OnePlus কোন দেশের কোম্পানি ? OnePlus কোম্পানীর মালিক কে ?

OnePlus কোন দেশের কোম্পানি : ওয়ানপ্লাস কোম্পানির মালিক কে : আমাদের আর্টিকেলে আজ এ বিষয়ে বিস্তারিত তথ্য জানিয়ে দেয়া হবে।

আমরা সকলেই একটি দুর্দান্ত ডিজাইন শক্তিশালী স্পেসিফিকেশন দ্রুত এবং খুব হালকা একটি সফটওয়্যার সহ ফোন কম দামে কিনতে চায়।

2014 সালে ওয়ানপ্লাস ওয়ান লঞ্চ এর মাধ্যমে সে আসাটি আমাদের পুরণ হয়।

OnePlus কোন দেশের কোম্পানি ? OnePlus কোম্পানীর মালিক কে ?
OnePlus কোন দেশের কোম্পানি ? OnePlus কোম্পানীর মালিক কে ?

আমরা সকলেই বর্তমান সময়ে স্মার্টফোন ব্যবহার করে থাকি এবং এটি ক্রয় করার আগে এর সম্পর্কে সবকিছু জানতে আগ্রহী থাকে।

চীনের স্মার্টফোন প্রস্তুতকারী কোম্পানি ওয়ান প্লাস সর্ববৃহৎ স্মার্ট মোবাইল ফোন কোম্পানি বিবিকে ইলেকট্রনিক্স কর্পোরেশন এর একটি অংশ।

ওয়ান প্লাস সব সময় প্রেমিয়াম ক্যাটাগরিতে তাদের স্মার্টফোন লঞ্চ করে যাচ্ছে। ওয়ান প্লাস হচ্ছে একটি চাইনিজ স্মার্ট ফোন ব্র্যান্ড অপো এর প্রাক্তন ভাইস প্রেসিডেন্ট Pete Lau  এবং Carl Pei মাধ্যমে ২০১৩ সালে প্রতিষ্ঠিত হয়েছিল।

ওয়ানপ্লাস কোম্পানিটি বি বি কে ইলেকট্রনিক্স এর তিনটি সহযোগী সংস্থার মধ্যে একটি। আর অন্য দুটি হলো- অপো এবং ভিভো।

OnePlus কোম্পানীর মালিক কে

আপনার যারা জানতে চান ওয়ান প্লাস কোম্পানির মালিক বা সিইও কে। তাহলে সে প্রশ্নের উত্তর আমরা আপনাকে এখানে জানিয়ে দেবো।

ওয়ান প্লাস এই নতুন স্ট্যাটআপটি ২০১৩ সালে অপো ইলেকট্রনিক্স এর একজন প্রাক্তন কর্মী Pete Lau এর মাধ্যমে প্রতিষ্ঠিত হয়েছিল।

ওয়ানপ্লাস এর সদর দপ্তর শেসঝেন, ওয়াংডং প্রদেশ, ফুটিয়ান জেলার চেগং টেম্পল সাবডিস্ট্রিক্টের তাইরান বিল্ডিং এ অবিস্থিত।

এটি মার্চ ২০১৬ পর্যন্ত বিশ্বের ৪৩ টি দেশে উপস্থিত হয়েছে এর সহ-প্রতিষ্ঠাতা হচ্ছেন কার্ল পেই। প্রাথমিকভাবে এই দাবি অস্বীকার করা হয়।

যে ওয়ানপ্লাস, অপো এর একটি সহায়ক ব্র্যান্ড তবে, পরবর্তীতে সেটি অবশ্যই মেনে নেয়া হয়। প্রযুক্তিগতভাবে এটি বিবিকে ইলেকট্রনিক্স এর মালিকানাধীন একটি কোম্পানি বটে।

Pete Lau  চীনা উদ্যোক্তা এবং ব্যবসায়ী। তিনি চীনা স্মার্টফোন নির্মাতা ওয়ানপ্লাস এর সহ- প্রতিষ্ঠাতা এবং সিইও এবং একথা আগেই আমরা আপনাকে জানিয়ে দিয়েছি।

OnePlus কোন দেশের কোম্পানি

ওপরের আলোচনাতে ওয়ানপ্লাস কোম্পানির মালিক ও সিইও কে? সে বিষয়ে আমরা আপনাকে জানিয়ে দিয়েছি, এখন আমি আপনাকে জানাবো।

OnePlus কোন দেশের কোম্পানি। ওয়ানপ্লাস টেকনোলজি (Shenzhen) CO., LTD। এটি চীনা কনজ্যুমার ইলেকট্রনিক্স প্রস্তুতকারক একটি কোম্পানি।

ওয়ানপ্লাস এখন প্রধান অ্যান্ড্রয়েড স্মার্টফোন সংস্থা গুলোর মধ্যে জনপ্রিয় এবং বিশ্বের ৩৪ টি দেশে এবং অঞ্চলে এই স্মার্টফোনের বিভিন্ন মডেল বিক্রি হচ্ছে।

ওয়ানপ্লাসের জনপ্রিয়তা ইউরোপে এবং ভারতের সব থেকে বেশি বলে জানা যায়। আমাদের জানামতে ২০১৪ সালে ভারতে ওয়ানপ্লাস নিষিদ্ধ করা হয়েছিল।

বিভিন্ন কারণবশত তবে পরে হাইকোর্ট এই এবং এটি আস্তে আস্তে ভারতের একটি বিশাল বাজার তৈরি করতে সক্ষম হয়।

ওয়ানপ্লাস ২০১৮ সালের ফেব্রুয়ারি মাস থেকে ভারতে তার ডিজাইনগুলো তৈরি করেছে। এবং ওয়ানপ্লাস মোবাইল গুলো শুরুতে শুধুমাত্র ভারতে বিক্রি করার জন্য তৈরি করেছিল।

