জিমেইল পাসওয়ার্ড ভুলে গেছি কি করব ? সমাধান

বর্তমান এই যুগে আমরা যোগাযোগ এর জন্য নানা মাধ্যম ব্যবহার করে থাকি। প্রযুক্তির কল্যাণে এই উন্নতি সাধিত হয়েছে। কালের পরিক্রমায় এসেছে মোবাইল ফোন যার মাধ্যমে মোবাইল ছাড়াই কথা বলা যায়। আবার তার জন্য আবিষ্কার হয়েছে সিম কার্ড।

আমাদের প্রতি দিনের জীবন এর একটি অপরিহার্য অংশ হলো এই ফোন নাম্বার। যা না হলে আমাদের চলে না একটি মুহূর্তও। ফোন নাম্বার এর মতোই একটি অপরিহার্য যোগাযোগ এর বস্তু হলো জিমেইল। সকলেই এর সাথে আশা করি পরিচিত আছি।

আচ্ছা কখনো কি এই জিমেইল এর পাসওয়ার্ড ভুলে গেছেন? বা কখনো কি ভেবেছেন জিমেইল পাসওয়ার্ড ভুলে গেলে কি করব? হয়তো বা ভাবেন নি। কিন্তু আমি পাসওয়ার্ড ভুলে গেছি সরি এককালে ভুলে গিয়েছিলাম। সেই অভিজ্ঞতাই এবং জিমেইল পাসওয়ার্ড ভুলে গেছি কি করব এই প্রশ্নের জবাব খুজব আমরা আজকের এই পোস্টে।

জিমেইল পাসওর্য়াড ভুলে গেলে করনীয় কি।
জিমেইল পাসওর্য়াড ভুলে গেলে করনীয় কি?

চলুন তবে শুরু করা যাক।

জিমেইল কি?

প্রথমেই আসা যাক আপনি যদি জিমেইল সমন্ধে হালকা সন্দিহান হয়ে থাকেন তবে এই অংশটুকুর উপরে চোখ বুলিয়ে নিন। জিমেইল মূলত গুগল প্রদত্ত একটি ইমেইল সেবা। ইমেইল মূলত মোবাইল এর মেসেজিং এর মতোই। এখানে শুধু ব্যবসায়ীক উদ্যোগে কম খরচে মেইল পাঠানো যায়। আর এই জিনিসটাই জিমেইল বা ইমেইল কে এতটা জনপ্রিয় করে তুলেছে।

গুগল এর এই জিমেইল সেবা যদি আপনি না নিয়ে থাকেন তবে আজই তাতে সাইন আপ করে ফেলুন। তা না হলে আপনি অনেক সেবা থেকেই বঞ্চিত হবেন। নিচের দেয়া লিংক থেকে গিয়ে আপনি সাইন আপ করে ফেলতে পারবেন।

বিদ্রঃ ফোনের অ্যাপ থেকে খুললে আপনি যদি চান তবে ফোন নাম্বার ছাড়াই জিমেইল খুলতে পারবেন। এটি এর অনন্য বৈশিষ্ট্য।

লিংক সাইন আপ- Sign Up 

আরও পড়ুন:

জিমেইল এর পাসওয়ার্ড ভুলে যাওয়ার কারণ-

জিমেইল পাসওয়ার্ড ভুলে গেছি কি করব এই প্রশ্ন এর উত্তর খোঁজার আগে আপনাকে জানতে হবে কি কারণে আপনি পাসওয়ার্ড হারিয়ে ফেলতে পারেন। জিমেইল পাসওয়ার্ড ভুলে যাওয়ার অন্যতম একটি কারণ হলো খুব বড় পাসওয়ার্ড ব্যবহার করা। হ্যাঁ, আপনি যদি এখন ২৮ থেকে ৩২ ওয়ার্ড এর পাসওয়ার্ড লেখেন তাহলে তো সমস্যা হবেই। তাই একটু চেষ্টা করবেন এটাকে মধ্য সাইজে রাখার।

আবার এখানে অন্য ঝামেলাও হবে যদি খুব বেশি ছোট রাখেন। সেক্ষেত্রে আপনার পাসওয়ার্ড টি হ্যাক হয়ে যেতে পারে। যা আপনার জন্য ঝামেলার সৃষ্টি করবে।

জিমেইল পাসওয়ার্ড এর ক্ষেত্রে উক্ত দুইটি বিষয় মাথায় রাখলে আপনি ঠিক থাকতে পারবেন আশা করি।

জিমেইল পাসওয়ার্ড ভুলে গেছি কি করব?

