বর্তমানে আমাদের দেশের অনেক ছেলেমেয়েরা তাদের পড়ালেখার পাশাপাশি এবং চাকরির পাশাপাশি কিছু সময় ব্যয় করে গ্রাফিক্স ডিজাইন করে প্রতি মাসে 50 হাজার টাকা এবং তার বেশি ইনকাম করছে তাও আবার কোন রকম ইনভেস্ট ছাড়াই। গ্রাফিক্স ডিজাইন বর্তমানে একটি জনপ্রিয় এবং ডিমান্এডেবল কটি পেশা। আপনি যদি গ্রাফিক্স ডিজাইন করে আপনাকে গড়ে তুলতে চান বা আপনার ক্যারিয়ারকে গড়ে তুলতে চান তাহলে আপনিও পারেন আপনার ক্রিয়েটিভ আইডিয়া কে কাজে লাগিয়ে খুব সুন্দর একটি ক্যারিয়ার গড়তে। বর্তমানে গ্রাফিক ডিজাইনের অনেকগুলো সেক্টর রয়েছে তার মধ্যে জনপ্রিয় একটি সেক্টর হচ্ছে লোগো ডিজাইন। এবং এর চাহিদা বর্তমান মার্কেটপ্লেসে খুবই বেশি এবং জনপ্রিয়। এবং এর চাহিদা রয়েছে।

লগো ডিজাইন করে আয় করুন প্রতি মাসে 50000 টাকা
লগো ডিজাইন করে আয় করুন প্রতি মাসে 50000 টাকা

আপনি যদি গ্রাফিক্স ডিজাইন নিয়ে কাজ করতে চান তাহলে অবশ্যই আপনাকে জেনারেট করতে হবে নিত্য নতুন আইডিয়া এবং ক্রিয়েটিভ ফরমেট যেটি অবলম্বন করে আপনি এগিয়ে যেতে পারবেন খুব দ্রুত এবং দক্ষতার সাথে।

আজকে আমি এখানে আলোচনা করব আসলে গ্রাফিক্স ডিজাইন কি? এবং লোগো ডিজাইন কি? লোগো ডিজাইন কোথায় থেকে শিখতে হয় এবং এর ডিমান্ড কেমন? এবং লোগো ডিজাইন শিখে ক্যারিয়ার গড়তে চাইলে কি পরিমান ইনকাম করা যায় এবং কোথায় থেকে ইনকাম করা যাবে? একজন লোক ডিজাইনার কোথায় থেকে তার কাজ পাবে? এ সকল বিষয় নিয়ে আজকে বানিয়েছি আপনাদের জন্য এই টিউটোরিয়ালটি।

বন্ধুরা চলুন শুরু করা যাক আমাদের মূল পর্বটিঃ

# লোগো ডিজাইন কি

আমরা প্রথমেই আসি গ্রাফিক্স ডিজাইন এর মধ্যে অন্যতম সেক্টর লোগো এবং লোগো ডিজাইন কি?  আমরা সাধারণত একটি লোক বলতে একটি কোম্পানির ব্র্যান্ডিং বা একটি কোম্পানির কি বুঝি যেটি দেখে সকলেই বুঝতে পারে যে এটি এই কোম্পানি। এবং এর মাধ্যমে একটি কোম্পানিতে খুব সহজেই জেনে ফেলা যায়। বিশ্বের নামকরা বেশকিছু কোম্পানি বা ব্র্যান্ড যেগুলোর লগো দেখে অনায়াসে চিনে ফেলা যায়- যেমন অ্যাপল, স্যামসাং, গুগল কিংবা ফেইসবুক এবং বাংলাদেশের ব্র্যান্ড আড়ং, গ্রামীণফোন,রবি,এয়ারটেল,টেলিটক, প্রাণ কিংবা প্রথম আলো।

প্রত্যেকটি কোম্পানি বা তাদের ব্র্যান্ড অনেকটাই লোগোর উপর নির্ভর করে। লোগো সিম্পল বা সুন্দর হবে ততই সে কোম্পানির থেকে মানুষ সহজেই মনে রাখতে পারবে।

