সোশ্যাল মিডিয়া মার্কেটিং কি ? কিভাবে এবং কেন করবেন [Details 2020]

Social media marketing: বর্তমান সময়ের সময়ের সাথে তাল মিলিয়ে লোকাল মার্কেটিং যেরকম ভাবে জনপ্রিয়তা পাচ্ছে তার চেয়ে বেশি জনপ্রিয়তা পাচ্ছে সোশ্যাল মিডিয়া মার্কেটিং। কেননা বর্তমানে মানুষ সোশ্যাল মিডিয়ার দিকে ঝুকে পড়ছে  দিনে দিনে। তাই মার্কেটে সোশ্যাল মিডিয়ায় মার্কেটিং শুরু করে দিয়েছেন আরও অনেক আগে থেকেই। বর্তমানে সোশ্যাল মিডিয়া মার্কেটিং এর চাহিদা মার্কেটপ্লেসে অনেক বেশি।

প্রথমে আমরা জেনে নেবো সোশ্যাল মিডিয়া মার্কেটিং কি? কেন সোশ্যাল মিডিয়া মার্কেটিং করতে হয়? কেন সোশ্যাল মিডিয়া মার্কেটিং শিখব? কোথায় থেকে সোশ্যাল মিডিয়া মার্কেটিং শিখব? সোশ্যাল মিডিয়া মার্কেটিং এ কি কি শিখতে হবে? সোশ্যাল মিডিয়া মার্কেটিং এর ভবিষ্যৎ কেমন? পেশা হিসেবে সোশ্যাল মিডিয়া মার্কেটিং কেমন হবে?

সোশ্যাল মিডিয়া মার্কেটিং
সোশ্যাল মিডিয়া মার্কেটিং

বন্ধুরা এই আর্টিকেলে আমরা উপরের যে প্রশ্নগুলো রয়েছে এর প্রত্যেকটি বিষয় আমরা কিভাবে এবং বিস্তারিত আলোচনা করব।  তো বন্ধুরা চলুন প্রথমে আমরা জেনে নেই সোশ্যাল মিডিয়া মার্কেটিং কি?

সোসাল মিডিয়া মার্কেটিং কি? what is social media marketing

সোশ্যাল মিডিয়া মার্কেটিং হলো বর্তমানে যে সোশ্যাল মিডিয়া (Social Media Marketing) রয়েছে সেখানে আপনার সার্ভিস বা পণ্য টা কে বিজ্ঞাপন বা শেয়ারিং এর মাধ্যমে প্রচার করা কি সোশ্যাল মিডিয়া মার্কেটিং (Social Media Marketing) বলে। সোশ্যাল মিডিয়ার মাধ্যমে আমাদের যে কোন পণ্য বা সার্ভিস খুব সহজেই কাস্টমারের কাছে পৌঁছে দিতে পারি। এর জন্য আমাদের গাড়ি ভাড়া দিয়ে বা পায়ে হেঁটে কোথাও যেতে হয় না শুধুমাত্র কম্পিউটার বা মোবাইল ডিভাইস এ ধরনের ডিভাইস দিয়ে কয়েকটি ক্লিকের মাধ্যমেই সফলভাবে করা সম্ভব।

সোজা ভাবে বললে, সোশ্যাল মিডিয়া মার্কেটিং (SMM) হলো এমন এক টেকনিক বা প্রক্রিয়া, যেখানে বিভিন্ন আলাদা আলাদা Social Media Platform যেমন, Facebook, YouTube, Instagram, LinkedIn এবং আরো অন্যান্য প্লাটফর্ম গুলিতে সক্রিয় থাকা লোকেদের লক্ষ্য (target) করে, পণ্যের গুণমান সচেতনতা (product brand awareness) ছড়ানো হয় বা বিভিন্ন product, service এবং business এর প্রচার (marketing) করা হয়।

কেন সোশ্যাল মিডিয়া মার্কেটিং করতে হয়? Why social media marketing?

