ওয়েবসাইট কি ? ইন্টারনেটে কত প্রকার ওয়েবসাইট আছে ? (জেনেনিন এখানে)

বর্তমান সময়ে অধিকাংশ মানুষ আজ ইন্টারনেটে অধিক সময় ব্যয় করে থাকে।

আর তাই অনেকে জানতে চান যে, ওয়েবসাইট কি ? ওয়েবসাইট কাকে বলে ? ওয়েবসবাইট কত প্রকার ও কি কি?

আপনি যদি ইন্টারনেট ব্যবহার করেন। ইন্টারনেট টেকনোলজি নিয়ে ভালো লাগা থাকে।

তাহলে আপনার মনে এই সকল প্রশ্ন চলে আসে এটাই স্বাভাবিক।

তার জন্য আজ আমাদের এই পোস্টে আপনাকে জানাব, ওয়েবসাইট কি ? ইন্টারনেটে কত প্রকার ওয়েবসাইট আছে।

তো এই বিষয়ে বিস্তারিত ধারণা নিতে চাইলে আমাদের দেওয়া আর্টিকেল শেষ পর্যন্ত মনযোগ দিয়ে পড়ুন।

আমরা জানি, বর্তমান সময়ে প্রতিটি মানুষের কাছে একটি হলেও স্মার্ট মোবাইল, ল্যাপটপ বা কম্পিউটার আছে।

তাই আমরা সকলেই উক্ত ডিভাইস ব্যবহার করে ইন্টারনেট চালায়। উক্ত ইন্টারনেট ব্যবহার করে আমরা বেশির ভাগ সময় অনলাইনের বিভিন্ন তথ্য ‍গুলো খুঁজে থাকি।

ওয়েবসাইট কি ? ইন্টারনেটে কত প্রকার ওয়েবসাইট আছে ? (জেনেনিন এখানে)
ওয়েবসাইট কি ? ইন্টারনেটে কত প্রকার ওয়েবসাইট আছে ? (জেনেনিন এখানে)

অনেক সময় আমাদের অনেক তথ্য প্রয়োজন হয়। সেগুলো মধ্যে কিছু বলছি যেমন-

অনলাইনে ছবি এডিটিং, অনলাইন গেম খেলা, অনলাইন ভিডিও দেখা, অনলাইন গান শোনা, ভিডিও ডাউনলোড করা ইত্যাদি বিষয় গুলো নিয়ে আমরা অনলাইনে সার্চ করে থাকি।

আমরা উক্ত যে সকল বিষয় নিয়ে ইন্টারনেটে সার্চ করি, সেগুলো আলাদা আলাদা ওয়েবসাইটে ব্যবহার করতে হয়।

আমরা যখন কোন তথ্য ইন্টারনেটে ‍খুঁজ করি। তখন আমাদের কম্পিউটার, ল্যাপটপ বা মোবাইল দিয়ে বিভিন্ন সার্চ ইঞ্জিন গুলোতে সার্চ করি। যেমন- Google সার্চ ইঞ্জিন, Yahoo সার্চ ইঞ্জিন ইত্যাদি।

আর উক্ত সার্চ ইঞ্জিন গুলোকে কিন্তু এক ধরণের ওয়েবসাইট।

আরো পড়ুনঃ

আর আমরা যে সকল তথ্য পাওয়ার জন্য সার্চ ইঞ্জিন গুলোতে সার্চ করি। তখন সেই সার্চ ফলাফলে যে সকল তথ্য দেওয়া হয়। সেই সকল তথ্য আলাদা আলাদা ওয়েবসাইট এর সাথি জড়িত থাকে।

তাই ইন্টারনেটে কোন তথ্য পাওয়ার জন্য সার্চ করলে অনেক ধরণের ওয়েবসাইট ফলাফল আমাদের সামনে চলে আসে।

ওয়েবসাইট কি (What Is Website)

