বাংলা ওয়েবসাইট থেকে আয় করুন মাসে ৮৫০০০ টাকা

কেমন আছেন বন্ধুরা। আমি আজকে আপনাদের সাথে শেয়ার করব কিভাবে বাংলা ওয়েবসাইট থেকে আয় করা যায়। অনেকেই আছেন যারা ব্লগিং করে ঘরে বসে আয় করতে ইচ্ছুক কিন্তু ইংরেজি জানেন না। মনে মনে ভাবছেন আমার মনে হয় আর অনলাইন থেকে আয় করা হলো না।

কিন্তু না আপনি চাইলে বাংলা ভাষায় ব্লগিং করে প্রতিমাসে 85 হাজার টাকা বা তার চেয়ে বেশি আয় করতে পারেন। এর জন্য আপনাকে শুধুমাত্র বাংলা লেখার অভিজ্ঞতা থাকতে হবে।

এখন কথা হল বাংলা তো লিখতে জানিনা কিভাবে কোথায় শিখবো ? যদি এমনটা হয় তাহলে তো পারবেন না আপনাকে বাংলা লেখা অবশ্যই শিখতে হবে।

আপনি যদি বাংলা না লিখতে পারেন তাহলে, এখানে দেখুন কিভাবে একটি আকর্ষণীয় আর্টিকেল লিখবেনঅথবা আর্টিকেল লিখে আয় করার সহজ উপায়।.

বাংলা ওয়েবসাইট থেকে আয় করার উপায়
বাংলা ওয়েবসাইট থেকে আয় করার উপায়

চলুন শুরু করা যাক আজকের মূল আলোচনা। যা যা থাকছে আজকের এই আর্টিকেল-এ।

বাংলা আর্টিকেল কি ? কিভাবে লিখবেন ?, বাংলা ভাষায় ব্লগিং করার উপায়? বাংলা ওয়েবসাইট থেকে আয় করার উপায়,  কিভাবে বাংলা ওয়েবসাইট বানাবেন ? বাংলা ওয়েবসাইট থেকে আয় করতে কতদিন সময় লাগবে। বাংলা ওয়েবসাইট থেকে কত টাকা আয় করা সম্ভব ইত্যাদি।

বাংলা আর্টিকেল কি?

আর্টিকেল হলো আমরা অনলাইনে কোনোকিছু দিয়ে সার্চ করার পর যে রেজাল্ট গুলো আসে প্রত্যেকটি রেজাল্ট এক এক টি আর্টিকেল। এবং এই প্রত্যেকটি আর্টিকেল কেউ না কেউ আমাদের মতো লিখে রেখেছে। যেগুলো পড়ে আমরা বিভিন্ন তথ্য বা ইনফরমেশন সংগ্রহ করে থাকি।

অথবা কোন কিছু জানার জন্য যখন আমরা গুগলে গিয়ে সার্চ করি এবং আমার কাঙ্খিত বিষয়টি পড়াশোনা করি সেটি একটি আর্টিকেল। এবং সে আর্টিকেলটি ও আমাদের মত কোন না কোন ব্লগার কর্তৃক লেখা হয়েছে।

কিভাবে বাংলা আর্টিকেল লিখবেন ?

বাংলা আর্টিকেল ইংরেজি আর্টিকেল এর মতই শুধুমাত্র ভাষায় রূপান্তরিত হবে। আপনি যে আর্টিকেলটি ইংরেজি ভাষায় লিখেছেন সেটি যদি বাংলা ভাষায় লিখতেন তাহলে সেটি বাংলা হয়ে যেত।

বন্ধুরা একটি আর্টিকেল লেখার জন্য আপনাকে যে যে বিষয় গুলো অনুসরণ করতে হবেঃ

  • যে বিষয়ে বিষয়ে ভালো জ্ঞান থাকতে হবে।
  • সে বিষয়ে পর্যাপ্ত তথ্য সংগ্রহ করতে হবে।
  • আপনার আর্টিকেলের বিষয়টি সম্পর্কে আপনাকে পড়াশোনা করতে হবে।
  • এবং আর্টিকেলটি সুন্দর করে সাজিয়ে গুছিয়ে লিখতে হবে।
  • ইউজার কে উদ্দেশ্য করে আর্টিকেল লিখতে হবে।
  • আর্টিকেলে তথ্য সংযুক্ত বা তথ্যবহুল বিষয় থাকতে হবে।
  • সঠিক তথ্য দিতে হবে।
  • আপনাকে খেয়াল রাখতে হবে আপনি যে লেখাটি লিখেছেন সেটি আপনি যদি পারেন আপনার কাছে কেমন মনে হবে।