সোশ্যাল মিডিয়া মার্কেটিং কেন করতে হয়? বা বর্তমানে লোকাল মার্কেটিং (local marketing) আর সোশ্যাল মার্কেটিং এর মধ্যে পার্থক্য কতটুকু। সোশ্যাল মিডিয়া মার্কেটিং করে কি লাভ হবে হ্যাঁ বন্ধুরা লাভ অবশ্যই হবে, কেননা বর্তমানে সোশ্যাল মিডিয়ায় মানুষের দ্বারপ্রান্তে এমন ভাবে ছড়িয়ে পড়েছে যেন সোশ্যাল মিডিয়া ছাড়া মানুষ কিছুই বোঝে না। তাইতো মানুষ সারাদিন পড়ে থাকে “Facebook“, “Twitter“, “Instagram“, “YouTube” এর মধ্যে। যেহেতু মানুষ সোশ্যাল মিডিয়ার মধ্যে পড়ে রয়েছে আর আপনি যদি সোশ্যাল মিডিয়াতে আপনার পণ্য বা আপনার সার্ভিস টাকে শেয়ার করেন বা সোশ্যাল মিডিয়ার মাধ্যমে কাস্টমারদের কাছে পৌঁছে দেন তাহলে খুব দ্রুত কাস্টমাররা আপনার সার্ভিস সম্পর্কে এবং আপনার প্রোডাক্ট সম্পর্কে জানতে পারবে।  এখন কথা হল সোশ্যাল মিডিয়া মার্কেটিং এবং ডিজিটাল মার্কেটিং (Digital Marketing) এর মধ্যে পার্থক্য কি? হ্যাঁ, পার্থক্য অবশ্যই রয়েছে। সোশ্যাল মিডিয়া এবং ডিজিটাল মার্কেটিং এর মধ্যে পার্থক্য এখানে দেখুন।

আজ অনেক ক্ষেত্রে, এই সোশ্যাল মিডিয়া গুলি, “অনলাইন মার্কেটিং” (online marketing) এর এক অনেক শক্তিশালী মাধ্যম হয়ে দাঁড়িয়েছে। এবং, products, brands, services এগুলির প্রোমোশনের জন্য এদের ব্যবহার হচ্ছে।

সোশ্যাল মিডিয়া মার্কেটিং কোন গুলো?

সোশ্যাল মিডিয়া হচ্ছে এমন কিছু ওয়েবসাইট যেখানে মানুষ সামাজিক যোগাযোগ স্থাপন করে। এবং সেখানে সময় কাটায় বন্ধুদের সাথে আড্ডা দিয়ে বিনোদন করে ভিডিও দেখে এবং গেমস খেলে। জনপ্রিয় কয়েকটি সোশ্যাল মিডিয়া হলোঃ

  • Facebook
  • Twitter
  • Instagram
  • YouTube

কেন সোশ্যাল মিডিয়া মার্কেটিং শিখব? Why learn Social marketing?

সোশ্যাল মিডিয়া মার্কেটিং (Social Media marketing) হচ্ছে ডিজিটাল মার্কেটিং (Digital Marketing) এর একটা পার্টি অংশ। এবং এটাকে আমরা অনলাইন মার্কেটিং (online Marketing) এ বলতে পারি কেননা এর মাধ্যমে আমরা যে কাজটি করি সেটা হলো অনলাইনে সক্রিয় থাকা যে সমস্ত লোকজন বা কাস্টমার (customer) রয়েছে তাদের কাছে আমাদের পণ্য বা আমাদের ব্যবসা কে প্রচার প্রসার করার জন্য বিভিন্ন ধরনের ইমেজ ভিডিও এবং অডিও আপলোড করে থাকি। যাতে কাস্টমাররা এসমস্ত ভিডিও ইমেজ বা অডিও শুনে একটি কোম্পানির প্রোডাক্ট (Product) ব্যবসা (business) সম্পর্কে ধারণা পায়।

এত করে একজনকে তা খুব সহজেই আপনার প্রোডাক্ট কিনতে আগ্রহী হবে এতে আপনার সেল বেশি পরিমাণে জেনারেট হবে এবং এতে আপনি খুব দ্রুত লাভবান হতে থাকবেন এজন্য আমাদের সোশ্যাল মিডিয়ার করা উচিত।

আমরা সোশ্যাল মিডিয়া মার্কেটিং শিখবো মূলত দুটি কারণে|

1। আমাদের নিজের পণ্য বা ব্যবসা কে প্রমোশন করার জন্যঃ

আপনার যদি কোন প্রোডাক্ট বা কোন ব্যবসা থাকে তাহলে আপনার প্রোডাক্ট বা আপনার ব্যবসাকে সোশ্যাল মিডিয়ার মাধ্যমে খুব দ্রুত ছড়িয়ে দিতে পারবেন। আপনার ব্যবসা সম্পর্কে কিছু ডিজাইন করে বা কিছু ভিডিও তৈরি করে সেটাকে, “Facebook“, “Twitter“, “Instagram“, “YouTube” এর মত সোশ্যাল মিডিয়া গুলোতে যত বেশি শেয়ার করবেন আপনার ব্যবসা বা আপনার প্রোডাক্ট সম্পর্কে ক্রেতারা তত বেশি ধারণা পাবে এবং আপনার তত বেশি পণ্য সেল হতে থাকবে।

