাকেন তাহলে হার্ডডিস্ক কি এই সম্পর্কে জেনে নেওয়াটা আপনার অনেক বেশি গুরুত্বপূর্ণ। কারণ আপনার দৈনন্দিন ব্যবহৃত কম্পিউটার ডাটা গুলো কোথায় জমা হয় এবং পরবর্তী সময়ে আপনি কিভাবে উক্ত ডাটা গুলো রিকভার করতে পারছেন। তাই আপনাকে এই বিষয়ে সঠিক ধারণা রাখতে হবে।

তো চলুন সময় নষ্ট না করে বিস্তারিত আলোচনায় ফিরে যাওয়া যাক।

আরও পড়ুনঃ

হার্ডডিস্ক কি? (What is Hard Disk)

আপনি যদি আমাদের দেওয়া পোস্ট মনযোগ দিয়ে পড়েন। তাহলে অবশ্যই হার্ডডিস্ক সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে পারবেন। কিন্তু সবার আগে আপনাকে হার্ডডিস্ক কি এই বিষয়ে জানতে হবে।

কারণ আপনি যে বিষয়ে বিস্তারিত জানবেন সেই বিষয়টি কি সেটি যদি না জানেন তাহলে পরবর্তী আলোচনা গুলো আপনার বুঝতে সমস্যা হবে।

বর্তমান সময়ে যারা কম্পিউটার ব্যবহার করি তাদের বিভিন্ন ধরণের ডাটা কম্পিউটারে জমা করে রাখার প্রয়োজন হয। আর উক্ত ডাটা গুলো কিন্তু অটোমেটিক ভাবে জমা হয় না।

মানে ডাটা গুলো জমা রাখার জন্য প্রয়োজন হয় একটি স্টোরেজ এর। উক্ত কম্পিউটারে যে, উপাদান কে স্টোরেজ হিসেবে ব্যবহার করা হয় তাকেই হার্ডডিস্ক বলা হয়।

হার্ডডিস্ক কাকে বলে?

উক্ত আলোচনাতে হার্ডডিস্ক কি অল্প আলোচনা করেছি। কিন্তু আপনি যদি না বুঝে থাকেন। তাহলে আপনাকে আরো একটি বেশি ধারণা দেওয়ার চেষ্টা করব যেমন হার্ডডিস্ক কাকে বলে।

আমরা যখণ বিংশ শতাব্দিতে পদার্পন করেছি ঠিক সেই সময় থেকে উন্নত বিশ্ব এর নতুন নতুন প্রযুক্তির স্বাদ গ্রহণ করে যাচ্ছি। আর সেই উন্নত প্রযুক্তির অন্যতম মাধ্যম হলো মোবাইল বা কম্পিউটার ডিভাইস গুলো।

আর আপনি যে আজ আমাদের এই পোস্ট টি পড়ছেন এটি কিন্তু আপনার যে কোন মোবাইল, কম্পিউটার বা ল্যাপটপ দিয়ে পড়ছেন। এখন ছোট একটা চিন্তা করে দেখুন যে, আমাদের হাতে থাকা স্মার্ট মোবাইল আছে এ গুলো বিভিন্ন ধরণের উপাদনের সমন্বয়ে তৈরি করা হয়।

যেমন- র‌্যাম, রোম, স্টোরেজ ইত্যাদি। কিন্তু অন্যান্য সকল উপাদানের মধ্যে স্টোরেজ হলো সবচেয়ে বেশি গুরুত্বপূর্ণ। উক্ত স্টোরেজ এর মাধ্যমে আপনার প্রয়োজনীয় সকল ডাটা গুলো জমা করে রাখতে পারবেন।

মোবাইল ফোনে যেমন আপনি কোন ডাটা জমা করে রাখার জন্য মেমোরি কার্ড ব্যবহার করেন ঠিক সেই ভাবে কোন একটি কম্পিউটারের ডাটা বা তথ্য গুলো জমা করে রাখার জন্য একটি হার্ডডিস্ক ব্যবহার করা হয়।

উক্ত হার্ডডিস্ক এর মা্যধমে আপনার প্রয়োজনীয় সকল ডেটা গুলো জমা করে রাখতে পারেন। এছাড়া পরবর্তী সময়ে আপনার প্রয়োজন মতো জমা করে রাখা ডাটা গুলো পুনরায় ব্যবহার করতে পারেন।

হার্ডডিস্ক এর কাজ কি?