এই পর্যায়ে আমরা জিমেইল পাসওয়ার্ড ভুলে গেছি কি করব সেই প্রশ্নটির উত্তর খুঁজব। জিমেইল পাসওয়ার্ড যদি এত সুরক্ষার পরও ভুলে যান সেক্ষেত্রে চিন্তিত হওয়ার নূন্যতম কারণ নেই। কেননা এর অনেক উপায় রয়েছে তা রিকভার করার। চলুন নিচের স্টেপ গুলো অনুসরণ করে তা জেনে নিই।

১, প্রথমেই আমাদের দেয়া লিংক এর ঠিকানায় আপনাকে যেতে হবে। নিচের লিংকটিতে ক্লিক করে নিন। লিংক – RECOVERY 

২। উপরোক্ত লিংক এ ক্লিক করলেই আপনাকে গুগল এর একটি পেজে নিয়ে আসা হবে। সেখানে আপনি গুগল অ্যাকাউন্ট এ যেভাবে সাইন ইন করেন সেভাবে করতে হবে। সেক্ষেত্রে প্রথমেই আপনার ইমেইলটি স্থাপন করুন। এবং নেক্সট বাটনে ক্লিক করুন।

৩। এ পর্যায়ে আপনার সামনে আরেকটি উইন্ডো চলে আসবে। জিমেইল এ সাইন ইন এর সেকেন্ড স্টেপ যেটি। তা হলো এবার তারা আপনার কাছে পাসওয়ার্ড চাইবে। কিন্তু আপনি পাসওয়ার্ড জানেন না তাই তো? সেক্ষেত্রে আপনার জন্য নিচে একটি অপশন দেয়া আছে দেখে নিন। হ্যাঁ, Forgot Password অপশনে ক্লিক করুন।

৪। উক্ত অপশনটিতে ক্লিক করলে আপনি দেখতে পারবেন যে আপনাকে একটি আরেকটি পেজে রিডাইরেক্ট করা হয়েছে। এ পর্যায়ে দেখতে পারবেন তারা আপনাকে বলছে যে আপনার জিমেইল এর সাথে যে মোবাইল নাম্বারটি আছে তারা তাতে একটি রিকভারি কোড পাঠাবে। এক্ষেত্রে আপনি কল বা টেক্সট এর যেকোন একটি অপশন সিলেক্ট করে নিতে পারেন।

৫। এই স্টেপটি তাদের জন্য যাদের কোনো মোবাইল নাম্বার যুক্ত করা নেই। মোবাইল নাম্বার যদি যুক্ত করা না থাকে বা কোনো রিকভারি মেইল না থাকে তবে একটু ঝামেলা পোহাতে হবে সেক্ষেত্রে আপনি আমাদের দেয়া লিংক এর পেজে যেয়ে পরবর্তী নির্দেশনা অনুসরণ করুন।

৬। যাদের কাছে ফোন রয়েছে তারা ৫ নামার অপশনটিকে স্কিপ করে চলে যেতে পারেন। আপনাদের সেখানে কোনো কাজ নেই। তো আপনাকে টেক্সট করার অপশন দিলে তারা আপনাকে একটি কোড পাঠাবে। আবার যদি রিকাভরি মেইল দেয়া থাকে সেক্ষেত্রে কোডটি সেখানে যাবে।

৭। আপনি মেইলে পান বা ফোন নাম্বার এ পর্যায়ে আপনাকে কোডটি নিয়ে আরেকটি পেজে রিডাইরেক্ট করা হবে। সেখানে আপনি একটি ছক দেখতে পারবেন। আপনার সেই কোডটুকু সেই ছকে দিয়ে দিন। এবং নেক্সট অপশনটিতে ক্লিক করুন।