2। ফ্রিল্যান্সিং করার জন্যঃ

সোশ্যাল মিডিয়া মার্কেটিং (Social Media Marketing) শেখার আরও একটি অন্যতম কারণ হচ্ছে ফ্রিল্যান্সিং (Freelancing) করে টাকা উপার্জন করার জন্য। আপনি যদি একজন দক্ষ মার্কেটার হন তাহলে আপনী বিভিন্ন মার্কেটপ্লেসে কাজ করে প্রতি মাসে আয় করতে পারবেন হাজার হাজার ডলার। তাও আবার ঘরে বসেই। বর্তমানে লক্ষ লক্ষ প্রজেক্ট রয়েছে আপনি চাইলেই সেখান থেকে ফ্রিল্যন্সার হিসাবে কাজ নিয়ে কাজ করতে পারবেন।

সোশ্যাল মিডিয়া মার্কেটিং এর ভ্যালু কেমন?

বর্তমান সময়ে এক কথায় বলতে গেলে সোশ্যাল মিডিয়া মার্কেটিং এর চাহিদা বা গুরুত্ব অনেক বেশি। বিভিন্ন মার্কেটপ্লেসগুলোতে ফ্রিল্যান্সাররা প্রতিনিয়ত কাজ করে আসছে সোশ্যাল মিডিয়ার মার্কেটার হিসেবে। আপনি যদি একজন দক্ষ সোশ্যাল মিডিয়া মার্কেটের হন তাহলে আপনিও কিন্তু খুব ভালো পরিমাণে ইনকাম করতে পারবেন অনলাইন মার্কেটপ্লেস থেকে।

সোশ্যাল মিডিয়া মার্কেটিং এর জন্য জনপ্রিয় কিছু অনলাইন মার্কেটপ্লেস হলোঃ

এছাড়াও আরও অনেক অনলাইন মার্কেটপ্লেস (online Marketplace) রয়েছে যেখানে আপনি চাইলেই সেখান থেকে রেজিস্ট্রেশন করে ফ্রিতে একজন ভাইয়ের কাছ থেকে কাজ নিয়ে একজন ফ্রিল্যান্সার হিসেবে খুব ভালো পরিমাণে ইনকাম করতে পারবেন।

social media marketing
social media marketing

সোশ্যাল মিডিয়া মার্কেটিং এ কি কি শিখতে হবে?

সোশ্যাল মিডিয়া মার্কেটিং (Social Media Marketing) করতে হলে কি কি কাজ শিখতে হবে? প্রথমেই বলে নিচ্ছি সোশ্যাল মিডিয়া হচ্ছে জনপ্রিয় ওয়েবসাইট রয়েছে যেগুলোর মাধ্যমে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম করা যায় এবং সে সমস্ত ওয়েবসাইটগুলোতে বিনোদন এবং পণ্য ক্রয় বিক্রয়ের বিজ্ঞাপন সাপোর্ট করে। সে সমস্ত ওয়েবসাইটগুলো সম্পর্কে ধারণা থাকতে হবে।

সোশ্যাল মিডিয়া মার্কেটিং (Social Media Marketing) করতে হলে বিভিন্ন সোশ্যাল মিডিয়া অনুযায়ী কাজ থাকে। যেমন,

Facebook: ফেসবুকের ক্ষেত্রে ফেসবুকে আপনাকে একটি বিজনেস অ্যাকাউন্ট করতে হবে এবং সেখানে আপনাকে আপনার পণ্যের ক্যাটাগরি হিসেবে একটি পেজ তৈরি করতে হবে। এবং সেখানে আপনার পণ্যের সম্পূর্ণ ধারণা বিশদভাবে বর্ণনা করতে হবে। এবং এটিকে একটি যেসকল কাস্টমার বা ক্রেতার হয়েছে তাদের কাছে শেয়ার করতে হবে।

Twitter: যদি কারো কথা বলা হয় তাহলে এটা কেউ সেই ফেসবুকের মত একই ভাবে ব্যবহার করতে হবে।