আরো পড়ুনঃ

  1. বাংলা আর্টিকেল লেখার নিয়ম
  2. কিভাবে একটি আকর্ষণীয় আর্টিকেল লিখবেন
  3. কিভাবে সম্পূর্ণ ফ্রিতে একটি ওয়েবসাইট তৈরি করবেন
  4. বাংলা ভাষায় পূর্ণাঙ্গ ব্লগিং বিস্তারিত এখানে

বাংলা ওয়েবসাইট কি

আমরা ইন্টারনেটের মাধ্যমে যা কিছু পাই প্রত্যেকটি কোন না কোন ওয়েবসাইট থেকে পাই। আপনি যদি ইন্টারনেটে কোনো কিছু খুজেন এবং সে বিষয়টি যেখানে রয়েছে সেখানে ক্লিক করেন, দেখবেন সেটিও একটি ওয়েবসাইট।

সারা বিশ্বে ইন্টারনেটে ছড়িয়ে ছিটিয়ে থাকা সকল তথ্য গুলো বিভিন্ন ওয়েবসাইটের মাধ্যমে সংরক্ষণ করা হয়েছে। এবং প্রত্যেকটি ওয়েবসাইট কোন না কোন ব্যক্তির দ্বারা নির্মাণ করা।

এখন কথা হলো কিভাবে বাংলা ওয়েবসাইট তৈরি করব ? সমস্যা নেই আপনি যদি ওয়েবসাইট তৈরী করতে চান সেক্ষেত্রে আমাদের ওয়েবসাইটে অনেকগুলো রিসোর্স রয়েছে যেভাবে একটি ওয়েবসাইট তৈরি করতে হয়।

একটি ওয়েবসাইট তৈরি করার জন্য দুটি জিনিসের প্রয়োজন হয় একটি হল ডোমেইন এবং একটি হল ওয়েব হোস্টিং।

এখানে দেখুনঃ

বাংলা ওয়েবসাইট থেকে আয় করার মাধ্যম

আপনার যদি একটি বাংলা ওয়েবসাইট থাকে তাহলে কীভাবে সে ওয়েব সাইট থেকে আয় করতে পারবেন ? বাংলা ওয়েবসাইট থেকে আয় করার সবচেয়ে জনপ্রিয় এবং সহজ মাধ্যম হলো গুগল এডসেন্স । গুগল এডসেন্স এর মাধ্যমে আপনি খুব সহজেই একটি ওয়েবসাইট থেকে প্রতিমাসে 50 হাজার টাকা থেকে শুরু করে কয়েক লক্ষ টাকা পর্যন্ত আয় করতে পারবেন।

এছাড়াও আপনি চাইলে এফিলিয়েট মার্কেটিং করেও অনলাইনে আয় করতে পারবেন।

আপনার ওয়েবসাইটে যদি ভিজিটর বেশি থাকে তাহলে বিভিন্ন ব্যানার বিজ্ঞাপন বিক্রি করেও আয় করতে পারবেন।

স্পন্সর বিজ্ঞাপন এর মাধ্যমেও একটি বাংলা ওয়েবসাইট থেকে ভালো পরিমাণে আয় করা সম্ভব।

যেকোনো পণ্য বিক্রয় করেও আপনার ওয়েব সাইট থেকে আয় করতে পারবেন।

আরও পড়ুনঃ বাংলা ভাষায় ব্লগিং এর নাড়িভুড়ি।

তবে এর জন্য যে বিষয়গুলো প্রয়োজন তা হলোঃ

  • ওয়েবসাইটে ভালো মানের আর্টিকেল বা কনটেন্ট থাকতে হবে
  • ওয়েবসাইটে ভিজিটর থাকতে হবে
  • মানসম্মত এবং নির্ধারিত কোন বিষয়ের উপর আর্টিকেল থাকতে হবে
  • গুগল এডসেন্স একাউন্ট থাকতে হবে

সহজে বাংলা ওয়েবসাইট থেকে আয় করার উপায়

বাংলা ওয়েবসাইট থেকে আয় করার মাধ্যম গুলোর মধ্যে জনপ্রিয় অনেকগুলো বিষয় ইতিমধ্যে জানতে পেরেছি । কিন্তু কোন মাধ্যমে আয় করাটা সহজ।

