কোন সফটওয়্যার দিয়ে টাকা ইনকাম করা যায় | জেনেনিন এখানে

বর্তমানেঅনলাইন থেকে আয় করার প্রচুর উপায় রয়েছে। লোকেরা যে মাধ্যম গুলো ব্যবহার করে নিজের ঘরে বসে টাকা আয় করে যাচ্ছে।

কোন সফটওয়্যার দিয়ে টাকা ইনকাম করা যায় | জেনেনিন এখানে
কোন সফটওয়্যার দিয়ে টাকা ইনকাম করা যায় | জেনেনিন এখানে

আপনিও হয়তো অন্যদের মতো অনলাইন আয় করতে আগ্রহী। আমরা আগেই বলেছি অনলাইনে আয় করার অসংখ্য সেক্টর আছে। উক্ত মাধ্যম গুলোর মধ্যে সবচেয়ে জনপ্রিয় ও সহজ কাজ হলো সফটওয়্যার দিয়ে টাকা ইনকাম।

আপনি যদি সফটওয়্যার দিয়ে টাকা আয় করতে চান।তাহলে আপনাকে অবশ্যই কাজ শিখতে হবে। তারপরে টাকা আয় করার শুধু করতে পারবেন। তবে সফটওয়্যার দিয়ে টাকা আয় করার জন্য আপনার কোন পূর্ব অভিজ্ঞতা প্রয়োজন পড়বে না।

আপনি খুব সহজেই অল্প দিনের মধ্যেই টাকা আয় করতে পারবেন। অনেক লোকের প্রশ্ন হতে পারে যে কোন সফটওয়্যার বা অ্যাপ দিয়ে টাকা আয় করা যায়।

আপনি যদি সফটওয়্যার দিয়ে টাকা আয় করতে চান। তবে এই আর্টিকেল আপনার জন্য অনেক হেল্পফুল হবে। তার কারণ এই পোস্টে আপনাদের সাথে এমন কিছূ সফটওয়্যারের বিষয়ে বলব যে গুলেঅ দিয়ে নিজের ঘরে বসে টাকা ইনকাম করতে পারবনে।

তো চলুন সময় নষ্ট না করে জেনে নেওয়া যাক কোন সফটওয়্যার দিয়ে টাকা ইনকাম করা যায়।

কোন সফটওয়্যার দিয়ে টাকা ইনকাম করা যায়

আপনাদের সাথে এমন কিছু সফটওয়্যার এর সাথে পরিচয় করাব যে সফটওয়্যারের মাধ্যমৈ আপনি সহজেই অনলাইনে টাকা আয় করতে পারবেন। আমরা অনেক কয়েকটি সফটওয়্যার এর নাম প্রস্তুত করেছি।

কিন্তু অনেকের প্রশ্ন হতে পারে যে, উক্ত সফটওয়্যার গুলো দিযে টাকা আয় করা যায় তার প্রমান কি? সেই ক্ষেত্রে আপনি উত্তর জানতে সরাসরি ইউটিউব চ্যানেলে সার্চ করে জেনে নিতে পারবেন। ইউটিউবে সার্চ করার পরে আপনাকে সফটওয়্যার গুলোর বিস্তারিত ধারণা প্রদান করে থাকে।

তো চলুন সময় নষ্ট না করে জেনে নেওয়া যাক কোন সফটওয়্যার দিয়ে টাকা ইনকাম করা যায়।

আরো দেখুনঃ

Larger tasks | টাকা আয় করার সফটওয়্যার

Larger Tasks, আমরা সকলেই গিগ সমন্ধে জানি। বিভিন্ন ফ্রিল্যান্সর ওয়েবসাইটে গিগ তৈরি করা হয়ে থাকে। আপনার সার্ভিস কে অনলাইনের সব শেষে তুলে ধরা হয়। এবং পরবর্তীতে যে সকল মানুষ আপনার কাছে সার্ভিস এর জন্য চলে আসবে। তাদেরকে সার্ভিস দেওয়ার মাধ্যমে উক্ত সফটওয়্যার দিয়ে টাকা আয় করতে পারবেন।

ক্যাশব্যাক | টাকা আয় করার সফটওয়্যার

বর্তমান সময়ে ক্যাশব্যাক এর অনেক অ্যাপ আছে। যে গুলো ব্যবহার করে বিভিন্ন পণ্য ক্রয় করার সময় ক্যাশব্যাক পেয়ে যাবেন।

আমরা অনেক সময় প্রয়োজনীয় পণ্য গুলো অনলাইন থেকে কেনাকাটা করি। সেটি আমাজন, দারাজ বা আলিবার মতো শপিং ওয়েবসাইট থেকে।

যে কোন মার্কেটপ্লেস থেকেই করি না কেন যদি কিছু অ্যাপের সাথে যুক্ত থেকে আমরা কাজ করি তাহলে সেই সকল অ্যাপ ব্যবহার করে বিভিন্ন কুপন কো নেওয়া যায়।

সেই গুলা দিয়ে আমরা বিভিন্ন অনলাইন শপিং এ ভাল ডিসকাউন্ট বা ক্যাশব্যাক পেয়ে থাকি। এটিও একটি জনপ্রিয় টাকা আয় করার অ্যাপ। এখানে আপনি ছোট ছোট টাস্ক পুরণ করে অনলাইন টাকা ইনকাম করতে পারবেন।