Instagram: ইনস্টাগ্রাম যেহেতু ছবি বা ইমেজ রিলেটেড একটি সোশ্যাল মিডিয়া, তাই আপনার পণ্যের ক্যাটাগরি অনুযায়ী খুব সুন্দর ভাবে গ্রাফিক্স ডিজাইন করে আপনার প্রোডাক্ট বা আপনার সার্ভিস বা আপনার পণ্যের মার্কেটিং করতে পারবেন সোশ্যাল মিডিয়া ইনস্টাগ্রামের মাধ্যমে।

YouTube: আপনি যদি ইউটিউব মার্কেটিং করতে চান সেক্ষেত্রে আপনাকে অবশ্যই ভিডিও কনটেন্ট তৈরি করতে হবে। আপনাকে অবশ্যই আপনার পণ্যের বা আপনার সার্ভিসের ক্যাটাগরি অনুযায়ী সকল বর্ণনা বিশদভাবে দিয়ে  ভিডিও তৈরি করতে হবে এবং ভিডিওতে খুব ভালো কোয়ালিটি মেইনটেইন সহ অডিও দিতে হবে। যাতে করে আপনার কাস্টমার বাঁকে তারা খুব সহজেই আপনার পণ্য বা সার্ভিস সম্পর্কে বুঝতে পারে। আপনি যদি ইউটিউবে ভিডিও মার্কেটিং (youtube video marketing) করেন তাহলে আপনি আপনার সেবা বা পণ্য সম্পর্কে একটি ভিডিও একবার আপলোড করলে যতদিন পর্যন্ত সেই ভিডিওটি ইউটিউবে থাকবে ততদিন পর্যন্ত কাস্টমাররা আপনার প্রোডাক্ট সম্পর্কে জানতে পারবে এবং ততদিন পর্যন্ত আপনি সেখান থেকে আপনার কাস্টমার জেনারেট করতে পারবেন।

এছাড়াও আরও অনেক ধরনের সোশ্যাল মিডিয়া রয়েছে সেই সমস্ত সোশ্যাল মিডিয়া তাদেরকে অনুযায়ী তাদের কাজের ধরন অনুযায়ী সেখানে আপনাকে কাজ শিখতে হবে এবং কাজ করতে হবে।

সোশ্যাল মিডিয়া কোথায় থেকে শিখব?

আপনি যদি মিডিয়া মার্কেটিং শিখতে চান সেক্ষেত্রে আপনি চাইলে অনলাইনে বিভিন্ন ভিডিও দেখে এবং অনলাইন থেকে বিভিন্ন রিচার্জ করে সেখান থেকে শিখতে পারবেন।

এছাড়াও আপনি চাইলে আপনার নিকটস্থ কোন ট্রেনিং সেন্টারে গিয়ে কিন্তু আপনার সোশ্যাল মিডিয়া মার্কেটিং শিখতে পারবেন। এজন্য আপনাকে প্রতি কোর্সের বিপরীতে 5 হাজার টাকা থেকে শুরু করে 30 হাজার টাকা পর্যন্ত খরচ লাগতে পারে।

সোশ্যাল মিডিয়া মার্কেটিং এর কয়েকটি সুবিধা হলোঃ benifitsof social marketing

একবার লক্ষ্য করে দেখুন বর্তমানে একজন ছাত্র থেকে শুরু করে একজন বয়স্ক বিজনেসম্যান পর্যন্ত সোশ্যাল মিডিয়ার সাথে জড়িত। আপনি যদি আপনার পণ্যের মার্কেটিং সোশ্যাল মিডিয়ায় করেন তাহলে আপনার পণ্য কতটুকু পর্যন্ত দেয়া সম্ভব আপনি ভাবুন।

এক কথায় বলতে গেলে সোশ্যাল মিডিয়ার মাধ্যমে ঘরে বসেই লক্ষ-লক্ষ ক্রেতাদের কাছে আমাদের পণ্য বা বিজনেস সম্পর্কে মার্কেটিং করতে পারি মুহূর্তেই।

আমি সোশ্যাল মিডিয়া মার্কেটিং (Social Media Marketing) এর সুবিধা সম্পর্কে বেশ কিছু সুবিধা আলোচনা করলামঃBenefits of social media advertisements or marketing

১. ঘরে বসেই যে কোন জিনিসের promotion সম্ভব :