উক্ত আলোচনাতে হার্ড ডিস্ক কি এবং হার্ডডিস্ক কাকে বলে এই বিষয়ে আলোচনা করেছি। আমি আশা করি আমাদের আলোচনা কে হার্ডডিস্ক সম্পর্কে সঠিক ধারণা গ্রহণ করতে পারছেন।

এখন এই বিষয় জানার পরে আপনার প্রশ্ন হতে পারে যে, হার্ডডিস্ক এর কাজ কি? তো চলুন এই বিষয়ে জেনে নেওয়া যাক।

আমরা আমাদের কম্পিউটার ডিভা্স গুলোতে যে সকল হার্ডডিস্ক ব্যবহার করি। সে গুলো মূলত কোন কাজে ব্যবহার করা হয়। একটি বিষয় চিন্তা করলে বুঝতৈ পারবেন যে, কোন কম্পিউটার এর অপারেটিং সিস্টেম থেকে শুরু করে সকল সফটওয়্যার পর্যন্ত নির্দিষ্ট পরিমাণের তথ্য জমা হয়।

আর উক্ত ডাটা গুলো জমা হয় জন্য আমরা সেই সফটওয়্যার গুলোকে স্মুথলি ব্যবহার করতে পারি কোন ঝামেলা ছাড়া।

তবে এই সকল ডাটা গুলো আপনি তখনই জমা রাখতে পারবেন। যখন কম্পিউটার এর সাথে এক বা একাধিক হার্ডডিস্ক যুক্ত করা থাকবে। তার কারণ হার্ডডিস্ক হচ্ছে এমন একটি স্টোরেজ যা আপনি পছন্দ মতো কোন ডাটা কে স্টোর করে রাখতে পারবেন।

আর আপনার জমা করা ডাটা গুলো নিজের দরকার অনুয়ায়ী ব্যবহার করতে পারবেন। আপনি চাইলে উক্ত ডাটা গুলো সুরক্ষিত রাখতে পারবেন। আবার যদি আপনি হার্ডডিস্ক এর জমা করা ডাটা গুলো ডিলিট করতে চান তাহলে এই সুযোগ সুবিধা গুলোও আপনি ভোগ করতে পারবেন।

হার্ডডিস্ক এর বৈশিষ্ট্য কি ?

হার্ডডিস্ক কি এবং হার্ডডিস্ক এর কাজ করি উক্ত আলোচনাতে জেনে নিয়েছেন। আর এই বিষয় জানার পরে আপনার আরো একটি বিষয় জেনে নেওয়া জরুরী সেটি হলো হার্ডডিস্ক এর বৈশিষ্ট কি।

উক্ত ইলেকট্রক্সি উপাদান গুলোর একটি বৈশিষ্ট্য থাকে। সেরকম ভাবে কোন কম্পিউটারে ব্যবহার করা হার্ডডিস্ক এর বিশষ কিছু বৈশিষ্ট্য রয়েছে। তবে সকল কম্পিউটার ব্যবহারকারী তাদের ডিভাইসে উক্ত হার্ডডিস্ক কে ব্যবহার করলেও এমন অনেক লোক আছে যারা এ গুরোর বৈশিষ্ট্য সম্পর্কে বিস্তারিত জানে না।

আমরা যেহেতু সকলেই কম্পিউটার বা ল্যাপটপ এ হার্ডডিস্ক ব্যবহার করা কিন্তু বাধ্যতামূলক। তার জন্য অবশ্যই আপনাকে হার্ডডিস্ক এর বৈশিষ্ট্য গুলো জানতে হবে।

প্রথমেই বলে রাখি কম্পিউটারের ভেতরে থাকা অন্যান্য উপাদান গুলোর মধ্যে হার্ডডিস্ক অনেক সুরক্ষিত। যার ফলে আমাদের কম্পিউটারের ভেতরে থাকা হার্ডডিস্ক গুলো কোন ভাবেই নষ্ট হয় না এর সম্ভাবনা অনেক কম।

একেকটি হার্ডডিস্কের ধরণ ক্ষমতা একেক ধরণের হয়। আপনি যত বেশি স্টোরেজ এর হার্ডডিস্ক ব্যবহার করবেন তার ধারণ ক্ষমতাও অনেক বেশি থাকবে। কারণ এ গুলোতে অনেক পরিমাণের ডাটা জমা করে রাখা যায়।

প্রতিটি হার্ডডিস্ক এর বিশেষ একটি বৈশিষ্ট্য রয়েছে। সেটি হলো হার্ডডিস্ক গুলো দ্রততার সাথে যে কোন প্রকার ডাটা গুলো জমা করে রাখতে পারে। দরকার অনুযায়ী পরবর্তী সময় গুলোতে আবার সেই ডাটা গুলোকে স্থানান্তর করা সম্ভব হয়।

একটি কম্পিউটার ডিভাইস এর বিভিন্ন উপাদান গুলো শূক্ষ্ম হলেও হার্ডডিস্ক কিন্তু অনেক বেশি শক্ত ও মজবুত হয়। আমরা ব্যবহারিক সুবিধার জন্য যে সকল হার্ডডিস্ক ব্যবহার করি সেগুলো মূলত কম্পিউটারের ভেতরে সেটআপ করা থাকে।

আর একটি হার্ডডিস্কে জমা করা সকল প্রকার তথ্য/ডাটা গুলো দীর্ঘদিনের জন্য জমা করে রাখা যায়। আর এখানে তথ্য গুলো জমা রাখার পরে কোন ভাবেই নষ্ট হয় না।

হার্ডডিস্ক কত প্রকার ও কি কি?