আপনি যদি বাংলা ওয়েবসাইট থেকে খুব সহজে ইনকাম করতে চান তাহলে একটাই মাধ্যম সেটি হল গুগল এডসেন্স। গুগল এডসেন্স এর চেয়ে অন্য এমন কোন মাধ্যম নেই যেগুলোতে আয় করার সহজ।

যেহেতু গুগল এডসেন্স থেকে অনলাইনে আয় করা খুবই সহজ এবং খুব বেশি পরিমানে আয় করা সম্ভব তার জন্য আবার আপনাকে গুগল এডসেন্স ফ্রেন্ডলি ওয়েবসাইট তৈরি করতে হবে।

আপনার ওয়েবসাইট থেকে যদি আপনি গুগল এডসেন্সের মাধ্যমে আয় করতে চান তাহলে যে বিষয়গুলো অবশ্যই প্রয়োজন হবেঃ

  • ওয়েবসাইটের প্রত্যেকটি আর্টিকেল ইউনিক হতে হবে । অন্য কোথাও প্রকাশ হয়েছে এরকম কনটেন্ট দিয়ে গুগল অ্যাডসেন্স অ্যাপ্রুভাল পাবেন না।
  • ওয়েবসাইটে ব্যবহৃত ইমেজ গুলোকে অবশ্যই নিজে থেকে তৈরি করে দিতে হবে অথবা অন্য কোথাও থেকে নিয়ে সেগুলো ভালোভাবে এডিট করতে হবে যাতে অন্য কোনো মালিক এটা দাবি না করতে পারে।
  • আপনার ওয়েবসাইটে নির্ধারিত কিছু থাকতে হবে যেমন, যোগাযোগ, ওয়েবসাইট সম্পর্কে, প্রাইভেসি পলিসি, গোপনীয়তার নীতিমালা ইত্যাদি।
  • অতঃপর 20 থেকে 30 টি আর্টিকেল থাকতে হবে।

এখন বাংলা ওয়েবসাইট আছে এবং গুগোল অ্যাডসেন্সে অ্যাপ্রভাল হয়েছে ।  আর কি কি প্রয়োজন আছে একটি ওয়েবসাইট থেকে আয় করার জন্য ?

হ্যাঁ বন্ধুরা শুধুমাত্র একটি ওয়েবসাইট আর গুগোল অ্যাডসেন্সে অ্যাপ্রভাল থাকলেই সেখান থেকে ইনকাম করা সম্ভব নয়। সেজন্য আপনার ওয়েবসাইটে অবশ্যই ভিজিটর থাকতে হবে। তার জন্য আপনার ওয়েবসাইটকে এসইও অর্থাৎ সার্চ ইঞ্জিন অপটিমাইজেশন করতে হবে । যাতে গুগলে কেউ সার্চ করলে সে বিষয়টি যদি আপনার ওয়েবসাইটে থাকে তাহলে যেন সেটি গুগলের রেজাল্ট এ চলে আসে।

আরও পড়ুনঃ

বাংলা ওয়েবসাইট থেকে কত টাকা আয় করা যায়

বাংলা ওয়েবসাইট থেকে কত টাকা আয় করা যায় এ বিষয়টি আসলে নির্ভর করবে আপনার ওয়েবসাইট এর উপর। আপনার ওয়েবসাইটে কি পরিমাণে আর্টিকেল রয়েছে এবং প্রতিদিন কি পরিমাণ এ ভিজিটর আসে।

তারপরও একটি ধারণা দিয়ে দিচ্ছি।

আপনার ওয়েবসাইটের যদি প্রতিদিন 2000 পেজভিউ হয় তাহলে কত টাকা আয় হবে।

যদি আপনার ওয়েবসাইটে যদি  প্রতিদিন 2000 পেজভিউ হয় এবং যদি এডসেন্স ব্যবহার করেন, তাহলে এভারেজ 5 থেকে 10 ডলার আয় হতে পারে।

এবং প্রতিদিন পেজভিউ বাড়ার সাথে সাথে আপনার ইনকাউটার বাড়তে থাকবে। আর যদি আপনার একই ওয়েবসাইট ইংরেজি হয় এবং 2000 পেজটি হয় সেক্ষেত্রে দেখতে হবে কোন দেশ থেকে ভিজিটর গুলো প্রবেশ করছে।