# কেন লগো ডিজাইন শিখবেনঃ

যদি আপনার ক্রিয়েটিভ আইডিয়া থাকে বা ডিজাইন করার মত ভাল আইডিয়া থাকে তাহলে আপনি চাইলে গ্রাফিক্স ডিজাইন এর সেক্টরে লোগো ডিজাইন শিখতে পারেন। এতে গ্রাফিক্স ডিজাইন রয়েছে একটি নিখুঁত বা একটি সেক্টর। বিশ্বে বিভিন্ন অনলাইন মার্কেটপ্লেস এবং অফলাইন মার্কেটপ্লেসের এর চাহিদা ব্যাপক। প্রত্যেকটা কোম্পানি চায় তাদের কোম্পানির লোগো টা যেন ইউনিক এবং খুব সুন্দর এবং সাদাসিদা হয়। যাতে করে একজন কাস্টমার বা একজন পাবলিক এটাকে খুব সহজেই নিতে পারে এবং মনে রাখতে পারে। তাই এর জন্য বিভিন্ন কোম্পানির লোগোর পিছনের 50 ডলার থেকে শুরু করে 500 ডলার পর্যন্ত খরচ করে থাকে।

একবার ভাবুন যদি একটি লোকের জন্য আপনাকে 200 ডলার দেওয়া হয় অর্থাৎ আমাদের বাংলাদেশি টাকায় প্রায় 17 হাজার টাকার মতো। এবং সে কাজটি যদি আপনি একদিনে করতে পারেন বা কয়েক ঘন্টায় করতে পারেন তাহলে এর ভবিষ্যৎ কেমন হতে পারে?

# ক্যারিয়ার হিসেবে লোগো ডিজাইনঃ

আপনি যদি একজন ভাল মানের দক্ষ লোগো ডিজাইনার হতে পারে না তাহলে বর্তমান বিশ্বের যে ফ্রিল্যান্সিং বা আউটসোর্সিং ওয়েবসাইট গুলো রয়েছে এতে আপনার চাহিদা থাকবে টপ লেভেলে। মনে রাখবেন আপনি যদি একজন তাহলে কিন্তু আপনি শুধুমাত্র একটি চাকরির পিছনে দৌড়াবেন না কেননা আপনার পিছনে অনেক কোম্পানির বিল্ডিং করার জন্য লোগো ডিজাইন করে নিতে আপনাকে হায়ার করে থাকবে। বর্তমানে অনলাইন মার্কেটপ্লেসগুলোতে একজন প্রফেশনাল ডিজাইনারকে তারা একটি লগো ডিজাইনের বিনিময় 100 থেকে 1000 ডলার পর্যন্ত দিতে প্রস্তুত থাকেন।

তাহলে বুঝতে পারছেন আপনি যদি একটি ভালো মানের বা একজন দক্ষ ডিজাইনার হন তাহলে আপনার ক্যারিয়ার কোথায় থাকবে। অনলাইনে এর চাহিদা তা কিন্তু নয় বর্তমানে অফলাইনে এর ব্যাপক চাহিদা। আপনার যদি নিজের উপর ভাল কনফিডেন্স থাকেন বা যদি সৃজনশীল মনোভাব থাকে তাহলে আপনি খুব অল্প সময়ে একটি দক্ষ লোগো ডিজাইনার হতে পারবেন এবং আপনার ভাল ক্যারিয়ার গড়তে পারবেন।

# লগো ডিজাইন এর ভ্যালু কেমনঃ

এক কথায় বলতে গেলে বর্তমান অনলাইন মার্কেটপ্লেসগুলোতে এবং অফলাইনে লোগো ডিজাইনের চাহিদা ব্যাপক। বর্তমানে অনলাইন এবং অফলাইন বিভিন্ন মার্কেটপ্লেসে এর কাজের কোন অভাব নেই। একজন দক্ষ ডিজাইনার অনলাইন মার্কেটপ্লেসগুলোতে কে প্রতি মাসে 50 হাজার টাকা থেকে শুরু করে 5 লাখ টাকা পর্যন্ত ইনকাম করতে পারে তাও আবার ঘরে বসে।

# কি কি কাজ শিখতে হবে?

আপনি যদি একজন লোগো ডিজাইনার হতে চান তাহলে অবশ্যই আপনাকে গ্রাফিক্স ডিজাইনের বেশ কিছু সফটওয়্যার কাজ শিখতে হবে। এর মধ্যে জনপ্রিয় কিছু সফটওয়্যার হলোঃ

  • এডোবি ইলাস্ট্রেটর
  • অ্যাডোব ফটোশপ
  • করেল ড্র

এই জাতীয় বেশ কিছু সফটওয়্যার এর কাজ শিখতে হবে।

# কোথায় থেকে শিখবেনঃ

এটি একটি খুব ইম্পরট্যান্ট বিষয় যে কোথায় থেকে কাজ শিখবেন। আপনি যদি একজন দক্ষ ডিজাইনার হতে চান তাহলে অবশ্যই আপনাকে বেশ কিছু সফটওয়্যার এর কাজ শিখতে হবে এবং এগুলো আপনি চাইলে বা ফ্রি ভাবে শিখতে পারেন।

