ওয়েবসাইট তৈরি করে আয় করার উপায় 2021 [Secret টিপস]

ওয়েবসাইট তৈরি করে আয় অনলাইনে আয়: বর্তমানে অনলাইন থেকে আয় করা খুবই সবচেয়ে কি ব্যাপার। অনেকেই মনে করে থাকেন অনলাইন থেকে আয় করা খুবই কঠিন কাজ। আর এই ধারণাটা হওয়া মোটেই অস্বাভাবিক নয়। কেননা বর্তমানে আমাদের দেশে খুব কম সংখ্যাক লোক অনলাইনে আয় করে থাকে। কিন্তু আপনি চাইলেই একটি ওয়েবসাইট তৈরি করে আয় করতে পারেন অনলাইনে তাও আবার ঘরে বসে।

ওয়েবসাইট তৈরি করে ঘরে বসে অনলাইনে কিভাবে আয় করবেন, আজকে আমি আলোচনা করব এই বিষয়টি। ওয়েবসাইট তৈরি করে আয় করার বিষয়টি স্বচ্ছ ধারণা পেতে অবশ্যই আর্টিকেলটির শেষ পর্যন্ত পড়ুন।

কেননা এই আর্টিকেলের প্রতিটি অংশই গুরুত্বপূর্ণ।

ওয়েবসাইট তৈরি করে অনলাইনে আয়ের উপায়
ওয়েবসাইট তৈরি করে অনলাইনে আয়ের উপায়

তো চলুন জেনে নেয়া যাক কিভাবে ওয়েবসাইট তৈরি করে আয় করা যায়। সেজন্য আমাদের প্রথমে জানতে হবে ওয়েবসাইট কি? এটা কিভাবে কাজ করে?

ওয়েব সাইট কি

বর্তমানে আমরা কোন তথ্য সংগ্রহ করার জন্য অনলাইনে সার্চ করে থাকি। কোন একটি বিষয় লিখে যখন আমরা গুগলে সার্চ করি তখন আমাদের সেই টপিক অনুযায়ী নিচে হাজার হাজার রেজাল্ট চলে আসে। রেজাল্টে যে সমস্ত পেজগুলোর আসে তার প্রত্যেকটি  এক এক টি ওয়েবসাইট।

মোটকথা, ওয়েবসাইট হল অনলাইন জগতে তথ্যভান্ডার। আপনি যদি অনলাইনে কোন তথ্য আপলোড করতে চান তাহলে অবশ্যই আপনার প্রয়োজন একটি ওয়েবসাইট।

ওয়েবসাইট বিভিন্ন ধরনের হয়ে থাকে। যেমন, ব্যবসায়িক ওয়েবসাইট, প্রাতিষ্ঠানিক ওয়েবসাইট, কোন সংস্থার ওয়েবসাইট, সামাজিক যোগাযোগ ওয়েবসাইট, এবং ব্লগ।

ওয়েবসাইট সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে এখানে দেখুন- ওয়েবসাইট কি, কিভাবে কাজ করে, কিভাবে একটি ওয়েবসাইট তৈরি করা যায় বিস্তারিত।

অনলাইনে আয় করতে হলে কেমন ওয়েব সাইট প্রয়োজন

এখন কথা হলো ওয়েবসাইট তো অনেক রকমের আমি যদি অনলাইনে আয় করতে চাই তাহলে কি ধরনের ওয়েবসাইট তৈরি করব। হ্যাঁ বন্ধুরা অনলাইনে আয় করতে হলে অবশ্যই আপনাকে ব্লগ ক্যাটাগরির ওয়েব সাইট তৈরি করতে হবে।

ব্লগ ওয়েবসাইট হল যে ওয়েবসাইটটি প্রতিনিয়ত আপডেট হয় অর্থাৎ প্রতিদিন নতুন নতুন ফিচার যুক্ত হয় এবং ব্যাকডেটেড যে নিউজ গুলো রয়েছে সেগুলো বাদ দেওয়া হয়। এ ধরনের ওয়েবসাইট গুলি হল ব্লগ ওয়েবসাইট। এই ওয়েবসাইট গুলোতে প্রতিনিয়ত কাজ করতে হয়।