নিচে একটি নমুনা ছক দিয়ে দিচ্ছিঃ

  • যদি বাংলাদেশ, ভারত, পাকিস্তান বা এই ক্যাটাগরির দেশ থেকে এড ক্লিক হয় তাহলে প্রতি এড ক্লিকে 0.02 থেকে 0.15 ডলার পর্যন্ত ইনকাম হতে পারে।
  • আর যদি আমেরিকা, কানাডা, ইউরোপ অষ্ট্রেলিয়া এরকম দেশ থেকে ক্লিক হয় তাহলে প্রতি এড ক্লিকে 0.25 থেকে 5.00 ডলার পর্যন্ত ইনকাম হতে পারে।

বাংলা ওয়েবসাইট থেকে আয় করতে কতদিন সময় লাগে

আপনি যদি একেবার নতুন হয়ে থাকেন তাহলে ওয়েবসাইট তৈরি করার পর কমপক্ষে তিন থেকে ছয় মাস পর থেকে আপনার ইনকাম শুরু হতে থাকবে। আর যদি আপনি খুব ভালো পরিমাণে কাজ করতে পারেন বা ভাল বোঝেন সে ক্ষেত্রে প্রথম মাস থেকেই ইনকাম করা সম্ভব তবে এটি কষ্টসাধ্য ব্যাপার।

কেননা আপনি যদি প্রতিদিন আপনার ওয়েবসাইটে একটি করে আর্টিকেল লিখেন তাহলে 30 দিনে 30 টি আর্টিকেল হবে। আর তখন মাত্র আপনার ওয়েবসাইটে অ্যাডসেন্স এর জন্য উপযুক্ত হবে। এবং আপনি গুগল এডসেন্স এর জন্য অনুমোদন পেয়ে যাবেন কিন্তু সে সময় আপনার ওয়েবসাইটে কি পরিমান ভিজিটর আসছে সেটাই দেখার বিষয়।

অতঃপর আপনার ওয়েবসাইটে ভিজিটর আনতে হবে বিভিন্ন জায়গায় শেয়ার করতে হবে এবং এর জন্য কিছু সময় ব্যয় করতে হবে । তারপর আপনার ওয়েবসাইটে কিছু ভিজিটর প্রবেশ করা শুরু করবে।

এতে করে একটি ওয়েবসাইট তৈরির মিনিমাম ছয় মাস পর থেকে একটি ওয়েবসাইট থেকে ইনকাম শুরু হয়। কেউ একটু আগে থেকে ইনকাম করতে পারে আবার কেউ এর থেকেও বেশি সময় নেয়।

আমার দেখা মতে আমার চতুর্দিকে যারা যারা নতুন এই সেকশনে এসেছেন তাদের বেশিরভাগই তিন থেকে ছয় মাস সময়ের মধ্যে অনলাইন থেকে আয় করা শুরু করে দিয়েছেন।

সর্বোপরি আমাদের পরামর্শঃ

আপনি যদি ঘরে বসে অনলাইন থেকে আয় করার কথা ভেবে থাকেন তাহলে বাংলা ওয়েবসাইট থেকে আয় হতে পারে আপনার অনলাইন ইনকাম এর মাধ্যম।

কেন বাংলা ব্লগ ভাষায় ব্লগিং করে আয় করবেন ? এর উত্তর বলতে গেলে ব্লগিং পেশাটি হচ্ছে একটি চলমান পেশা। এখানে আপনি একবার কাজ করলে সে কাজের জন্য সারাজীবন ইনকাম করতে পারবেন। এখানে প্রথম অবস্থায় খুব বেশি কাজ করতে হয় এবং যতদিন যাবে আপনার কাজের পরিমাণটা কমে আসবে এবং ইনকাম টা দিন দিন বাড়তে থাকবে।

একটি কথা না বললেই নয়, আপনি যদি এ পেশাতে আসতে চান তাহলে অবশ্যই আপনার ভালো পরিমাণে ধর্য থাকতে হবে। আপনি যদি খুব দ্রুত নিজেকে সাফল্যের চূড়ায় নিতে চান তাহলে এই পেজটি আপনার জন্য নয়।  ব্লগিং পেশাটি সময়সাপেক্ষ ব্যাপার।

বন্ধুরা আমার এই আর্টিকেলটি যদি আপনাদের কাছে ভাল লাগে তাহলে অবশ্যই বন্ধুদের সাথে শেয়ার করবেন। আর যদি কোনো মতামত এবং অভিযোগ থাকে তাহলে অবশ্যই কমেন্ট সেকশনে গিয়ে কমেন্ট করুন।

ধন্যবাদ সবাইকে।

আরও পড়ুন

Leave a Comment

Share via
Copy link
Powered by Social Snap