লগো তৈরির সফটওয়্যার, লগো ডিজাইন করে ঘরে বসে আয় করুন

লগো তৈরির সফটওয়্যার (Logo Design Software): ফ্রিল্যান্সারদের প্রথম পছন্দ হচ্ছে লোগো ডিজাইনের কাজ। বর্তমানে যারা অনলাইন থেকে আয় করার কথা চিন্তা করে তারা প্রথমেই চিন্তা করে গ্রাফিক ডিজাইন অথবা লোগো ডিজাইন করে ইনকাম করার কথা। লোগো ডিজাইন করে ইনকাম করতে চাইলে অবশ্যই লোগো ডিজাইন এর কাজ শিখতে হবে আর এর জন্য প্রয়োজন হচ্ছে লোগো ডিজাইনের জন্য সফটওয়্যার সমূহ।

বর্তমানে বিভিন্ন কোম্পানির বিভিন্ন ধরনের লোগো ডিজাইন সফটওয়্যার (Logo design Software) বাজারে রয়েছে।

আজকের এই টিউটোরিয়ালে আমি আলোচনা করেছি লোগো ডিজাইনের জন্য জনপ্রিয় কয়েকটি সফটওয়্যার নিয়ে।

Logo design soft ware লগো তৈরির সফটওয়্যার
Logo design soft ware লগো তৈরির সফটওয়্যার

লগো কি? What is Logo?

টিউটোরিয়াল শুরু করার পূর্বে চলুন জেনে নেই লোগো কি? (What is logo): সহজভাবে বলতে গেলে লোগো হল, যে কোন কোম্পানি অথবা কোন ব্যান্ড এর একটি ইউনিক ডিজাইন/প্রতীক যে প্রতীক দেখে সবাই একটি কোম্পানী বা ব্যান্ডকে শনাক্ত করতে পারে।

নিচে কয়েকটি ব্যান্ড এর লগোর নমুনা দেওয়া হলো: নিচের লগোগুলো জনপ্রিয় কয়েকটি Brand এর।

Brand logo simple
Brand logo simple

লগো কেন তৈরি করতে হয়? Why make Logo?

লোগো হল প্রত্যেকটি কোম্পানির একটি ইউনিক প্রতীক যেটা দেখে একটি কোম্পানিকে যে কেউ খুব সহজেই চিনতে পারবে। অর্থাৎ একটি লোগো একটি কোম্পানি অথবা একটি ব্র্যান্ড কে খুব সহজেই মানুষের মধ্যে পরিচিত করার উপায় হিসেবে কাজ করে থাকে।

আর ফ্রিল্যান্সাররা একারণেই লগো তৈরি করে যে, বিভিন্ন কোম্পানির লোগো তৈরী করে দিয়ে ঘরে বসে ফ্রিল্যান্সিংয়ের মাধ্যমে অনলাইনে প্রচুর পরিমাণে অর্থ উপার্জন করা সম্ভব।

একজন প্রফেশনাল লোগো ডিজাইনার ঘরে বসে বিভিন্ন মার্কেটপ্লেস থেকে প্রচুর পরিমাণে অর্থ উপার্জন করে থাকে।

একজন লগো ডিজাইনার এর মূল্য কেন? value of Logo designer?

মূল্যায়নের দিক দিয়ে একজন লোকও ডিজাইনার কে মূল্যায়ন করতে গেলে, তাদের ভূমিকা ব্যাপক। একজন প্রফেশনাল লোগো ডিজাইনার যেমন বিভিন্ন মার্কেটপ্লেস থেকে ঘরে বসে অনলাইনে আয় করতে পারে। তেমনি ভাবে মার্কেটপ্লেস ছাড়াও অফলাইনে বিভিন্ন কোম্পানির হয়ে কাজ করে প্রচুর পরিমাণে অর্থ উপার্জন করতে পারে। আর একজন লোগো ডিজাইনার সবসময়ই ক্রিয়েটিভ আইডিয়া, নিত্য নতুন ডিজাইন দিয়ে সাজিয়ে তোলে বিভিন্ন নতুন নতুন ব্র্যান্ড এবং কোম্পানিকে খুব সহজেই।

যেহেতু একটি লোগো একটি কোম্পানির পরিচয় বহন করে সেহেতু যে ব্যক্তি সে লোগোটাকে ডিজাইন করে তার মূল্য একটু বিবেচনা করলেই বুঝা যায়।