ওয়েব সাইট তৈরি করতে কি কি লাগে

আমি যদি ওয়েবসাইটে আয় করতে চাই তাহলে একটি ওয়েবসাইট বানানোর জন্য কি কি জিনিসের প্রয়োজন। একটি ওয়েবসাইট বানাতে বেশি কিছু জিনিসের প্রয়োজন হয় না। একটি ডোমেইন এবং হোস্টিং হলেই একটি ওয়েবসাইট তৈরি করা সম্ভব।

আরও পড়ুনঃ কিভাবে ফ্রিতে একটি ওয়েব সাইট তৈরি করবেন।

প্রথমে আপনাকে একটি হোস্টিং কিনতে হবে এবং একটি ডোমেইন রেজিস্ট্রেশন করে তারপর ওয়েবসাইট বানাতে হবে।

আপনার যদি একটি ডোমেইন এবং হোস্টিং কিনে থাকে তাহলে আপনি খুব সহজেই সেখানে ওয়ার্ডপ্রেস অথবা অন্যকোন সিএমএস ব্যবহার করে ওয়েবসাইট তৈরি করতে পারবেন মুহূর্তেই।

এখানে বেশ কিছু বিষয়ে লক্ষ্য রাখতে হবে:

ওয়েব সাইট তৈরি করতে কত টাকা খরচ হয়

উপরের রিসার্চগুলো থেকে আমরা জানতে পারলাম কিভাবে একটি ওয়েবসাইট বানাবো বা ওয়েবসাইটের হোস্টিং ডোমেইন সম্পর্কে বিস্তারিত। এখন কথা হচ্ছে একটি ওয়েবসাইট বানাতে কত টাকা খরচ হবে?

একটি ওয়েবসাইট বানাতে হলে প্রথমে আপনাকে একটি ডোমেইন রেজিস্ট্রেশন করতে হবে এর জন্য আপনার- 500 টাকা থেকে শুরু করে 1200 টাকা পর্যন্ত খরচ হতে পারে।

এবং ভালো মানের ওয়েব হোস্টিং কেনার জন্য 1000 টাকা থেকে শুরু করে 3000 টাকা পর্যন্ত লাগতে পারে। তবে প্রথম অবস্থায় এর চেয়ে কম খরচে আপনি হোস্টিং নিয়ে ওয়েবসাইট তৈরি করতে পারবেন। পরবর্তীতে যখন আপনার ওয়েবসাইটে ভিজিটর পরিমাণ বাড়তে থাকবে তখন আপনার হোস্টিং এর চাহিদাও ভালো মানের প্রয়োজন হবে।

আপনি চাইলে যেকোন সময় আপনার ওয়েবসাইটের হোস্টিং পরিবর্তন করে নিতে পারবেন আপনার প্রয়োজন অনুসারে।

এবং আপনি চাইলে যেকোন একটি সিএমএস (ওয়ার্ডপ্রেস, জুমলা, ব্লগার, অথবা কাস্টম সিএমএস) ব্যবহার করে।

আপনি কিভাবে একটি ওয়েবসাইট তৈরি করবেন এবং পরিপূর্ণভাবে ব্লগিং করবেন এ সম্পর্কে বিস্তারিত আরও জানতে আমাদের এই আর্টিকেলটি পড়তে পারেন- বাংলায় পূর্ণাঙ্গ ব্লগ টিউটোরিয়াল।

কীভাবে ফ্রিতে ওয়েব সাইট তৈরি করবেন।

এখন প্রশ্ন হল ফ্রিতে কি ওয়েবসাইট তৈরি করা যায়? হ্যাঁ বন্ধুরা চাইলে আপনি ফ্রীতেও একটি ওয়েবসাইট তৈরি করতে পারবেন। ফ্রিতে ওয়েবসাইট তৈরি করতে হলে বেশ কিছু প্ল্যাটফর্ম রয়েছে তার মধ্যে সবচেয়ে ভালো যে প্ল্যাটফর্ম সেটি হলো গুগলের blogger.com। এটি গুগলের প্রোডাক্ট, এখানে ফ্রিতে 15 জিবি ওয়েব হোস্টিং রয়েছে। একটি ওয়েবসাইটের জন্য 15 জিবি হোস্টিং যথেষ্ট।