আমরা আপনাকে এমন ভাবে ওয়েবসাইট সম্পর্কে বলব যা আপনি এক কথায় ওয়েবসাইট কি বুঝে যাবেন।

একটি ওয়েবসাইট ইন্টারনেট এ প্রকাশ্য সহজ লভ্য অনেক গুলো ওয়েব পেজ এর একটি মিশ্রণ বা কানেকশন।

সকল ওয়েব পেজে কিছু না কিছু তথ্য আর্টিকেল থাকে। তাই একটি ওয়েব সাইট তৈরি হয় এক থেকে অধিক ওয়েব পেজ এর ফলে।

উক্ত ওয়েব পেজ গুলো এক সাথে মিলে হয় একটি সংগঠন। একটি ওয়েবসাইট এর আকার কিংবা রুপ।

ওয়েবসাইট এমন একটি জায়গা যেখানে অনেক ওয়েব পেজ গুলো একসাথে জমা করা হয়।

মানে, আপনি যে আমাদের আর্টিকেল পড়বেন সটি হলো ওয়েবসাইট কি ? এটিও কিন্তু একটি ওয়েব পেজ। উক্ত ওয়েব পেজ আমাদের ওয়েবসাইট www.jit.com.bd এর একটি অংশ।

আমরা ওয়েবসাইটে যে সকল আর্টিকেল লিখি সেগুলো আলাদা আলাদা ভাবে ওয়েব পেজ।

এই সকল ওয়েব পেজ এর সংগঠন বা মিশ্রনে হয় আমাদের ওয়েবসাইট jit.com.bd.

আমরা ওয়েবসাইটের যে প্রথম পাতা যাকে আমরা হোম পেজ বলি সেটি একটি ওয়েবসাইট এর প্রধান ওয়েব পেজ।

ওয়েব সাইট এর হোম পেজ থেকে Hyper Link এর মাধ্যমে ক্লিক করে ওয়েবসাইট এর ভিতরে থাকা অন্যান্য ওয়েব পেজ গুলোতে আমরা প্রবেশ করতে পারি।

কিন্তু ওয়েবসাইট এর যে কোন অন্য ওয়েব পেজে যাওয়া জন্য উক্ত Hyper Link, হোম পেজ ছাড়া সব ওয়েব পেজ গুলোতে দেখতে পারবেন।

আপনি যখন আমাদের এই ওয়েবসাইট এর একটি আর্টিকেল পড়ার সময় অন্য আরো পোস্টের লিংকে ক্লিক করেন অবশ্যই।

আর এই প্রক্রিয়ার মাধ্যমে আপনারা আমাদের ওয়েবসাইট এর বিভিন্ন ওয়েব পেজ গুলোতে প্রবেশ করতে পারেন।

তো উক্ত আলোচনা অনুসরণ করে, বুঝতে পারছেন ওয়েবসাইট আসলে কি? যদি না বুঝে থাকেন দয়া করে ‍উক্ত আলোচনা আরো একবার পড়ুন।

ওয়েবসাইট কিভাবে কাজ করে ?

আমরা বসবাস করার জন্য যে ভাবে, একটি ঘর তৈরি করি। ঠিক সেরকম ভাবে একটি ওয়েবসাইট ইন্টারনেটে সক্রিয় করার জন্য ওয়েব সার্ভার প্রয়োজন হয়।

ওয়েব সার্ভারে ওয়েবসাইট এর সম্পূর্ণ ফাইল, ডাটা ও আর্টিকেল এক সাথে জমা করে রাখা হয়।

আমরা যখন আমাদের কম্পিউটার বা স্মার্ট মোবাইল দিয়ে ওয়েব ব্রাউজার যেমন- অপেরা মিনি, গুগল ক্রোম এছাড়া আরো অন্যান্য ব্রাউজার গুলোতে যে কোন ডোমেইন নাম লিখে সার্চ করি যেমন-

jit.com.bd তখন ইন্টারনেট কানেশনের সাহায্যে, সেই ডোমেইন নাম এর সাথে জড়িত ওয়েব সার্ভারে বা ওয়েবসাইট এর ডাটা, ফাইল এবং কনটেন্ট গুলো ওয়েব ব্রাউজারে দেখতে পারি।