এক কথায় বলতে গেলে একজন লোগো ডিজাইনার এর চাহিদা, মূল্য এবং প্রয়োজনীয়তা অনেক বেশি। আপনি যদি লোগো ডিজাইন করে অনলাইন থেকে আয় করার কথা চিন্তা করেন তাহলে অবশ্যই আপনাকে আজ থেকেই শুরু করে দিতে হবে।

আরো পড়ুন:  লোগো ডিজাইন করে অনলাইন থেকে আয় করার উপায়।

লগো ডিজাইন করে কত টাকা আয় করা যায়? How much earn a logo designer?

একজন লোগো ডিজাইনার কি পরিমাণ অর্থ উপার্জন করতে পারে? যেহেতু একজন লোগো ডিজাইনার এর মূল্যায়ন অনলাইন মার্কেটপ্লেসগুলোতে অনেক বেশি থাকে তাই একজন ডিজাইনার নরমালি হাজার টাকা থেকে শুরু করে প্রতি মাসে 5 থেকে 6 লাখ টাকা পর্যন্ত ইনকাম করতে পারে।

এছাড়াও একজন লোগো ডিজাইনার একটি লগোর জন্য 2000 টাকা থেকে শুরু করে 200000 টাকা পর্যন্ত চার্জ করে থাকে। একজন লোগো ডিজাইনার এর অভিজ্ঞতার ওপর নির্ভর করবে তার ইনকাম এর পরিধি। আরও পড়ুন: অনলাইনে আয় করার সহজ উপায়।

একজন প্রফেশনাল লোগো ডিজাইনার অনলাইন মার্কেটগুলো ছাড়াও বিভিন্ন অফলাইন মার্কেটগুলোতে, অথবা বিভিন্ন সোশ্যাল মিডিয়াতে কাজ করে সেখান থেকে প্রচুর পরিমাণে অর্থ উপার্জন করতে পারে।

অনেক লোগো ডিজাইনার আছেন যারা নিজস্ব বিজনেস প্ল্যান তৈরি করে, অনলাইনের মাধ্যমে নানান ভাবে সারাবিশ্বে তাদের সার্ভিস দিয়ে আসছে এবং উপার্জন করছে লক্ষ লক্ষ টাকা।

লগো ডিজাইনারের ভবষ্যত কেমন? Future of Logo Designer:

একজন লোগো ডিজাইনার এর ভবিষ্যৎ কেমন এটা বলতে গেলে এক কথায় বলতে হবে ব্যাপক। অনলাইনে বিভিন্ন মার্কেটপ্লেসগুলোতে একজন লোগো ডিজাইনার এর ব্যাপক চাহিদা রয়েছে। ভালো মানের একজন প্রফেশনাল লোগো ডিজাইনার প্রতিমাসে অনলাইন মার্কেটপ্লেসগুলোতে কে 50 হাজার টাকা থেকে শুরু করে 5 লক্ষ টাকা পর্যন্ত ইনকাম করে থাকেন। এবং অনেকে এর চেয়ে বেশি ইনকাম করে থাকেন।

পেশা হিসাবে লগো ডিজাইন কেমন হবে? Logo Design as profesion:

যদি কেউ লোগো ডিজাইনার কে পেশা হিসেবে  নিতে চান তাহলে আমি বলব অনায়াসে নিতে পারেন কেননা এর চাহিদা দিন দিন বেড়েই চলছে।

অনলাইন মার্কেটপ্লেসগুলোতে ছাড়াও বিভিন্ন কোম্পানী গুলো, ভালো মানের লোগো ডিজাইনার ভালো বেতনে চাকরি দিয়ে থাকেন।

এছাড়াও একজন লোগো ডিজাইনার এর বিভিন্ন জায়গায় রয়েছে যেমন আত্মসম্মান এমনই জনসমাগমের রয়েছে তাদের ব্যাপক চাহিদা।

সম্মান এবং কাজের পরিধি দিক থেকে বিবেচনা করলেও প্রফেশন হিসেবে একজন লোক ডিজাইনারের মূল্য অনেক বেশি।