তবে হ্যাঁ এখানে, আপনি যদি ডোমেইন ফ্রী ব্যবহার করতে চান সে ক্ষেত্রে আপনাকে blogspot.com এর একটি সাব ডোমেইন ব্যবহার করতে হবে।

ডোমেইনটি দেখতে এরকম হবে- (yoursite.blogspot.com)। এবং আপনি চাইলে এখানে একটি কাস্টম ডোমেইন যুক্ত ঘরেও ওয়েবসাইট বানিয়ে নিতে পারেন। সেজন্য আপনাকে একটি ডোমেইন কেনার জন্য যে পরিমাণ টাকা খরচ করতে হয় সে টাকা খরচ করতে হবে।

আপনি যদি ফ্রিতে একটি ওয়েবসাইট তৈরি করতে চান তাহলে আমাদের এই টিউটোরিয়ালটি দেখতে পারেন- কিভাবে ফ্রিতে একটি ওয়েবসাইট তৈরি করা যায় বিস্তারিত টিউটরিয়াল

আপনি যদি নিজে নিজে ওয়েবসাইট তৈরী না করতে পারেন সেক্ষেত্রে আপনি চাইলে কোন এক্সপার্ট ব্যক্তিকে দিয়ে ওয়েবসাইট তৈরি করে নিতে পারেন। তবে সেক্ষেত্রে আপনাকে খরচ করে ওয়েবসাইট বানিয়ে নিতে হবে।

একটু চেষ্টা করলে নিজে নিজেই ওয়েবসাইট তৈরি করা সম্ভব।

ওয়েব সাইট থেকে আয় করতে চাইলে কি কি লাগবে

ওয়েবসাইট সম্পর্কে মোটামুটি ভালো ধারনা হয়ে গেছে । এখন কথা হল আমি যদি ওয়েবসাইট থেকে ইনকাম করতে চাই ওয়েবসাইটে কি কি জিনিসের প্রয়োজন রয়েছে।

প্রথমেই আপনার যে জিনিসটি প্রয়োজন হবে সেটি হলো আপনার অবশ্যই একটি কম্পিউটার অথবা ভালোমানের স্মার্টফোন থাকতে হবে। এবং সাথে ইন্টারনেট সংযোগ থাকতে হবে। কেননা একটি ওয়েবসাইট তৈরি এবং পরিচালনায় সমস্ত কাজেই ইন্টারনেটের মাধ্যমে হয়ে থাকে।

ভালো মানের কন্টেন্ট

অতঃপর যে বিষয়টি দরকার সেটি হচ্ছে আপনার ওয়েবসাইটে ভালোমানের আর্টিকেল/প্রকাশ করতে হবে। আপনি যখন প্রতিনিয়ত ভালো মানের তথ্যবহুল কন্টাক্ট তথা আর্টিকেল আপনার ওয়েবসাইটে প্রকাশ করবেন তখন বিভিন্ন জায়গা থেকে আপনার ওয়েবসাইটে ভিজিটর তথ্য সংগ্রহ করতে আসবে।

মনে রাখবেন আপনার ওয়েবসাইটের যত ভাল আর্টিকেল থাকবে আপনার ওয়েবসাইটে তত বেশি ভিজিটর আসবে। আর যত বেশি ভিজিটর আপনার ওয়েবসাইট ভিজিট করবে আপনার ইনকাম তত বাড়বে।

ওয়েবসাইটে আর্টিকেল প্রকাশ করার জন্য কখনো অন্য ওয়েবসাইটে আর্টিকেল কপি করার চিন্তা কখনোই করবেন না। এতে আপনারই ক্ষতি হবে।

ভালো মানের ইমেজ

আর্টিকেল এর ফাঁকে ফাঁকে প্রয়োজন অনুসারে আপনাকে ইমেজ ব্যবহার করতে হবে। ভালো মানের ইমেজ বলতে আমি বোঝাতে চেয়েছি ইমেজটি অবশ্যই ইউনিক তথা এর পূর্বে যাতে কোথাও ব্যবহার না হয়ে থাকে এমন ইমেজ ব্যবহার করার চেষ্টা করুন।

আপনি বিভিন্ন ওয়েবসাইট থেকে ফ্রিতেই ভালো মানের ইমেজ সংগ্রহ করতে পারবেন। অথবা ফটোশপ বা অন্য ইমেজ এডিটর সফটওয়্যার দিয়ে তৈরি করে নিতে পারবেন।

