ফ্রিতে ব্যবহার করুন ৫ টি ইউটিউব মার্কেটিং টুলস

বর্তমান সময়ে সবচেয়ে বড় ভিডিও শেয়ারিং প্লাটফর্ম হলো ইউটিউব। আর এই ইউটিউব এর মাধ্যমে লোকেরা নিজের চ্যানেল তৈরি করে প্রতিনিয়ত ভিডিও আপলোড করে যাচ্ছে।

ফ্রিতে ব্যবহার করুন ৫ টি ইউটিউব মার্কেটিং টুলস
ফ্রিতে ব্যবহার করুন ৫ টি ইউটিউব মার্কেটিং টুলস

আর উক্ত ভিডিও গুলো আপলোড করে টাকা আয় করছেন। এমন অনেক কোম্পানি আছে যারা। তাদের ব্যবসা প্রচার করার জন্য ইউটউব এর মাধ্যমে মার্কেটিং করছেন।

তাই একজন ইউটিউবার হিসেবে ইউটিউব মার্কেটিং টুলস এর বিষয়ে ধারণা থাকা আবশ্যক। ইউটিউবে শুধু ভিডিও আপলোড করে কোন লাভ হয় না।

শুধু ভিডিও আপলোড করলেই ভিডিওতে কোন ভিডিও হবে না। তার জন্য আপনাকে অবশ্যই ইউটিউবে মার্কেটিং করতে হবে।

অনলাইনে এমন অনেক সংখ্যক ইউটিউব মার্কেটিং এর জন্য অনেক টূলস রয়েছে। কিন্তু সব গুলো মার্কেটিং টুলস আপনি ফ্রিতে ব্যবহার করতে পারবেন না। যারা নতুন ইউটিউবার তাদের পক্ষে পেইড ভাবে টুলস ব্যবহার করা সম্ভব হবে না।

তাই আজ এই আর্টিকেল আপনাকে জানাতে যাচ্ছি ফ্রিতে ব্যবহার করা যাবে যে ইউটিউব মার্কেটিং টুলস গুলো সেই সম্পর্কে।

আপনি যদি ইউটিউবিং সফলতা পেতে চান। তাহলে আপনাকে অবশ্যই ইউটিউব মার্কেটিং করতে হবে। আর তাই আমাদের পোস্ট থেকে পুরো তথ্য পেতে শেষ পর্যন্ত অনসুরণ করুন।

ইউটিউব মার্কেটিং টুলস

আমরা আগেই বলেছি আপনি যদি ইউটিউবিং করেন তাহলে আপনার অবশ্যই ইউটিউব মার্কেটিং টূলস ব্যবহার করতে হবে।

তাই এই আর্টিকেলে আপনার জন্য জনপ্রিয় 5 টি ইউটিউব মার্কেটিং টুলস সম্পর্কে জানাব। আপনি উক্ত টুলস গুলো একদম ফ্রিতে ব্যবহার করতে পারবেন।

তো চলুন ইউটিউব মার্কেটিং টুলস সম্পর্কে বিস্তারিত জেনে নেওয়া যাক। যেমন-

See More:

1. Google Trends | ইউটিউব মার্কেটিং টুলস

বর্তমান সময়ে যারা ইউটিউব এর সাথে যুক্ত তরা তারা সকলেই গুগল ট্রেন্ডস এর ব্যবহার করেছেন। গুগল ট্রেন্ডস অনেক গুরুত্বপূর্ণ একটি ইউটিউব মার্কেটিং টুলস। উক্ত টুলস এর মাধ্যমে বোঝায় যায় বর্তমানে কোন বিষয়টি নিয়ে লোকেরা ইউটিউবে সার্চ করে।

আর আপনি যখন সব থেকে বেশি সার্চ করা বিষয় নিয়ে ভিডিও বানাবেন তখন সেটি দ্রুত আপনার ভিউ হবে এবং দ্রুত ভাইরাল হবে।

গুগল ট্রেন্ডস থেকে ভিডিও আইডিয়া নিয়ে কাজ করলে আপনি ভিডিও গুলো দ্রুত ভিউ বাড়াতে পারবেন। তাছাড়া আপনার ভিডিও কনটেন্ট আইডিয়া পাবেন। এই গুগল ট্রেন্ডস এর মাধ্যমে। গুগল ট্রেন্ডস ব্যবহার করার কিছু সুবিধা হলো-

  • জনপ্রিয় কিওয়ার্ড নির্বাচন করা যায়।
  • নতুন ট্রেন্ডস সম্পর্কে জানা যায়।
  • বিভিন্ন দেশের জনপ্রিয় কিওয়ার্ড সম্পর্কে আইডিয়া পাওয়া যায়।
  • প্রতি বছর এর জনপ্রিয় কিওয়ার্ড ‍গুলোর বিষয়ে জানা যায়।

Google Trends – টুলস লিংক

2. VidiQ | ইউটিউব মার্কেটিং টুলস

VidiQ এটি হলো ইউটিউব এর সার্টিফাইড টুলস। এটি জনপ্রিয় ও কার্যকরী একটি টুলস। ইউটিউব ভিডিও বা চ্যানেল নিয়ে আপনি যদি বিস্তারিত রিসার্চ করতে চান। তাহলে উক্ত টুলস এর কোন তোলনা হয় না।

উক্ত টুলস আপনার নিজের চ্যানেল বা ভিডিও তথ্য দেখানোর পাশাপাশি অন্যান্য চ্যানেলের বা ভিডিও তথ্য গুলো  দেখিয়ে থাকে।

