ইউটিউব থেকে ভিডিও ডাউনলোড করার উপায় । ভিডিও ডাউনলোড করার সেরা ৫ টি এপস

ইউটিউবের নাম আমরা কে না শুনেছি। বিশ্বের সর্ববৃহৎ ভিডিও স্ট্রিমিং ও আপলোডিং প্ল্যাটফর্ম হ

ইউটিউব থেকে ভিডিও ডাউনলোড করার নিয়ম
ইউটিউব থেকে ভিডিও ডাউনলোড করার নিয়ম

চ্ছে ইউটিউব, যার ব্যবহারকারীর সংখ্যা এখন প্রায় ২.৪ বিলিয়ন ছাড়িয়ে গেছে। সম্প্রতি এক পরিসংখ্যানে দেখা গেছে ইউটিউবের ব্যবহারকারীরা প্রতিদিন গড়ে প্রায় ৫ বিলিয়ন ইউটিউব ভিডিও দেখে। বুঝতেই পারছেন সংখ্যাটি কত বড়।

ইউটিউবের এই জনপ্রিয়তার ঢেউ থেকে বাদ যায়নি আমাদের বাংলাদেশও। বাংলাদেশের সবচেয়ে জনপ্রিয় সাইটগুলোর মধ্যে ফেসবুকের পরেই রয়েছে ইউটিউব। আমরা অনেকেই ইউটিউব থেকে ভিডিও দেখতে গিয়ে সেগুলোকে ফোনে বা পিসিতে ডাউনলোড করতে চাই। কিন্তু ইউটিউব থেকে সরাসরি ভিডিও ডাউনলোড করার কোনো বৈধ উপায় নেই। ফলে আমাদেরকে অনেক সময় বেকায়দায় পড়তে হয়।

আমরা সবাই ইউটিউব থেকে ভিডিও ডাউনলোড করতে গিয়ে ইউটিউব থেকে ভিডিও ডাউনলোড করার নিয়ম, ইউটিউব ভিডিও ডাউনলোডার সফটওয়্যার, ইউটিউব ভিডিও ডাউনলোড করার অ্যাপ – এসব সার্চ করতে করতে হয়তো হাঁপিয়ে গিয়েছি। তবে আর খুজঁতে হবেনা। আমাদের আজকের এই পোস্টের মাধ্যমেই আপনি ইউটিউবের ভিডিও ডাউনলোড করার এ টু জেড জানতে পারবেন।

 

তো চলুন শুরু করা যাক।

ইউটিউব থেকে ভিডিও ডাউনলোড করা কি বৈধ

ইউটিউব এর টার্মস অফ কন্ডিশন বা শর্তাবলিতে প্রদত্ত তথ্য অনুসারে, “ইউটিউব প্ল্যাটফর্মে থাকা সকল কনটেন্টের কোনো অনুলিপি, পুনরুৎপাদন, বিতরণ, প্রেরণ, সম্প্রচার, প্রদর্শন, বিক্রয় সমূহ লাইসেন্স বা অনুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।”

এটির মানে হলো ইউটিউবের অফিসিয়াল এড্রয়েড এপ, আইফোন (আইওএস) এপ  ও পিসিতে দেখার ব্রাউজার সিস্টেম ছাড়া অন্য কোনো মাধ্যমে ইউটিউব ভিডিও দেখা গুগল পছন্দ করে না। যদিও অন্য কোনো থার্ড-পার্টি এপ ব্যবহার করেও ইউটিউব ভিডিও দেখা সম্ভব। অর্থাৎ থার্ড পার্টি এপসের মাধ্যমে ইউটিউব থেকে ভিডিও ডাউনলোড করা ইউটিউবের শর্ত অনুযায়ী বৈধ নয়।

ইউটিউব থেকে কি বৈধভাবে ভিডিও ডাউনলোড করা যায়

ইউটিউব এর অ্যান্ড্রয়েড ও আইওএস এপ থেকে সরাসরি ইউটিউব ভিডিও ডাউনলোড করা যায়। এক্ষেত্রে ভিডিও চালানোর সময় আপনি ইউটিউব এপেই ভিডিওর নিচে ডেসক্রিপশন এর উপরে একটি Download বাটন দেখতে পাবেন। এটিতে ক্লিক করলেই সহজে ভিডিও ডাউনলোড করা যাবে৷  তবে সমস্যা হচ্ছে, ডাউনলোড করা ভিডিওটি শুধুমাত্র ইউটিউব এপের মধ্যেই চলবে। তবে এক্ষেত্রে সুবিধাটি হচ্ছে পরবর্তীতে ভিডিওটি দেখতে কোনো ইন্টারনেট কানেকশনের দরকার হবেনা।