ওয়েব সাইটে ভিজিটর আনতে হবে

ভিজিটর হচ্ছে একটি ওয়েবসাইটের প্রাণ। একটি ওয়েবসাইটে যদি এ ভিজিটর না থাকে তাহলে সে ওয়েবসাইট থাকা না থাকা সমান কথা। তাই আপনি চাইলে বেশ কিছু মাধ্যম অবলম্বন করে ওয়েবসাইটে ভিজিটর আনতে পারেন খুব সহজেই।

অথবা কিভাবে ব্লগে ভিজিটর আনবেন সে বিষয়ে এসইও করতে পারেন।

আরো পড়ুন- নতুন ওয়েবসাইটে কিভাবে ভিজিটর আনবেন।

টার্গেটেড ক্যাটাগরি নির্বাচন করতে হবে

ওয়েবসাইট বানানোর পূর্বে অবশ্যই আপনাকে খেয়াল রাখতে হবে আপনি কি বিষয়ে ওয়েবসাইট তৈরি করবেন। আমার পরামর্শ হলো আপনি যদি ওয়েবসাইট তৈরি করেন তাহলে অবশ্যই আপনি যে বিষয়টি সম্পর্কে ভাল জানেন বা জানার আগ্রহ রয়েছে সে বিষয়ে ওয়েবসাইট তৈরি করুন।

আপনি যে বিষয়টি সম্পর্কে জানেন না বা কোন ধারণাই নেই সে বিষয়ে ওয়েবসাইট তৈরি করবেন না। এরকম পরিস্থিতিতে আপনি কখনই ভাল মানের কনটেন্ট ওয়েবসাইটে প্রকাশ করতে পারবেন না।

ওয়েবসাইট তৈরি করার জন্য জনপ্রিয় কিছু ক্যাটাগরি হলো-

  • শিক্ষা এবং চাকুরী
  • স্বাস্থ্য এবং ফিটনেস
  • ক্যারিয়ার এবং পরামর্শ
  • প্রশ্ন উত্তর ওয়েবসাইট
  • কি কেন কিভাবে ওয়েবসাইট
  • ডিজিটাল মার্কেটিং ওয়েবসাইট
  • অনলাইন ইনকাম ওয়েবসাইট

দৃঢ় প্রচেষ্টা

ওয়েবসাইট বানিয়ে আয় করার জন্য সবচেয়ে বেশি প্রয়োজন যেটি সেটি হল দৃঢ় প্রচেষ্টা। আপনি শুধুমাত্র একটি ওয়েবসাইট বানালেই ওয়েব সাইট থেকে আয় করতে পারবেন না একে ধীরে ধীরে এগিয়ে নিয়ে যেতে হবে। আপনার ওয়েবসাইটটি যত পপুলার হবে আপনার ওয়েবসাইট থেকে ইনকাম তত বাড়তে থাকবে।

একটি ওয়েব সাইট থেকে কিভাবে আয় করবেন

এতক্ষণ জানলাম ওয়েবসাইট সম্পর্কে খুঁটিনাটি যাবতীয় তথ্য। এখন চলে এসেছি আসল অংশে অর্থাৎ কিভাবে একটি ওয়েবসাইট থেকে টাকা ইনকাম করা যায়।

আমি এখানে জনপ্রিয় কিছু মাধ্যম আলোচনা করছি যার মাধ্যমে খুব সহজেই একটি ওয়েব সাইট থেকে আয় করতে পারবেন।

বিজ্ঞাপন থেকে আয়

ওয়েব সাইট থেকে আয় করতে হলে প্রথমেই যে বিষয়টি চলে আসে সেটি হল বিজ্ঞাপনের মাধ্যমে ইনকাম। ওয়েবসাইটের জন্য সবচেয়ে জনপ্রিয় এবং সবচেয়ে বেশি ইনকাম করা সম্ভব হল গুগল এডসেন্স এর মাধ্যমে। গুগল এডসেন্স হলো গুগলের একটি বিজ্ঞাপন নেটওয়ার্ক। যদি আপনার একটি ভালো মানের ওয়েব সাইট থাকে তাহলে গুগল এডসেন্সের মাধ্যমে সে ওয়েবসাইট থেকে লক্ষ লক্ষ টাকা ইনকাম করতে পারবেন।