যুগ পরিবর্তন এর সাথে সাথে অনেক কিছু পরিবর্তন হয়েছে। ঠিক সেরকম ভাবে হার্ডডিস্ক এর মাঝেও অনেক পরিবর্তন এসেছে। আমরা জানি হার্ডডিস্ক এর ইতিহাস অনেক পুরোনো তবে বর্তমান সময়ে হার্ডডিস্ক কে মূলত চার ভাবে ভাগ করা যায় যেমন-

  1. Pata Hard Disk
  2. Sata Hard Disk
  3. Scsi Hard Disk
  4. Ssd Hard Disk

আরও পড়ুনঃ

আপনি উক্ত তালিকাতে চে চারটি ভাগ দেখতে পারছেন। উক্ত কোয়ালিটির হার্ডডিস্ক গুলো আপনার কম্পিউটার ও ল্যাপটপ ‍গুলোতে ব্যবহার করতে পারবেন।

হার্ডডিস্ক কিভাবে কাজ করে?

আপনারা হয়তো জানেন যে, কম্পিউটারের মধ্যে থাকা প্রোগ্রাম গুলো বাইনারি কোড ছাড়া কোন কাজ করতে পারে না। আর সেই জন্য নির্দেশনা অনুযায়ী কাজ করার জন্যে আপনাকে অবশ্যই 0-1 এর বাইনারি কোড দিযে আপনার নির্দেশনা গুলো বুঝিয়ে দিতে হবে।

এখন প্রশ্ন হলো উক্ত হার্ডডিস্ক গুলো আসলে কিভাবে ডাটা গুলো সংরক্ষণ করে রাখে। আর কেনই বা এই গুলোর মাধ্যমে আমরা সেই সংরক্ষিত থাকা ডাটা গুলো কে নিজের সুবিধা মতো ব্যবহার করতে পারি। তো চলুন সময় নষ্ট না করে বিস্তারিত জেনে নেওয়া যাক।

একটি হার্ডডিস্ক কোন প্রকার বিদ্যুৎ সংযোগ ছাড়াই আমাদের ডাটা গুলো সংরক্ষণ করতে পারে। তার কারণ টি মূলত চৌম্বক শক্তির মাধ্যমে ডাটা সেভ করার কাজ করে থাকে। এই চৌম্বক এর ক্ষেত্রের বাম পাশের অংশ যদি 0 হয় তাহলে সেই চৌম্বক ক্ষেত্র এর ডানপাশের অংশ 1 হবে।

আর হার্ডডিস্ক এর মাধ্যে যখন কোন ডাটা সংরক্ষণ করা প্রয়োজন হয় তখন শুরুতেই বাইনারি কোড 0-1 কে চৌম্বক ক্ষেত্র এর যে দিকে রয়েছে সেটি পরিবর্তন করার জন্য বিদ্যুৎ প্রবাহ করা হয়।

এর পরে Elector Magnetic এর সাহায্যে কোড গুলোর দিক পরিবর্তন করার পরে ডিস্কের মধ্যে পাঠানো হয়। আর এরকম ভাবে কয়েক সেকেন্ড এর মধ্যে আমাদের প্রয়োজনীয় ডাটা গুলো হার্ডডিস্কে সংরক্ষিত হয়ে থাকে।

আরও পড়ুনঃ

শেষ কথাঃ

তো বন্ধুরা, আজ আমাদের এই পোস্টে আপনাকে জানানো হলো হার্ডডিস্ক কি? কম্পিউটার হার্ডডিস্ক কিভাবে কাজ করে। আপনি যদি উক্ত আলোচনা অনুসরণ করে থাকেন। তাহলে আপনি সহজেই বুঝে গেছেন।

আপনি যদি উক্ত আলোচনা পড়ার পরে ভালো লাগে তাহলে একটি কমেন্ট করে জানাবেন। আর এই বিষয়ে আপনার বন্ধুদের জানাতে একটি শেয়ার করবেন।

এছাড়া এই ওয়েবসাইট থেকে নিয়মিত আর্টিকেল পড়তে চাইলে ভিজিট করুন ধন্যবাদ।

আরও পড়ুন

Leave a Comment

Share via
Copy link
Powered by Social Snap