Read More:

ইউটিউব থেকে ভিডিও ডাউনলোড করার উপায়

ইউটিউব থেকে ভিডিও ডাউনলোডের জন্য অনেকেই বিভিন্ন থার্ড পার্টি সফটওয়্যারের উপর নির্ভর করে থাকে। ভিডিও ডাউনলোড করার আরো বেশ কিছু পদ্ধতি থাকলেও এই সফটওয়্যার বা এপস গুলোর উপরেই বেশিরভাগ মানুষ নির্ভর করতে পছন্দ করেন। সাধারণত এসকল সফটওয়্যারে আপনি যে ইউটিউব ভিডিওটি ডাউনলোড করতে চান সেটার URL কপিপেস্ট করে সরাসরি ভিডিওটির সর্বোচ্চ কোয়ালিটিকে সিলেক্ট করতে হয়। এরপর সাধারণত সফটওয়্যারগুলো ভিডিওটিকে  mp4 ফরমেটে ডাউনলোড করবে এবং আপনার মোবাইল বা পিসিতে সংরক্ষন করে রাখবে।

ইউটিউব থেকে ভিডিও ডাউনলোড করার সেরা ৫ টি এপস

ইউটিউব থেকে ভিডিও ডাউনলোড করার হাজারো থার্ড পার্টি এপস রয়েছে। এদের মধ্যে কিছু এপস রয়েছে শুধুমাত্র ডেস্কটপে ব্যবহার করার জন্য, কিছু এপস রয়েছে শুধুমাত্র এন্ড্রয়েড ডিভাইসে ব্যবহার করার জন্য। লেখার এই পর্যায়ে আমরা এন্ড্রয়েড ও পিসিতে ব্যবহারের জন্য সেরা কয়েকটি এপস নিয়ে আলোচনা করব।

4K Video Downloader

4k video Downloader হচ্ছে ইউটিউব ভিডিও ডাউলোডের জন্য সেরা কয়েকটি পিসি  এপসের মধ্যে একটি। এই এপসটি প্রতি নিয়তই আপগ্রেড হচ্ছে। 4k Video Downloar এপসের মাধ্যমে আপনি কোনো ঝামেলা এবং কোনো ধরনের বিজ্ঞাপম ছাড়াই সহজে ভিডিও ডাউনলোড করতে পারবেন।

এপসটির নামের মতোই এটি কাজেও 4k Resolution পর্যন্ত ভিডিও ডাউনলোডের কাজ করে। এই এপসটি ব্যবহারের মাধ্যমে আপনি বিভিন্ন ফরম্যাটে ভিডিও ডাউনলোড করতে পারবেন। এমনকি সাবটাইটেল সহ আপনার পছন্দের ভিডিও গুলোকে ডাউনলোড এবং পিসিতে স্টোর করে নিতে পারবেন। এই এপসটির আরেকটি বিশেষ বৈশিষ্ট্য হলো আপনার সাবসক্রাইব করা কোনো ইউটিউব চ্যানেলের সকল ভিডিও এটির সাহায্যে মাত্র কয়েকটি ক্লিকের মাধ্যমেই ডাউনলোড করে নেওয়া যায়।

ইউটিউব ছাড়াও এই এপসটি ব্যবহার করে আপনি ভিমিও, ফেসবুক সহ আরো বেশ কিছু সাইট থেকে পছন্দের ভিডিও গুলোকে ডাউনলোড করে নিতে পারবেন।

4K Video Downloader এপসটি ডাউনলোড করে নিন এই লিংক থেকে – https://www.4kdownload.com

KeepVid

ইউটিউব থেকে ভিডিও ডাউনলোড করার জনপ্রিয় একটি মাধ্যম হচ্ছে keepVid এপস৷ এই এপসটি ব্যবহার করার মাধ্যমে শুধুমাত্র ইউটিউব নয়, ভিডিও হোস্টিং সার্পোট করে এরকম প্রায় ২৮টি ওয়েবসাইট থেকে আপনি ভিডিও ডাউনলোড করতে পারবেন। যার মধ্যে রয়েছে ফেসবুক, ভিমিওসহ অন্যান্য সাইট।  এমনকি আপনি SoundCloud থেকেও গান ডাউনলোড করতে পারবেন!

