গুল এডসেন্স হল ব্লগারদের পছন্দের নাম্বার ওয়ান এড নেটওয়ার্ক। বর্তমানে যারা ব্লগিং পেশা নিয়ে নিয়োজিত আছে এবং এডভান্স বিজ্ঞাপনের মাধ্যমে তারা অনলাইন হতে ইনকাম করছে তাদের এক নাম্বার পছন্দই হচ্ছে গুগল এডসেন্স। গুগল এডসেন্স গুগলের একটি প্রোডাক্ট। এটি খুবই সিকিউর এবং একটি মেথড। গুগল এডসেন্স সম্পর্কে বিস্তারিত আছে এখানে।আপনার যদি গুগল এডসেন্স থেকে ব্লগিং করে খুব ভালো পরিমাণে আয় করতে চান তাহলে আপনাকে নিচের বিষয়গুলো অবশ্যই জানতে হবে।

high value adsense keywords
high value adsense keywords

আজকে আমি এখানে আলোচনা করছি গুগল এডসেন্স কোন ক্যাটাগরিতে কি পরিমানে পেয়ে করে এবং কোন দেশ থেকে বেশি পরিমাণে থাকে। এবং গুগল এডসেন্স থেকে বেশি ইনকাম করার জন্য হাই ভ্যালু কিছু কি ওয়ার্ড নিয়ে আলোচনা করছি। যেগুলো নিয়ে ব্লগিং করলে আপনি ব্লগিং খুব ভালো করতে পারবেন।

ব্লগিং এর ভাষা নির্বাচন

আপনার জন্য ব্লগিং করতে চান সে ক্ষেত্রে ভাষা নির্বাচন করাটা খুবই একটি গুরুত্বপূর্ণ বিষয়। বর্তমানে হিন্দি বা বাংলা ভাষায় যদি আপনি ব্লগিং করেন সেক্ষেত্রে আপনার আয় টা খুব অল্প হবে কেননা যদি আপনি হিন্দি ভাষায় ব্লগিং করেন সেক্ষেত্রে আপনার বেশিরভাগ ভিজিটর আসবে ইন্ডিয়া থেকে, এবং যদি বাংলা ভাষায় ব্লগিং করেন তাহলে আপনার বেশিরভাগ আসবে বাংলাদেশ বা ইন্ডিয়া থেকে। সেজন্য আপনাকে ব্লগের ভাষাটা নির্বাচন করতে হবে খুবই সতর্কতার সাথে। একইভাবে যদি আপনি ইংরেজি ভাষায় ব্লগিং করেন তাহলে সারাবিশ্ব থেকে আপনার ওয়েবসাইটে ভিজিটর আসবে কেননা প্রত্যেকটা দেশের কিছু কিছু না কিছু জানে এবং তারা ইংরেজি ভাষায় গুগলে সার্চ করে।

ব্লগিং এর লোকেশন টার্গেট

আপনি যখন একটি ওয়েবসাইট তৈরি করবেন তখন আপনার মনে মনে টার্গেট থাকতে হবে যে আপনার ওয়েবসাইটের কনটেন্ট গুলো কোন দেশের লোকেরা দেখবে। বা আপনার কনটেন্ট গুলো কোন দেশের ভিজিটরদের জন্য পারফেক্ট। এখন কথা হল যদি আপনি বাংলা ভাষায় ব্লগিং করেন তাহলে বেশিরভাগ ভিজিটর আপনার ওয়েবসাইটে আসবে বাংলাদেশ থেকে। এবং কিছু কিছু বিষয় রয়েছে যেমন, আপনি যদি একটি ওয়েবসাইট তৈরি করেন “Best washing machine in USA” বিষয়ে। তাহলে কিন্তু আপনার ইউনাইটেড স্টেট থেকেই শতভাগ ভিজিটর পাওয়ার সম্ভাবনা আছে। তাই ব্লগিং করতে হলে আপনাকে টার্গেটেড কান্ট্রি টা অবশ্যই সিলেক্ট করতে হবে। কেননা ইউনাইটেড স্টেট কানাডায় সমস্ত দেশ থেকে যদি আপনার এডসেন্স এ একটি ক্লিক করে তাহলে 1.00 ডলার এর উপরে আয় হওয়ার সম্ভাবনা থাকে। আর যদি ইন্ডিয়া থেকে হয় সে ক্ষেত্রে কিন্তু 0.03 ডলার এর উপরে পাওয়া যায় না। এ বিষয়ে আমাদের এখানে রিসার্চ রয়েছে ব্লগিংয়ের জন্য কোন দেশকে টার্গেট করা উচিৎ।

ব্লগিং এর  বিষয় নির্বাচন

ব্লগিং এর জন্য প্রত্যেকটা বিষয়ের উপর আলাদা আলাদা  ভ্যালু থাকে। আপনি যদি ব্লগিং একান্তই করতে চান তাহলে অবশ্যই আপনাকে ব্লগিং শুরু করার আগে ব্লগিং এর বিষয় নির্বাচন করে নিতে হবে। এমন কিছু বিষয় রয়েছে যে বিষয়গুলো নিয়ে আপনি যদি ভালোভাবে আঘাতে পারেন তাহলে আপনি অনেক ভালো করতে পারবেন। সে জন্য আজকের এই আলোচনায় নিচে বেশ কিছু টপিক আমি দিয়ে দিয়েছি যে বিষয়গুলো নিয়ে কাজ করলে সবচেয়ে বেশি ইনকাম হওয়ার সম্ভাবনা থাকে। নিচে দেখে নিন গুগল অ্যাডসেন্স এর জন্য ভালো মানে বিষয় গুলো।

এডসেন্স এর জন্য “High Value Keyword”

High value google adsense keyword 2020
High value google adsense keyword 2020

আরও কিছু বোনাস টপিকঃ

High value google adsense keyword 2020

High value google adsense keyword 2020High value google adsense keyword 2020

High value google adsense keyword 2020

High value google adsense keyword 2020

High value google adsense keyword 2020

High value google adsense keyword 2020

High value google adsense keyword 2020
High value google adsense keyword 2020

High value google adsense keyword 2020

গুগর এডসেন্স এর ইনফোগ্রাফীঃ

 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here