সোশ্যাল মিডিয়ার মাধ্যমে আপনি আপনার পণ্য বা ব্যবসা সম্পর্কে ঘরে বসেই লক্ষ লক্ষ লোকের কাছে মার্কেটিং করতে পারবেন। আপনার পণ্য যে রকমই হোক একজন ক্রেতা আপনার পণ্য কিংবা না কেন আপনার পণ্য সম্পর্কে বিশদ ধারণা পাবে সোশ্যাল মিডিয়ার মাধ্যমে। এত করে আপনার মনটা খুব দ্রুত মার্কেটে ছড়িয়ে পড়বে এবং কাস্টমারের কাছে চাহিদা বাড়বে।

বর্তমানে দেখা যাচ্ছে বিভিন্ন ব্যবসায়ীরা বিভিন্ন ধরনের পণ্য ক্রয় করে ঘরে বসেই সোশ্যাল মিডিয়া মার্কেটিং এর মাধ্যমে বিভিন্ন জায়গায় বিক্রি করছে এবং সেগুলো বিভিন্ন মাধ্যমে বিভিন্নভাবে পার্সেল করে দিচ্ছে। এবং এটি একটি লাভজনক ব্যবসা।

২. কম খরচে বিজ্ঞাপন paid advertisement :

সোশ্যাল মিডিয়া মার্কেটিং এ আপনি চাইলে খুব অল্প খরচে পেইড বিজ্ঞাপন দিতে পারবেন। যেটা অন্য কোন ভাবে দেওয়া সম্ভব নয়। আপনি আপনার বিজ্ঞাপনটি এক লক্ষ মানুষের কাছে পৌঁছে দেওয়ার জন্য নরমালি যতটুকু খরচ হবে সোশ্যাল মিডিয়ার মধ্যে এক লক্ষ লোকের কাছে আপনার বিজ্ঞাপনটি পৌঁছাতে তার দশ ভাগের এক ভাগ খরচ হবে। এবং আপনি চাইলে ফ্রিতে ও লক্ষ লক্ষ লোকের কাছে আপনার বিজ্ঞাপনটি পৌঁছাতে পারবেন।

অর্থাৎ সোশ্যাল মিডিয়া মার্কেটিং এর মাধ্যমে আপনি ফ্রিতে বা অল্প খরচে খুব সহজে আপনার পণ্যের প্রচার প্রসার বা প্রমোশন করতে পারছেন।

৩. Targeted promotion বা marketing :

সোশ্যাল মিডিয়ার মাধ্যমে আপনি আপনার টার্গেটেড কাস্টমারদের কে টার্গেট করে আপনার বিজ্ঞাপনটি পৌছে দিতে পারবেন খুব সহজেই। যেটা সরাসরি মার্কেটিং এ কোন ভাবেই সম্ভব নয়।

আপনার সাথে সরাসরি মার্কেটিং করেন এবং আপনার পণ্যটি 500 জন লোকের কাছে পৌঁছে দেন সেখান থেকে আপনার পণ্যটি বিক্রি হওয়ার চান্স হলো 30 টি। কিন্তু যখন আপনি কোন কাস্টমারকে টার্গেট করে আপনার পণ্যের বিজ্ঞাপন তাদের কাছে পৌঁছাবেন সেক্ষেত্রে প্রতি 500 থেকে আপনার পণ্য সেল হবে 70 টি। সুতরাং বুঝতেই পারছেন সরাসরি মার্কেটিং এর চেয়ে সোশ্যাল মিডিয়া মার্কেটিং করে আমাদের পণ্য বিক্রয় করা সম্ভব।

৪. সহজেই ভোক্তা (consumer) বা ক্রেতা (Buyer) পাবেন :

সোশ্যাল মিডিয়া মার্কেটিং এর মাধ্যমে খুব সহজেই ক্রেতা পাওয়া সম্ভব। যেটা সরাসরি মার্কেটিং এর মাধ্যমে সম্ভব নয়। কেননা যখন আপনি সোশ্যাল মিডিয়া মার্কেটিং এ টার্গেটেড কাস্টমারদের কে টার্গেট করবেন তখন শুধুমাত্র আপনার বিজ্ঞাপন বা আপনার পণ্যের লিংকটি যারা এই সমস্ত প্রোডাক্ট খুজছেন তাদের প্রোফাইলে দেখাবে। তাহলে বুঝতে পারছেন সেখানে আপনার পণ্য সেল হওয়ার সম্ভাবনা অনেক বেশি। যেটা সরাসরি মার্কেটিং করে কোনোভাবেই সম্ভব নয়।