১. ফ্রি লগো ডিজাইনঃ

আমি যদি ফ্রিতে লোগো ডিজাইন শিখতে চান তাহলে আপনাকে বেশ কিছু কুয়েরী লিখে গুগল অথবা ইউটিউবে সার্চ করতে হবেঃ

যেমনঃ Illustrator Tutorial, advanced illustrator tutorials, adobe illustrator tutorials youtube, illustrator tutorials 2020, illustrator tutorials for graphic design, logo design tutorial illustrator, logo maker, logo design Free course, adobe illustrator logo design free, logo design ai, logo design tutorial bangla, Adobe Photoshop Tutorial, Photoshop Free Tutoria, Advance Photoshop Tutorial ইত্যাদি।

আপনি যদি এই সমস্ত কুয়েরি গুলো দিয়ে গুগল অথবা ইউটিউবে সার্চ করেন আপনি অসংখ্য লোগো ডিজাইন টিউটোরিয়াল পাবেন আপনি চাইলেই কিছু সময় ব্যয় করে আপনি লোগো ডিজাইন টা খুব ভালোভাবে শিখে নিতে পারবেন।

আমি মনে করি এটা সবচেয়ে বেস্ট এবং ইনভেস্ট ছাড়া অন্য কোন খরচ করা ছাড়াই লোগো ডিজাইন শেখার একটি অন্যতম পদ্ধতি

২. পেইড লগো ডিজাইনঃ

এবং আপনি যদি কোন রকম টাকা পয়সা খরচ করে লোগো ডিজাইন শিখতে চান সেক্ষেত্রে অনলাইনে বিভিন্ন রিসোর্স রয়েছে সেখান থেকে আপনি যে কোন একটি টিউটোরিয়াল কিনে অথবা তাদের ডিভিডি ভার্সনগুলো কিনে অথবা লাইভে তাদের কাছ থেকে আপনি লোগো ডিজাইন শিখতে পারেন।

এবং আমাদের বাংলাদেশ এবং ইন্ডিয়াতে অনেক লোগো ডিজাইনের জন্য প্রতিষ্ঠান রয়েছে সেখানে গিয়েও কিন্তু আপনি গ্রাফিক্স ডিজাইন অর্থাৎ ডিজাইন শিখে নিতে পারেন। এর জন্য আপনাকে খরচ করতে হবে প্রতি কোর্সের জন্য 5 হাজার থেকে শুরু করে 30 হাজার টাকা পর্যন্ত।

এখন আপনার ইচ্ছা আপনি কোনটি করবেন আপনি যদি বাড়িতে বসে ফ্রিতে শিখতে চান তাহলে আপনার টাকাও বাঁচবে এবং কষ্ট করে কোন ট্রেনিং সেন্টারে যেতে হবে না।

# কোথায় কাজ পাবেনঃ

লোগো ডিজাইনার হন তাহলে সে ক্ষেত্রে অনলাইনে বিভিন্ন মার্কেটপ্লেস হয়েছে আপনি চাইলে সেখানে বিট করে এখান থেকে কাজ নিয়ে আপনি কিন্তু আপনার ক্যারিয়ার গড়তে পারেন। লোগো ডিজাইন এবং গ্রাফিক্স ডিজাইনের জন্য জনপ্রিয় মার্কেটপ্লেস হলঃ

  • ফাইভার
  • ফ্রিল্যান্সার
  • আপওয়ার্ক
  • নাইনটি নাইন ডিজাইন ইত্যাদি

# লগো ডিজাইন করে কেমন আয় হয়ঃ

লোগো ডিজাইন করে কি পরিমাণে আয় করা যায় এ সম্পর্কে উপরে আমি বিস্তারিত বলেছি তারপরও আবার বলছি আপনি যদি একজন ভাল মানের দক্ষ লোগো ডিজাইনার হন তাহলে আপনি একটি লোগো ডিজাইন করে 50 ডলার থেকে শুরু করে 2000 টাকা পর্যন্ত ইনকাম করতে পারবেন এবং বিভিন্ন বড় বড় কোম্পানির ক্ষেত্রে তা আরো বাড়তে পারে।

এছাড়াও আপনি চাইলে 5 ডলার 10 ডলার এর যে ছোট ছোট কাজগুলো রয়েছে এগুলো কিন্তু অনলাইন থেকে করতে পারেন।