তার কারণ হলো একটি সাইট এর ডোমেইন নাম ওয়েবসাইট এর সাথে যুক্ত হয়ে থাকে।

তাই যে, কোন ওয়েবসাইট এর ডোমেইন নাম ও একটি ইন্টারনেট ব্রাউজারের মাধ্যমে আমরা যে, কোন ওয়েব সাইট এর কনটেন্ট নিজের মোবাইলে বা কম্পিউটারে দেখতে পারি।

আশা করি উক্ত বিষয় অনুযায়ী বুঝতে পারছেন ওয়েবসাইট কিভাবে কাজ করে। না বুঝে থাকলে, আরও একবার পড়ে নিন।

ইন্টারনেটে কত প্রকার ওয়েবসাইট আছে

উক্ত আলোচনায় ওয়েবসাইট কি ? এই বিষয়ে ধারণা নিতে পারবেন। এবং ওয়েবসাইট কিভাবে কাজ করে এই বিষয়ে।

এখন আমরা আপনাকে জানাব ইন্টারনেটে কত প্রকার ওয়েবসাইট আছে।

বর্তমান সময় আমরা প্রতিদিন বিভিন্ন প্রকার ব্লগ বা ওয়েবসাইট ব্যবহর করি।

এমনিতে ইন্টারনেটে শুধু ব্লগ ওয়েবসাইট বা সার্চ ইঞ্জিন ওয়েবসাইট আমাদের অনেক জনপ্রিয়।

কিন্তু এগুলোর বাহিরে অনেক প্রকারের ওয়েবসাইট ইন্টারনেটে আছে। এবং সেই সকল ওয়েবসাইট আমরা প্রতিদিন ব্যবহার করে যাচ্ছি।

ইন্টারনটে কত প্রকার ওয়েবসাইট আছে সে বিষয়ে জানতে নিচের তথ্য গুলো দেখুন যেমন-

সার্চ ইঞ্জিন ওয়েবসাইট

আমরা সার্চ ইঞ্জিন ওয়েবসাই গুলো ব্যবহার করি ইন্টারনেট থেকে যে কোন তথ্য জানার জন্য।

যে ভাবে আপনি আমাদের এই আর্টিকেল পড়ার জন্য গুগল সার্চে সার্চ করেছিলেন “ওয়েবসাইট কি” “ইন্টারনেটে কত প্রকার ওয়েবসাইট আছে”

তারপরে গুগল আপনাকে আমাদের ওয়েবসাট সার্চ ফলাফলে দেখিয়েছে আর আপনি ক্লিক করে এখানে চলে এসেছেন।

উক্ত সার্চ ইঞ্জিন ওয়েবসাইট গুলোতে প্রতিদিন প্রায় এক বিলিয়ন এর বেশি লোক ব্যবহার করে থাকে বিভিন্ন তথ্য পাওয়ার জন্যে।

বর্তমান সময়ে জনপ্রিয় কিছু সার্চ ইঞ্জিন ওয়েবসাইট হলো- Google, Yahoo, Bing ইত্যাদি। আমরা জানি উক্ত সার্চ ইঞ্জিন গুলোর মধ্যে লোকেরা সব চেয়ে বেশি ব্যবহার করে গুগল সার্চ ইঞ্জিন কে।

আপনারা বিশ্বের যে কোন তথ্য খোজার জন্য উক্ত সার্চ ইঞ্জিন ওয়েবসাইট গুলো ব্যবহার করতে পারবেন।

উক্ত সার্চ ইঞ্জিন গুলোতে আপনি কোন তথ্য খোজার জন্য গেলে সেখানে সার্চ ইঞ্জিন সাইট গুলো থেকে তাদের নিজের তৈরি করা কোন তথ্য পাবেন না।