KeepVid এর ওয়েবসাইট থেকে ইউটিউব ভিডিও ডাউনলোড করতে চাইলে আপনাকে শুধু ডাউনলোড বক্সে আপনার কাঙ্খিত ইউটিউব লিংকটি কপিপেস্ট করতে হবে। এরপর আপনাকে ভিডিওর resolution এবং অডিওয়ের কোয়ালিটি বাছাই করার অপশন দেওয়া হবে। আপনার পছন্দ মতো অপশন গুলো বেছে নিয়ে সিলেক্ট করে দিলেই আপনি কাঙ্খিত ভিডিওটি ডাউনলোড শুরু করে দিতে পারেন।

KeepVid এর ওয়েবসাইটের পাশাপাশি এদের একটি ডেক্সটপ সফটওয়্যারও রয়েছে। যার নাম KeepVid Pro, এছাড়াও তাদের অ্যান্ড্রয়েড এপআ এবং বিভিন্ন ব্রাউজারের জন্য ব্রাউজার এক্সটেনশন রয়েছে। অর্থাৎ যেকোনো ধরনের ডিভাইস ব্যবহার করে আপনি KeepVid এর মাধ্যমে ইউটিউব ভিডিও ডাউনলোড করতে পারবেন।

তবে KeepVid এপস ও সাইটগুলো সঠিকভাবে ব্যবহার করতে হলে আপনার ডিভাইসে অবশ্যই লেটেস্ট সংস্করণের Java  ইন্সটল  করতে  হবে।

 

KeepVid সাইটটিতে ঘুরে আসুন এখানে ক্লিক করুন www.keepvid.com

Tubemate

আমরা হয়তো ইতোমধ্যে জেনে গেছি যে  ইউটিউব থেকে ভিডিও ডাউনলোড করা বৈধ উপায়ে সম্ভব নয়। একারনে  আমরা যারা অ্যান্ড্রয়েড ব্যবহার করে থাকি তারা প্লে-স্টোর গিয়ে থেকে আপনি এমন কোনো এপস পাবো না যেগুলো দিয়ে ইউটিউব ভিডিও ডাউনলোড করা যায়। এটির মূল কারন হচ্ছে ইউটিউব গুগলের একটি গুরুত্বপূর্ণ অংশ। সুতরাং গুগল কোনোভাবেই চাইবেনা তার স্টোরে ইউটিউব ভিডিও নামানোর মত কোনো অবৈধ এপস থাকুক।

তবে অন্য কিছু উপায়ে ইউটিউব থেকে ভিডিও ডাউনলোড করার জন্য এন্ড্রয়েড এপস নামানো যায়। এন্ড্রয়েডে সহজে ইউটিউব ভিডিও নামানোর জন্য সব থেকে জনপ্রিয় এপস হলো TubeMate! এটির সাহায্যে শুধুমাত্র ইউটিউব নয় বরং অন্য সকল ভিডিও স্ট্রিমিং সাইট থেকে আপনি ভিডিও নামাতে পারবেন।

Tubemate থেকে ইউটিউব ভিডিও ডাউনলোড করতে প্রথমে Tubemate এপ্সে প্রবেশ করবেন। এরপর ইউটিউব সাইটে ব্রাউজ করবেন। পছন্দের ভিডিওটির ক্ষেত্রে এপসের উপরের দিকে সবুজ তীর চিহ্ন যুক্ত ডাউনলোড বাটনে ক্লিক করলে আপনি ভিডিওটি নামানোর বিভিন্ন অপশন পাবেন। নির্দিস্ট অপশনটি পছন্দ করে নিলেই ডাউনলোড শুরু হয়ে যাবে! হ্যা Tubemate এপস দিয়ে ইউটিউব ভিডিও ডাউনলোড এতটাই সহজ এবং সিম্পল!