কিভাবে গুগল এডসেন্স থেকে টাকা আয় করা যায় এ ব্যাপারে আমাদের এই আর্টিকেলটি দেখতে পারেন- কিভাবে গুগল এডসেন্স থেকে আয় করবেন AটুZ গাইড।

এফিলিয়েট মার্কেটি করে আয়

ওয়েবসাইট তৈরি করে অনলাইনে আয়ের একটি জনপ্রিয় মাধ্যম হচ্ছে এফিলিয়েট মার্কেটিং। আপনার যদি ভাল মানের একটি ওয়েবসাইট থাকে এবং সেটিতে ভালো ভিজিটর আসে তাহলে আপনি চাইলেই যে কোন এফিলিয়েট লিংক বসিয়ে প্রোডাক্ট বিক্রি করে ইনকাম করতে পারেন।

আপনি যদি এফিলিয়েট মার্কেটিং সম্পর্কে না জানেন তাহলে এখানে দেখতে পারেন- এফিলিয়েট মার্কেটিং কি? কিভাবে এফিলিয়েট মার্কেটিং শুরু করবেন? বিস্তারিত।

নিজের প্রোডাক্ট বিক্রয় করে আয়

আপনি চাইলে আপনার ব্যাক্তিগত কোন প্রোডাক্ট ওয়েবসাইটের মাধ্যমে বিক্রয় করতে পারবেন। ওয়েবসাইটের মাধ্যমে আয় করার জনপ্রিয় এই মাধ্যমটি ও বর্তমানে অনেক কার্যকরী। সেক্ষেত্রে আপনার বিক্রয়ের জন্য নিজস্ব প্রোডাক্ট থাকতে হবে এবং ডেলিভারি সিস্টেম থাকতে হবে।

এই পদ্ধতি তাকেই কমার্স ব্যবসা ও বলা হয়। দেখতে পারেন- কিভাবে ই-কমার্স ব্যবসা শুরু করবেন এবং সফল হবেন

ইমেইল লিষ্ট তৈরি করে আয়

আপনার ওয়েবসাইটের যখন প্রতিনিয়ত ভিজিটর আসতে থাকবে তখন আপনি চাইলে একটি ইমেইল সংগ্রহের লিংক বসিয়ে দিয়ে ভিজিটরদের ইমেইল সংগ্রহ করতে পারেন। এবং এই ইমেইল লিস্ট গুলো বিভিন্ন মার্কেটপ্লেসে বিক্রি করুন খুব সহজেই ঘরে বসে আয় করতে পারবেন।

এ ছাড়াও আরও বেশ কিছু মাধ্যম রয়েছে যেগুলো অবলম্বন করে ঘরে বসে ওয়েবসাইট তৈরি করে আয় করা সম্ভব।

সবশেষে আমাদের পরামর্শ:

আপনি যদি অনলাইনে ইনকাম করতে চান এবং ইনকাম করার জন্য আগ্রহী বা প্রস্তুত হয়ে থাকেন তাহলে একটি ওয়েবসাইট তৈরি করে অনলাইনে ইনকাম শুরু করে দিতে পারেন।

একটি ওয়েবসাইট থেকে ইনকাম একবার শুরু হলে আজীবন ইনকাম করতে পারবেন অর্থাৎ একবার কাজ করে আজীবন ইনকাম করার একটি পদ্ধতি হচ্ছে ব্লগিং ওয়েবসাইট থেকে ইনকাম।

যদি আমাদের এই লেখাটি আপনার কাছে ভালো লাগে তাহলে অবশ্যই বন্ধুদের সাথে শেয়ার করবেন। আপনার যদি কোন অভিমত বা পরামর্শ থাকে তাহলে অবশ্যই কমেন্ট করে জানাবেন।

আরও পড়ুন

1 thought on “ওয়েবসাইট তৈরি করে আয় করার উপায় 2021 [Secret টিপস]”

  1. আপনার লেখাটি অনেক সুন্দর হয়েছে, নতুনদের খুপ উপকার হবে লেখাটি পড়ে।ওয়েবসাইটে গুগল এডসেন্স এপ্রুভ করে টাকা আয় করতো।

    Reply

Leave a Comment

Share via
Copy link
Powered by Social Snap