আমার আপনার মতো যারা ওয়েবসাইট বা ব্লগ তৈরি করে সেখানে বিভিন্ন তথ্য আপলোড করি তাদের সাইট গুলো সার্চ ইঞ্জিনে দেখাবে আর আপনারা সকল তথ্য জেনে নিতে পারবেন।

পার্সোনাল/ ব্লগ ওয়েবসাইট

আমরা জানি কয়েক বছর আগে থেকে ব্লগ বা ব্লগ ওয়েবসাইট গুলোর জনপ্রিয়তা অনেক গুণ বেড়ে গেছে।

কারণ এই সকল ব্লগ ওয়েবসাইট এ শুধু আর্টিকেল এবং প্রয়োজনীয় সকল তথ্য থাকে। যেমন- ছবি, ভিডিও, টেক্স ইত্যাদি।

আমাদের এই ওয়েবসাইট একটি পার্সোনাল ব্লগ ওয়েবসাইট। এখানে আমাদের ভিজিটর দের জন্য বিভিন্ন ধরণের আর্টিকেল পাবলিশ করি।

সকল কাজ যেহেতু আমরা নিজেরাই করছি তাই আমরা একটি পার্সোনাল ব্লগ বা ওয়েবসাইট হিসেবে বলতে পারি।

বর্তমান সময়ে যে কোন ব্যক্তি পার্সোনাল ওবেসাইট তৈরি করতে পারবে blogge.com এর সাহায্যে একদম ফ্রিতে।

আপনি যদি ব্লগার ওয়েবসাইট এর মাধ্যমে একটি ফ্রি পার্সোনল সাইট বানাতে চান।

তাহলে আমাদের ওয়েবসাইট এর  100% ফ্রি ওয়েবসাইট তৈরি করার বিষয়ে আর্টিকেল পাবলিশ করা আছে।

আপনি সেটি ফলো করে সাইট বানিয়ে নিয়ে কাজ করতে পারবেন।

ইমেজ গ্যালারি ওয়েবসাইট

আপনি যদি ইন্টারনেট ব্যবহার করে থাকেন। তাহলে অনেক সময় ছবি বা ওয়ালপেপার সার্চ করে দেখেছেন বা ডাউনলোড করে আপনার কম্পিউটার সেট করেছেন।

উক্ত ইমেজ গ্যালারি ওয়েবসাইট গুলোতে কোন প্রকার তথ্য পাওয়া যাবে না। কিন্তু এখানে হাজার হাজার ছবি দেখতে পারবেন।

সেই ছবি গুলো ডাউনলোড করে আপনার কম্পিউটার বা মোবাইলের মাধ্যমে ডাউনলোড করে নিতে পারবেন।

উক্ত ওয়েবসাইট গুলোকে Image Gallery website বা স্টোক ইমেজ ওয়েবসাইট বলা হয়।

সোশ্যাল নেটওয়ার্কিং ওয়েবসাইট

বর্তমান সময়ে সোশ্যাল নেটওয়ার্ক ওয়েবসাইট গুলো অনেক জনপ্রিয়। সেগুলো হলো- ফেসবুক, টুইটার, ইনস্টাগ্রাম ইত্যাদি।

উক্ত সোশ্যাল নেটওয়ার্কিং ওয়েবসাইট মানুষ প্রতিনিয়ত ব্যবহার করে।

মানুষ উক্ত সোশ্যাল মিডিয়া ওয়েবসাইট গুলো ব্যবহার করে, একে অপরের সাথে সহজেই যোগাযোগ করতে পারে।

এবং দেশ বিদেশের নতুন নতুন লোকদের সাথে ইন্টারনেটের মাধ্যমে বন্ধুত্ব করতে পারে।

কিন্তু একটি সোশ্যাল মিডিয়া নেটওয়ার্কিং ওয়েবসাইট তৈরি করা সাধারণ লোকদের পক্ষে সম্ভব হবে না।