ব্লগিং করে আয় করার উপায় সম্পূর্ণ বাংলায় টিউটরিয়াল

লগো ডিজাইন করার জনপ্রিয় কিছু সফটওয়্যার (Populer software for logo design)

আপনি যদি একজন ভাল মানের প্রফেশনাল লোগো ডিজাইনার হতে চান তাহলে অবশ্যই আপনার লোগোটি বিভিন্ন সফটওয়্যারের মাধ্যমে কমপ্লিট করতে হবে। লোগো ডিজাইনের জন্য বর্তমান মার্কেটে অনেক ধরনের সফটওয়্যার পাওয়া যায় এর মধ্যে বহুল ব্যবহৃত এবং জনপ্রিয় কিছু সফটওয়্যার নিয়ে এখানে আলোচনা করছি।

লোগো ডিজাইনের জন্য জনপ্রিয় যে লোক গুলো রয়েছে তাদের মধ্যে সবচেয়ে বেশি জনপ্রিয় ও বহুল পরিচিত সফটওয়্যার গুলো নিচে দেয়া হল।

Adobe Illustrator:

সবচেয়ে জনপ্রিয় সফটওয়্যার হচ্ছে এডোব ইলাস্ট্রেটর (Adobe Illustrator), এটি Adobe কোম্পানী হতে প্রোভাইড করে থাকে। এটি একটি ক্রিয়েটিভ সফটওয়ার। এর বেশ কয়েকটি ফ্রি এবং বেড ভার্সন রয়েছে। ডিজাইনারদের চাহিদা অনুযায়ী তারা বিভিন্ন ভার্শন তাদের কম্পিউটারে ইনস্টল করে কাজ করে থাকেন। ইলাস্ট্রেটর এর ভাষন গুলোর মধ্যে সবচেয়ে ফিচারসমৃদ্ধ ভাষণ হল: Adobe Illustrator CC, CS 6, এছাড়াও রয়েছে বেশকিছু ফ্রী ভার্শন, যেমন: Adobe Illustrator 8, Adobe Illustrator 10 ইত্যাদি,

CorelDraw:

করেল ড্র এটিও একটি গ্রাফিক্স সফটওয়্যার ভেতরে বহুল ব্যবহৃত এবং জনপ্রিয় সফটওয়্যার। এ সফটওয়্যার দ্বারা গ্রাফিক ডিজাইন সহ যাবতীয় ক্রিয়েটিভ কাজ সম্পাদন করা যায়। এটি  coreldraw.com প্রোভাইড করে থাকে। এর প্রিমিয়াম ভার্শন সহ বেশ কিছু ফ্রি ভার্সন রয়েছে। ডিজাইনারদের চাহিদা অনুযায়ী তাদের যেকোনো একটি ভার্সন ইন্সটল করে থাকে।

Adobe Photoshop

লগো বা গ্রাফিক্স ডিজাইন এর জন্য সবচেয়ে জনপ্রিয় সফটওয়্যার হচ্ছে এডোবি ফটেশপ (Adobe Illustrator), এটি Adobe কোম্পানী হতে প্রোভাইড করে থাকে। এর বেশ কয়েকটি ফ্রি এবং বেড ভার্সন রয়েছে। ডিজাইনারদের চাহিদা অনুযায়ী তারা বিভিন্ন ভার্শন তাদের কম্পিউটারে ইনস্টল করে কাজ করে থাকেন। ইলাস্ট্রেটর এর ভাষন গুলোর মধ্যে সবচেয়ে ফিচারসমৃদ্ধ ভাষণ হল: Adobe Illustrator CC, CS 6, এছাড়াও রয়েছে বেশকিছু ফ্রী ভার্শন, যেমন: Adobe Illustrator 8, Adobe Illustrator 10 ইত্যাদি,

লোগো এবং গ্রাফিক্স ডিজাইনের জন্য আরোও কিছু জনপ্রিয় সফটওয়্যার হলোঃ

  • GIMP
  • Inkscape
  • Canva
  • Hatchful by Shopify
  • Affinity Designer
  • Gravit Designer
  • Adobe Spark