ওয়ান প্লাস কোম্পানির ব্যবসার বৃদ্ধির সাথে সাথে এটি এখন ইউরোপের পাশাপাশি অন্যান্য দেশ যেমন-

  • কানাডা
  • চীন
  • সাইপ্রাস
  • বোলগেরিয়া
  • বেলজিয়াম
  • অস্ট্রিয়া
  • ডেনমার্ক
  • এস্তোনিয়া
  • ফিনল্যান্ড
  • জার্মানি
  • গ্রীস এবং হংকং

উক্ত দেশগুলোতে বিক্রি করা হচ্ছে।

এছাড়া আরো অন্যান্য দেশ রয়েছে যেমন-

  • ভারত
  • হাঙ্গেরি
  • আয়ারল্যান্ড
  • ইতালি
  • লিথুয়ানি
  • লুক্সেমবার্গ
  • পর্তুগাল
  • রোমানিয়া
  • স্লোভাকিয়া
  • সুইডেন
  • স্লোভেনিয়া

এছাড়া আরো অন্যান্য দেশে ওয়ানপ্লাস-এর বিক্রি অনেক ভালো।

Oneplus মোবাইল এর ইতিহাস

উপরের আলোচনাতে আপনারা ওয়ান প্লাস কোম্পানির মালিক কে এবং ওয়ানপ্লাস কোন দেশের কোম্পানির সে বিষয়ে, আপনারা ধারণা পেয়ে গেছেন।

Oneplus এর ইতিহাস হিসেবে তারা প্রথমে 2014 সালে একটি হ্যান্ডসেট নিয়ে আসে আর সেটির নাম দেয়া হয় ওয়ান প্লাস ওয়ান।

প্লাস কোম্পানিটি তাদের প্রথম হ্যান্ডসেট কেনার জন্য এক নতুন ধরনের আমন্ত্রণ পদ্ধতি চালু করেছিলেন। এই স্মার্টফোনটি বাজারে তার গ্রাহকদের কাজ থেকে প্রচুর আদর এবং কদর পেয়েছেন।

সে সময় অনেকেই হ্যান্ডসেটটি কিনতে চেয়েছিল তবে আমন্ত্রণ সিস্টেমের কারণে কিনতে পারেনি। এই মডেলটি সেই সময়ে খুব হিট মডেল হিসেবে পরিচিত ছিল।

তারপর এর অন্যান্য মডেল লঞ্চ করা হয় যেগুলো কেনার জন্য আর কোন আমন্ত্রণের প্রয়োজন হয়নি।

২০১৫ সালে ওয়ান প্লাস টু চীন দেশে উন্মোচন করা হয়। ২০১৫ সালের আগস্ট মাসে ওয়ান প্লাস টু মডেলটির আন্তর্জাতিক বাজারে লঞ্চ করা হয়।

ওয়ান প্লাস এক্স এর আন্তর্জাতিক প্রকাশ ২০১৫ সালের নভেম্বর মাসে করা হয়।

ওয়ানপ্লাস হচ্ছে বাজারের অন্যান্য মোবাইল কোম্পানিগুলোর তুলনায় তুলনামূলকভাবে একটি তরুণ কোম্পানি। তবে চীন ভিত্তিক এই কোম্পানিটি অত্যন্ত দ্রুত অগ্রগতি হয়েছে।

ওয়ান প্লাস এর হ্যান্ডসেট গুলো অত্যন্ত আকর্ষক এবং প্রিমিয়াম গ্রেট এর স্মার্টফোন গুলোর সাথে তুলনীয়। তবে এগুলোর দাম অনেক কম। অন্যান্য এই একই স্পেসিফিকেশনযুক্ত মোবাইল ফোন গুলোর তুলনায়।

উক্ত কোম্পানি এখন পর্যন্ত অনেক ধরনের ডিভাইস বিক্রি করেছে এবং এইভাবে নিজেকে বাজারে সেরা স্মার্ট মোবাইল ফোন নির্মাতার মধ্যে একটি হিসেবে প্রতিষ্ঠিত করেছেন।

তো বন্ধুরা আমরা আশা করি আপনারা ওয়ানপ্লাস কোন দেশের কোম্পানি ? ওয়ানপ্লাস কোম্পানির মালিক কে এবং ওয়ানপ্লাসের কিছু ইতিহাস সম্পর্কে বিস্তারিত তথ্য বুঝতে পেরেছেন।

শেষ কথাঃ

তো বন্ধুরা আজ আমাদের এই আর্টিকেলের মাধ্যমে আপনাকে জানানো হলো, ওয়ান প্লাস কোন দেশের কোম্পানি ? এবং ওয়ান প্লাস কোম্পানির মালিক কে এবং ওয়ান প্লাসের ইতিহাস।

আপনি যদি ওয়ানপ্লাস সম্পর্কে সম্পূর্ণ ধারণা পেতে চান? তাহলে আপনাকে অবশ্যই আমাদের আলোচনাটি সম্পূর্ণভাবে মনোযোগ দিয়ে পড়তে হবে।

তো বন্ধুরা আমাদের আর্টিকেলটি শেষ পর্যন্ত পড়ার পর আপনার কাছে কেমন লাগলো অবশ্যই কমেন্ট করে জানিয়ে দেবেন।

আর বিশেষ করে আপনার বন্ধু-বান্ধবদের OnePlus কোন দেশের কোম্পানি এ বিষয়ে জানাতে একটি সোশ্যাল মিডিয়া শেয়ার করবেন ধন্যবাদ।

আরও পড়ুন

Leave a Comment

Share via
Copy link
Powered by Social Snap