৫. কোন ব্রান্ডিং প্রমোশন করাঃ

সোশ্যাল মিডিয়ার মাধ্যমে একটি কোম্পানির ব্র্যান্ড বা প্রোডাক্টকে যত দ্রুত প্রমোশন করা সম্ভব সরাসরি একটি কম্পানির প্রডাক্ট বা ব্র্যান্ডকে প্রসার করা কোনভাবেই সম্ভব নয়। সুতরাং সোশ্যাল মিডিয়ার মাধ্যমে কোন ব্রেইনকে খুব দ্রুত মার্কেটে প্রসার করা সম্ভব।

৬। ঘরে বসেই মার্কেটিংঃ

সোশ্যাল মিডিয়া মার্কেটিং মূলত ঘরে বসেই করা সম্ভব এতে করে আপনার সময় এবং বিভিন্ন খরচ বেঁচে যাবে। আপনার যদি এই মার্কেটিং টি সরাসরি করতে হতো তাহলে হয়তোবা এই মার্কেটিং এর জন্য বিভিন্ন জায়গায় আপনাকে যেতে হতো বিভিন্ন কি আপনাকে হায়ার করতে হতো সেক্ষেত্রে আপনার অনেক টাকা খরচ হয়ে যেত এবং যাতায়াত খরচ হতো কিন্তু সোশ্যাল মিডিয়ায় মার্কেটিং করলে আপনার এই সমস্ত খরচ থেকে বেঁচে যাবেন।

৭। ফ্রিল্যান্সিং এ সোশ্যাল মিডিয়া

আপনি চাইলে সোশ্যাল মিডিয়া মার্কেটিং শিখে বিভিন্ন মার্কেট থেকে ফ্রিল্যান্সিং করতে পারবেন। এবং তাও আবার ঘরে বসেই।

মোটকথা বর্তমানে দেশে বিদেশে যত বড় বড় কোম্পানি প্রোডাক্ট আছে তারা সবাই সোশ্যাল মিডিয়ার মাধ্যমে তাদেরকে কাস্টমারের কাছে পৌঁছে দিচ্ছে এবং তাদের ব্র্যান্ড কে প্রমোশন করছে।

পেশা হিসেবে সোশ্যাল মিডিয়া মার্কেটিং কেমন হবে?

এতক্ষণে আপনি বুঝতে পারছেন সোশ্যাল মিডিয়া মার্কেটিং কি কিভাবে কাজ করে এবং কি করতে হয় এবং এর দ্বারা কি কি সম্ভব। আপনি যদি সোশ্যাল মিডিয়া মার্কেটিং করতে চান বা শিখতে চান তাহলে অবশ্যই আমি মনে করি পেশা হিসেবে সোশ্যাল মিডিয়া মার্কেটিং খুব ভালো পর্যায়ে এবং খুব ভালো সিদ্ধান্ত হবে।

কেননা আপনি চাইলেই সোশ্যাল মিডিয়ার মাধ্যমে আপনার নিজস্ব পণ্য বা প্রোডাক্ট অথবা আপনার ব্যবসাকে প্রচার-প্রসার করতে পারবেন এছাড়াও সাথে সাথে আপনি বিভিন্ন মার্কেটপ্লেস থেকে সোশাল মিডিয়া মারকেটিং করে ফ্রিল্যান্সিং করে ঘরে বসে লক্ষ লক্ষ টাকা ইনকাম করতে পারবেন।

এক কথায় বলতে গেলে পেশা হিসেবে সোশ্যাল মিডিয়া মার্কেটিং এর চাহিদা ব্যাপক।

সবশেষে আমাদের পরামর্ষঃ

সবশেষে বলতে গেলে সোশ্যাল মিডিয়া মার্কেটিং হল একটি যুগান্তকারী মার্কেটিং পদ্ধতি, যেখানে অল্প খরচে এবং ফ্রিতে একটি পণ্যের বিজ্ঞাপন দেয়া যায় এবং লক্ষ লক্ষ মানুষের কাছে একটি অফার বা পণ্য পৌঁছে দেয়া সম্ভব। এবং পাশাপাশি সোশ্যাল মিডিয়া মার্কেটিংএ একজন দক্ষ সোশল মেডিয়া মার্কেটার হতে পারলে বিভিন্ন মার্কেটপ্লেস থেকে প্রতি মাসে লক্ষ লক্ষ টাকা ইনকাম করা সম্ভব।

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Scroll to Top