লগো ডিজাইনের জন্য ছবি সংগ্রহ: Collect Logo Design Image

লোগো ডিজাইন করার জন্য প্রথম অবস্থায় প্রয়োজন হয় বিভিন্ন ধরনের পিএনজি আইকন। যদিও এসকল আইকনগুলো প্রফেশনাল লোগো ডিজাইনার কখনোই ব্যবহার করেন না। একজন প্রফেশনাল লোগো ডিজাইনার তাদের নিজের ক্রিটিভ আইডিয়া থেকেই একটি লোগো ডিজাইন করে থাকেন। কিন্তু প্রথম অবস্থায় যে সকল নতুন ডিজাইনার রয়েছেন তাদের আইডিয়া নেয়ার জন্য বিভিন্ন ওয়েবসাইট থেকে png, Icon অথবা Victor Icon সংগ্রহ করতে পারেন। এর জন্য জনপ্রিয় কিছু সাইট এর লিষ্ট নিচে দেয়া হলোঃ

Icon ও Logo design এর ছবির জন্য সহায়ক ওয়েবসাইট হলোঃ

লগো ডিজাইনের আইডিয়া কিভাবে পাবেন: genarate logo design idea

প্রথম অবস্থায় লোগো ডিজাইন আইডিয়া জেনারেট করার জন্য আপনারা চাইলে গুগল অথবা ইউটিউবে বিভিন্ন ধরনের টিউটোরিয়াল রয়েছে সেখানে দেখে শিখতে পারেন। এছাড়াও উপরে যেসকল ওয়েবসাইটের লিংক দিয়েছি সে সমস্ত ওয়েবসাইটে প্রবেশ করে বিভিন্ন ধরনের লোগো এবং গ্রাফিক ডিজাইনে আইডিয়া খুঁজে পাবেন সেগুলো অনুসরণ করে অনেক দূর পর্যন্ত এগিয়ে যাওয়া সম্ভব।

এছাড়াও আপনারা চাইলে আমাদের ওয়েবসাইটের এই লিংকে দেখতে পারেন:  লোগো ডিজাইন করে আয় করার সকল খুঁটিনাটি বিষয়

লগো বিক্রয় করে আয় করার সাইট:

লোগো ডিজাইন করে আয় করার বেশ কিছু জনপ্রিয় মাধ্যম রয়েছে তার মধ্যে উল্লেখযোগ্য হচ্ছে ফ্রিল্যান্সিং মার্কেটপ্লেসগুলোতে কাজ করে লোগো ডিজাইন করে আয় করা। এছাড়াও বিভিন্ন কোম্পানি বা ওয়েবসাইটে কনটেস্ট এ আয় করা যায়। এছাড়া আরো একটি জনপ্রিয় মাধ্যম হল লোগো বিক্রি করে আয়।

লোগো বিক্রয় করে আয় করতে চাইলে সে ক্ষেত্রে প্রথমে আপনাকে বেশ কিছু লোগো পোর্টফোলিও তৈরি করে আপলোড করতে হবে। এবং বিভিন্ন মার্কেটপ্লেসে সে সমস্ত লোগো আপনার কাছ থেকে অনলাইনের মাধ্যমে কিনে নেবে।

লোগো বিক্রয় করে আয় করার জনপ্রিয় সাইট: (logo salling site list):

  • Etsy
  • Creative Market
  • Art Web
  • Designhill
  • Design Cuts
  • Threadless
  • Zazzle
  • Redbubble
  • MyFonts
  • Design By Humans

সর্বপরি আমাদের পরামর্শঃ

আপনি যদি লোগো ডিজাইন করে আপনার ক্যারিয়ার দাঁড় করাতে চান। অথবা লোগো ডিজাইন করে অনলাইনে আয় করার সিদ্ধান্ত নেন, তাহলে অবশ্যই উপরের বিষয়গুলো ভালভাবে দেখে এবং লোগো ডিজাইনার ব্যাপারে ভালোভাবে জেনে বুঝে তারপর কাজে নামবেন।

ধৈর্য ধরে কাজ করুন অবশ্যই সফলতা আসবে আর মনে রাখবেন কোন কাজ সহজ নয় এবং ধৈর্য ধরে করলে কোনটাই কঠিন নয়।

আজকের এই লেখাটি যদি ভালো লাগে তাহলে অবশ্যই বন্ধুদের সাথে শেয়ার করবেন। আর যদি কোনো মতামত বা পরামর্শ থাকে অবশ্যই কমেন্ট করবেন। ধন্যবাদ।

বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন।

You May Like

Leave a Comment