আমরা জানি বিশ্বর সব চেয়ে জনপ্রিয় সোশ্যাল নেটওয়ার্কিং ওয়েবসাইট হলো Facebook.com

অনলাইন শপিং ওয়েবসাইট

বর্তমান সময়ে মানুষদের কাছে অনলাইন শপিং ওয়েবসাইট গুলো অনেক জনপ্রিয়।

প্রতিদিন লক্ষ লক্ষ মানুষ উক্ত অনলাইন শপিং ওয়েবসাইট থেকে তাদের প্রয়োজনীয় কেনা কাটা করে।

উক্ত অনলাইন শপিং ওয়েবসাইট গুলোর কাজ হলো ইন্টারনেট এর মাধ্যমে পণ্য বিক্রি করা।

আপনি বাজারে গিয়ে দোকান গুলোতে যে পণ্য গুলো কিনতে পারবেন। সেই পণ্য গুলো আপনি নিজের ঘরে বসে, অনলাইন শপিং ওয়েবসাইটে অর্ডার করে কিনতে পারবেন।

বর্তমানে অনলাইন শপিং করার কিছু জনপ্রিয় ওয়েবসাইট হলো, Amazon.com, Amazon.in, Snapdeal.com ইত্যাদি।

প্রশ্নোত্তর ওয়েবসাইট

বর্তমান সময়ে আমরা কোন বিষয়ে জানতে চাইলে অনলাইনে বিভিন্ন প্রশ্নোত্তর ওয়েবসাইট পেয়ে যায়।

উক্ত প্রশ্নোত্তর ওয়েবসাইট গুলোতে লোকেরা অনলাইনে একে অপরের সাথে টেক্স মেসেজ করে কথা বলতে পারে। এবং যে কোন প্রশ্ন করতে পারে এবং উত্তর জানতে পারে।

উক্ত প্রশ্ন-উত্তর ফোরাম ওয়েবসাইট গুলো বেশির ভাগ সময় ব্যবহার করা হয় কোন সমস্যার সমাথান ও প্রশ্ন উত্তর পাওয়ার জন্য।

বর্তমান সময়ে প্রশ্নোত্তর ফোরাম ওয়েবসাইট নাম হলো Authorearning.com, Quora, Yahoo Answers ইত্যাদি।

আরো পড়ুনঃ

শেষ কথাঃ

তো বন্ধুরা, আজ আমাদের এই পোস্টের মাধ্যমে জানতে পারলেন, ওয়েবসাইট কি? ইন্টারনেটে কত প্রকার ওয়েবসাইট আছে।

আপনি যদি আমাদের দেওয়া আর্টিকেল পড়ে ‍উপকৃত হন। তাহলে আমাদের আর্টিকেল আপনার বন্ধুর সাথে একটি শেয়ার করে দিবেন। এবং একটি কমেন্ট করে জানাবেন, আর্টিকেলটি কেমন লাগলো।

ট্যাগঃ ওয়েবসাইট কি ? ইন্টারনেটে কত প্রকার ওয়েবসাইট আছে ? (জেনেনিন এখানে) ওয়েবসাইট কি ? ইন্টারনেটে কত প্রকার ওয়েবসাইট আছে ? (জেনেনিন এখানে) ওয়েবসাইট কি ? ইন্টারনেটে কত প্রকার ওয়েবসাইট আছে ? (জেনেনিন এখানে)

ওয়েবসাইট কি ? ইন্টারনেটে কত প্রকার ওয়েবসাইট আছে ? (জেনেনিন এখানে) ওয়েবসাইট কি ? ইন্টারনেটে কত প্রকার ওয়েবসাইট আছে ? (জেনেনিন এখানে) ওয়েবসাইট কি ? ইন্টারনেটে কত প্রকার ওয়েবসাইট আছে ? (জেনেনিন এখানে)

আমাদের আর্টিকেল শেষ পর্যন্ত পড়ার জন্য আপনাকে ধন্যবাদ।

আরও পড়ুন

Leave a Comment

Share via
Copy link
Powered by Social Snap