৮। আপনার কোডটি সঠিক হয়ে থাকলে তারা আপনার পাসওয়ার্ডটি রিসেট করে ফেলবে। এ পর্যায়ে আপনার জিমেইল এ কোনো পাসওয়ার্ড নেই। তাই তারা আপনাকে এমন একটি পেজে নিয়ে যাবে যেখানে আপনাকে নতুন পাসওয়ার্ড দিয়ে তা কনফার্ম করতে হবে।

ব্যাস এভাবেই আপনি নিজের জিমেইল এর পাসওয়ার্ড রিসেট করতে পারবেন।

জিমেইল এর পাসওয়ার্ড ভুলে গেলে আপনি এভাবেই নিজের পাসওয়ার্ডটি ঠিক করে নিতে পারেন।

জিমেইল পাসওয়ার্ড রিকভারি এর পর কি করব?

জিমেইল পাসওয়ার্ড তো বারবার ভুলে গেলে চলবে না তাই না?

সেক্ষেত্রে আপনি আপনার পছন্দের কোনো লাইনকে একটু ফরম্যাট চেঞ্জ করে আপনার পাসওয়ার্ড হিসাবে সেট করতে পারেন। এতে করে আপনার মনে থাকবে এবং সেই সাথে বারংবার আপনার সেই পাসওয়ার্ড রিসেট এর ঝামেলা পোহাতে হবে না।

জিমেইল সুরক্ষিত রাখার উপায়-

জিমেইল এর পাসওয়ার্ড ঠিক করার সাথে সাথে আপনাকে আরও কিছু জিনিস অবশ্যই মাথায় রাখতে হবে। তার মধ্যে একটি হলো জিমেইল এর সাথে একটি ফোন নাম্বার বা রিকভারি মেইল যুক্ত করে। এর ফলে পরবর্তী বার যদি আপনি তা ভুলে যান তবে তাড়াতাড়ি যেন তা ফিরে পেতে পারেন। তাই সর্ব প্রথম যুক্ত করুন একটি রিকভারি মেইল অথবা ফোন নাম্বার।

আরও পড়ুন:

দ্বিতীয়ত আপনাকে যে বিষয়টি মাথায় রাখতে হবে তা হলো 2 Step Authentication নামে গুগলে জিমেইল এর একটি সুরক্ষা ব্যবস্থা আছে। আপনাকে সেই অপশনটিকে অন করতে হবে। আপনি যদি তা অন করে রাখেন তবে কেউ আপনার পাসওয়ার্ড পেয়ে গেলেও আপনার জিমেইল এ অনুপ্রবেশ করতে পারবে না। বিষয়টা সত্যি অনেক জরুরি। তাই মাথায় রাখবেন।

এছাড়াও আপনার জিমেইল থেকে সব লগ আউট করে ফেলবেন মানে যেসব ডিভাইসে লগ ইন করেছিলেন। ফোন নাম্বার এর সাথে আপনি স্ক্রিন লক যুক্ত করে দিতে পারেন। এর ফলে সুরক্ষা আরও বেড়ে যাবে।

আজকের আর্টিকেলটিতে আমরা জানলাম জিমেইল পাসওয়ার্ড চেঞ্জ কিভাবে করতে হয়। জিমেইল পাসওয়ার্ড চেঞ্জ এর পাশাপাশি যে জিনিসটি আমাদের আলোচনার কেন্দ্র বিন্দুতে ছিল তা হলো জিমেইল পাসওয়ার্ড ভুলে গেছি কি করব এই প্রশ্ন এর উত্তর খোঁজা। আশা করি যারা যারা এই দ্বিধাদ্বন্দে ছিলেন তারা অবশ্যই পরিত্রাণ পেয়েছেন। সেই সাথে এমনি টেক রিলেটেড পোস্ট পেতে আমাদের সাথেই থাকুন। এবং পরবর্তী পোস্ট সবার আগে পেতে সাবস্ক্রাইব করে রাখুন।

আরও পড়ুন

Leave a Comment

Share via
Copy link
Powered by Social Snap