Read More:

টিউবমেটের সাহায্যে চাইলে আপনি একাধারে পুরো প্লেলিস্ট এর সকল ভিডিও নামাতে পারবেন। তাছাড়া Tubemate এপসের সাহায্যে আপনি ইউটিউবের ভিডিওকে mp3 ফরম্যাটে converter ও করতে পারবেন। তবে Tubemate এর সাহায্যে সাধারণত এইচডি রেজুলেশনের ভিডিও নামানো যায়না। এই ভিডিও গুলো ডাউনলোড করতে  হলে আপনাকে ঐ কোম্পানিরই অন্য একটা সফটওয়্যার ইন্সটল দিতে হবে।

এপসটির ডাউনলোড লিংক– https://download.cnet.com/TubeMate/3000-2141_4-75672276.html

Vidmate

Tubemate এর মত Vidmate এপসটিও এন্ড্রয়েড মোবাইলে ইউটিউব ভিডিও ডাউনলোড করার অন্যতম জনপ্রিয় একটি সফটওয়্যার। Vidmate এপসের মাধ্যমেও অতি সহজেই ইউটিউব থেকে ভিডিও ডাউনলোড করা যায়। Vidmate এপটির একটি বড় বৈশিষ্ট্য হলো ভিডিও ডাউনলোডের ক্ষেত্রে এটিতে অনেক বেশি স্পিড পাওয়া যায় এবং ভিডিও ডাউনলোড খুব কমই error হয়।

Vidmate এর মাধ্যমে ইউটিউব থেকে ভিডিও ডাউনলোড করার পদ্ধতি অনেকটা Tubemate এর মতই। প্রথমে এপসে ঢুকে এরপর পছন্দের ভিডিওটিতে ডাউনলোড বাটনে ক্লিক করলেই পছন্দ মতো রেজুলেশনে ভিডিও ডাউনলোড করা যাবে।

Vidmate এন্ড্রয়েড এপসটির আরো একটি অনন্য বৈশিষ্ট্য হলো এই এপসের মাধ্যমে শুধু ইউটিউব না, বরং অন্যান্য বেশ কিছু ভিডিও স্ট্রিমিং প্ল্যাটফর্ম থেকেও ভিডিও ডাউনলোড করা যায়। Vidmate এপসটি প্লে স্টোরে পাওয়া যাবেনা।

ইউটিউব থেকে ভিডিও ডাউনলোড করার নিয়ম
ইউটিউব থেকে ভিডিও ডাউনলোড করার নিয়ম

এপসটির ডাউনলোড লিংক হলো – https://m.apkpure.com/vidmate-hd-video-downloader-live-tv/com.video.fun.app

Snaptube

ইউটিউব থেকে ভিডিও ডাউনলোড করার ক্ষেত্রে বর্তমানে Snaptube মোবাইল এপসটি বেশ জনপ্রিয় হয়েছে। সারাবিশ্বেই অনেক ব্যবহারকারী এন্ড্রয়েড মোবাইলে ইউটিউব ভিডিও ডাউনলোড করার ক্ষেত্রে এটি ব্যবহার করছেন। এই এন্ড্রয়েড এপসটির মাধ্যমে আপনি ইউটিউব ছাড়াও আরো অনেক সাইট থেকে ভিডিও ডাউনলোড করতে পারবেন।

Snaptube এপসটির মাধ্যমে 144p থেকে শুরু করে সর্বোচ 4K কোয়ালিটিতে ভিডিও ডাউনলোড করা যায়। এক্ষেত্রে নতুন কোনো সফটওয়্যার ইন্সটল করার প্রয়োজন হয়না। এছাড়াও এই এপসটির মাধ্যমে ইউটিউব থেকে ভিডিওর পরিবর্তে MP3 তে কনভার্ট করেও ডাউনলোড করা যায়।

এপসটি প্লে স্টোরে পাওয়া যাবেনা। এটি ডাউনলোড করার জন্য থার্ড পার্টি এপস মার্কেটে খোঁজ করতে হবে।

শেষ কথা

তো এই ছিল ইউটিউব থেকে ভিডিও ডাউনলোড করার উপায় ও সেরা ৫ টি ইউটিউব ভিডিও ডাউনলোডার এপস নিয়ে আলোচনা। আশা করি, ইউটিউব থেকে ভিডিও ডাউনলোড করতে আপনারা আর কোনো সমস্যার সম্মুখীন হবেন না। পোস্টটি ভালো লেগে থাকলে ফেসবুকে শেয়ার করুন।

আরও পড়ুন

Leave a Comment

Share via
Copy link
Powered by Social Snap