উক্ত টুলসটি আপনি ইউটিউব এর জন্য একেবারে ফ্রিতে ব্যবহার করতে পারবেন। তবে এখান থেকে অতিরিক্ত কিছু সুবিধা ভোগ করতে চাইলে আপনাকে পেইড ভাবে টাকা দিয়ে কিনে ব্যবহার করতে হবে। এই VidiQ টুলস ব্যবহার করে যে সুবিধা পাবেন সেগুলো হলো-

  • ইউটিউব ভিডিও টপিক রিসার্চ করতে পারবেন।
  • কোন কিওয়ার্ড কত নম্বরে র‌্যাঙ্ক আছে সেটি জানতে পারবেন।
  • সোশ্যাল মিডিয়া শেয়ার। এসইও, ভিডিও অপটিমাইজেশন, ট্যাগসহ সকল তথ্যের স্কোর জানতে পারবেন।
  • আপনার কোন প্রতিদ্বন্দ্বী আছে কিনা সেটি জানতে পারবেন।
  • ইউটিউব ট্রেন্ডস গুলো জানতে পারবেন।
  • রিয়েল টাইম স্ট্যাটাস চ্যানেল অডিট থাম্বনেইল জেনারেটসহ ইত্যাদি তথ্য জানতে পারবেন।

VidiQ –  টুলস লিংক

3. KeywordTool | ইউটিউব মার্কেটিং টুলস

আপনি যদি ইউটিউব ফ্রি কিওয়ার্ড রিসার্চ করতে চান। তাহলে আপনার জন্য KeywordTool অনেক জরুরী। উক্ত টুলস এর বিশেষ গুণ আছে। এর মধ্যমে বাংলা কিওয়ার্ড রিসার্চ করা যায়। তাছাড়া উক্ত টুলস এর মাধ্যমে লং টেইল কিওয়ার্ড রিসার্চ করতে পারবেন।

উক্ত কিওয়ার্ড টুলস ইউটিউব এর জন্য আপনাকে সঠিক কিওয়ার্ড সিলেক্ট করতে সাহায্য করবে। শুধু ইউটিউব এর জন্য আলাদা কিওয়ার্ড রিসার্চ করার সুবিধা আছে এই টুলসে।

KeywordTool – টুলস লিংক

4. Title Maker | ইউটিউব মার্কেটিং টুলস

YouTube ভিডিও তৈরি করার পরে গুরুত্বপূর্ণ একটি কাজ হচ্ছে আকর্ষণীয় টাইটেল ব্যবহার করা। সঠিক ও আকর্ষণীয় টাইটেল ভিডিও এর ভিউ দ্রুত বাড়াতে সাহায্য করে। আর উক্ত টুলস আপনাকে সঠিক টাইটেল সিলেক্ট করতে সাহায্য করবে।

আপনি শুধু এই টুলসে গিয়ে আপনার মুল টপিক দিবেন। তারা আপনাকে সঠিক টাইটেল তৈরি করে দিবেন।

এই টুলস ব্যবহার করা অনেক সহজ। শুরুতে তাদের ওয়েবসাইটে যেতে হবে। তাপরে Enter Your Subject Here বক্সে আপনার টপিক লিখবেন।

মনে করুন আপনার টপিক হলো Youtube এখন এটি লিখে তীর চিহ্নতে ক্লিক করতে উপরে আপনি টাইটেল দেখতে পারবেন। যদিও দুঃখজনক বিষয় হচ্ছে এখানে বাংলা টাইটেল খুজে পাওয়া যাবে না।  ‍শুধু মাত্র ইংরেজি টাইটেল পাবেন।

Title Maker – টুলস লিংক

Canva | ইউটিউব মার্কেটিং টুলস

ইউটিউব ভিডিও বানানোর পরে আরো একটি গুরুত্বপূর্ণ কাজ হচ্ছে থাম্বনেল তৈরি করা। ভালো থাম্বনেল আপনার ভিডিওতে ক্লিক ও ভিউ দুইটি বাড়াতে সাহায্য করে।

তবে অনেক গ্রাফিক্স ডিজাইন বা ফটোশপ ব্যবহারে অনভিজ্ঞ হওয়ার জন্য থাম্বনেইল তৈরি করতে পারে না। যারা থাম্বনেল তৈরি করতে পারেন না।

তাদের জন্য ফ্রি থাম্বনেইল তৈরি করার জনপ্রিয় ওয়েবসাইট বা টুলস হলো ক্যানভা। এখানে কোন প্রকার ডিজাইন অভিজ্ঞতা ছাড়াই আকর্ষণীয় ভাবে ইউটিউব থাম্বনেল তৈরি করতে পারবেন।

Canva.com – টুলস লিংক

See more: 

শেষ কথাঃ

তো বন্ধুরা আপনি যদি একজন ইউটিউবার হয়ে থাকেন। তাহলে আপনার জন্য উক্ত 5 টি ইউটিউব মার্কেটিং টুলস অনেক গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করবে।

যা ব্যবহার করে আপনি সহজেই আপনার ইউটিউব ভিডিও ভাইরাল করতে পারবেন। আর আপনার চ্যানেলে হিউজ পরিমানের ভিউ নিয়ে আসতে পারবেন। যদি উক্ত টুলস গুলো ব্যবহার করে ইউটিউবে কাজ করেন।

আমাদের দেওয়া আর্টিকেল আপনার কাছে কেমন লাগলো অবশ্যই কমেন্ট করে জানাবেন। আর এই ওয়েবসাইট থেকে ইউটিউব সম্পর্কে সকল তথ্য পেতে ভিজিট করুন ধন্যবাদ।

আরও পড়ুন

Leave a Comment

Share via
Copy link
Powered by Social Snap