# ফ্রিলান্স মার্কেটপ্লেস লগো ডিজাইন এর পরিধিঃ

ফ্রিলান্স মার্কেটপ্লেস সব ধরনের কাজের মধ্যে প্রায় ১৪% কাজই গ্রাফিক্স ডিজাইন এর উপর নির্ভর করে। গ্রাফিক্স এ লোগো ডিজাইন, ব্যানার, ও মাল্টিমিডিয়া এর কাজ , গতবছর আয় বেড়ে বৃদ্ধির হার হয়েছিল ৪৪%। অতএব আমরা এটা বলতেই পারি যে, ফ্রিলান্সার হতে চাওয়া তরুনদের জন্য হতে পারে লোগো ডিজাইন একটি বাস্তবমুখী এবং অগ্রযাত্রার সুপান।

# লোগো ডিজাইনের জন্য ক্রিয়েটিভ কিছু আইডিয়া যা মাথায় রাখতে হবে

আমি বেশ কিছু আইডিয়া নিম্নে দিয়ে দিয়েছি আপনি যদি এই সকল আইডিয়া গুলো মাথায় রেখে একটি লোগো ডিজাইনের কাজ করেন তাহলে অবশ্যই আপনার একটি লোগো আকর্ষণীয় এবং বায়ার বা কাস্টমারদের পছন্দনীয় হবে এতে কোন সন্দেহ নেই। আইডিয়া গুলো দেখে নেয়া যাকঃ

১. খোবই সাদাসিধা ডিজাইনঃ

আপনি যদি লোগো ডিজাইন করেন তাহলে এর ডিজাইন টা যত সাদাসিদা করবেন ততই ভালো লাগবে এবং কাস্টমার বুঝতে পারবে। এবং একটি সাদাসিধা অল্প ডিজাইনের লোগো দেখতে বেশ আকর্ষনীয় হয়। এতে যত কম উপাদান থাকবে ততই ভালো।

২. সময়ের সাথে তাল মিলিয়ে কাজ করাঃ

সময় সে তাল মিলিয়ে বিভিন্ন ট্রেন্ড এর দিকে খেয়াল রেখে লোগো ডিজাইন করতে হবে। পুরাতন পুরাতন ট্রেন্ড গুলো মনে রেখে আপনি যদি একটা লোগো ডিজাইন করেন তাহলে সেটা অনেক পুরাতন ডিজাইন হয়ে যাবে। তাই সব সময় নিত্য নতুন আইডিয়া জেনারেট করতে হবে।

৩. ডিজাইন পরিবর্তন করা উচিৎ:

সময় বা যুগের সাথে তাল মিলিয়ে আপনার ডিজাইনের ফরমেট গুলোকেও পরিবর্তন করতে হবে। আপনার ডিজাইনটি যত নিত্যনতুন এবং আপডেট হবে বায়াররা ততই আপনার ডিজাইন কে পছন্দ করবে এবং সেটি অনেক আকর্ষনীয় হবে।

৪. লোগো নকল করা যাবেনা :

কখনোই অন্যের কোন লগো লকল করে লোগো ডিজাইন করা যাবে না। প্রত্যেকটি লোগোর জন্য কোম্পানির ব্র্যান্ড এবং কাজের ধরন বুঝে নিত্য নতুন ডিজাইন আইডিয়া জেনারেট করে লোগো ডিজাইন করতে হবে।

৫. লগোর উদ্দেশ্যঃ

মনে রাখতে হবে একটি লোগো একটি কোম্পানির নামের সাথে নয় কোম্পানির যে কাজ আছে সেই কাজের ক্যাটাগরির সাথে মিলিয়ে আপনার লোগোটি ডিজাইন করতে হবে। কেননা একটা লোগো একটি কোম্পানির প্রোডাক্ট বা সার্ভিসের পরিচয় বহন করে সুতরাং একটি কোম্পানির সার্ভিস বা প্রোডাক্ট এর উপর ডিপেন্ড করে কিন্তু একটি লোগো ডিজাইন করা উচিত।

৬. ফন্ট ব্যবহারঃ

একটা কোম্পানি বা একটি সার্ভিসের যেহেতু লোগো হলো তাদের পরিচয় বহনকারী তাই এখানে কোম্পানির কোন ফোন বা নামের সাথে তাল মিলিয়ে কোন অক্ষর না দিয়ে এখানে একটি ক্রিয়েটিভ ডিজাইন দেওয়াটাই যুক্তিসম্পন্ন এবং এটাই সবচেয়ে আকর্ষণীয় দেখাবে।

আরও বিস্তারিত জানতে নিচের ভিডিও টি দেখুনঃ

 

পরিশেষেঃ

পরিশেষে আপনি যদি একজন লোগো ডিজাইনার হতে চান তাহলে আমাদের এই আর্টিকেলটি ফলো করে কিন্তু আজ থেকেই কাজ শুরু করে দিতে পারেন।।



ব্যাক্তিগত রেফারেল লিংকঃ

রিপ্লাই করুন

আপনার মতামত দিন
এখানে আপনার নাম লিখুন