Lucktastic | টাকা আয় করার সফটওয়্যার

Lucktastic  সফটওয়্যার দিয়ে ফ্রি স্ক্র্যাচ তৈর, অনলাইন গেম খেলে টাকা ইনকাম করা যায়। ম্যাগাজিন সাবস্ক্রাইব করা যায়।

এছাড়া ইংরেজি ম্যাগাজিন, পত্রিকা পড়েও টাকা ইনকাম করা যায়। উক্ত অ্যাপটি আপনি বাংলাদেশ থেকে সহজেই ব্যবহার করতে পারবেন আর অনলাইনে ভাল টাকা উপার্জন করতে পারবেন।

Checkout 51 | টাকা আয় করার সফটওয়্যার

Checkout51 অ্যাপে ফ্রিতে কুপন এবং ক্যাশব্যাক প্রদান করা হয়। বিভিন্ন পণ্য সংগ্রহ করার জন্য সবচেয়ে জনপ্রিয়।

এখান থেকে বিভিন্ন অনলাইন এপ্লিকেশনে ভালো মতো ছাড় নেওয়া যায় এছাড়া সেখান থেকে টাকা সঞ্চয় করা যায়।

Gigwalk | টাকা আয় করার সফটওয়্যার

Gigwalk এর কাজ বিভিন্ন গিগ তৈরি করা বা শেয়ার করে বা বিভিন্ন সার্ভিস প্রদান করার মাধ্যমে এখানে টাকা ইনকাম করা সম্ভব। আপনার যদি সার্ভিস কেউ গ্রহণ করে তাহলে সেখান থেকে আপনাকে টাকা প্রদান করা হবে।

Money Machine | টাকা আয় করার সফটওয়্যার

Money Machine অ্যাপটি অন্যান্য জরিপ করার অ্যাপ গুলোর মতো। এটি মূলত জরিপ পূর্ণ করে টাকা ইনকাম করা যায় বেশি। কিন্তু ভিডিও দেখে, ছোট ছোট অফার পূরণ করে অনলাইন টাকা আয় করা যায়।

আপনি যখন কোন একটি অফার পূরণ করবেন সেই সময় সাথে সাথে আপনাকে জানিয়ে দেওয়া হবে। তারপরে নির্দিষ্ট এমাউন্ট জমা হয়ে গেলে আপনার পেপাল একাউন্ট এর মাধ্যমে উত্তলণ করতে পারবেন।

আপনার যদি পেপাল একাউন্ট না থাকে তাহলে আমাদের সাইটে পেপাল একাউন্ট খোলার একটি লিংক শেয়ার করা আছে। সেই পোস্ট পড়ে সহজেই নিজের নামে একটি পেপাল একাউন্ট তৈরি করে নিতে পারবেন।

আরো দেখুনঃ

My Points | টাকা আয় করার সফটওয়্যার

My Points একটি জনপ্রিয় রিওয়ার্ড ওয়েবসাইট। এখানে সাইট আপ করার বোনাস প্রদান হয় প্রায় দশ ডলার।

ডলার যদি সাইন আপ বোনাস দেওয়া হয় পরবর্তী সময়ে আরো দশ ডলার কাজ করে অর্জন করলে আপনি বিশ ডলার যে কোন সময় উত্তলণ করতে পারবেন আপনার গিফট কার্ড এর মাধ্যমে।

এখানে কাজ করার বিনিময়ে পয়েন্ট দেওয়া হয়। উক্ত পয়েন্ট গুলো জমা করে তার পরে গিফট কার্ড রেডিম করে নেওয়া যায়। এবং আপনি যদি বাংলাদেশ থেকে কাজ করেন সেক্ষেত্রে BD টাকা রুপান্তর করে উত্তরণ করতে পারবেন।

আপনি যদি টাকা ইনকাম করার সফটওয়্যার খুজে থাকেন। তাহলে উক্ত অ্যাপটি গুগল প্লে স্টোর থেকে সরাসরি ডাউনলোড করুন একদম ফ্রিতে।

Google Opinion Rewards | টাকা আয় করার সফটওয়্যার

Google Opinion Rewards অ্যাপ সম্পর্কে আমরা সকলেই জানি না। এটি গুগল এর নিজস্ব একটি অ্যাপ। এটি ব্যবহার করার জন্য অবশ্যই আমেরিকান সার্ভার এর একটি জিমেইল একউন্ট প্রয়োজন হবে। আপনি যদি চান তাহলে ভিপিএন ব্যবহার করে একটি জিমেইল একাউন্ট তৈরি করে নিতে পারবনে।

Picxele | টাকা আয় করার সফটওয়্যার

বর্তমান সময়ে অনেক লোক আছে যারা মোবাইল দিয়ে এবং ক্যামেরা দিয়ে ছবি তুলতে পছন্দ করেন। আর আমরা যারা ছবি তুলি তাদের ছবি গুলো প্রফেশনাল ফটোগ্রাফারের মতো হয়ে থাকে।

তবে আপনি যদি প্রফেশনাল ভাবে কাজ করার সুযোগ না পান তবে উল্লিখিত অ্যাপটি ডাউনলোড করে নিতে পারেন।

উক্ত অ্যাপ এর মাধ্যমে বিভিন্ন প্রকার ছবি তুলতে পারবেন। এছাড়া ছবি গুলো সেই অ্যাপে আপলোড করতে পারবেন। আপনার ছবি দেখর উপরে ভিত্তি করে আপনি উক্ত অ্যাপ থেকে টাকা ইনকাম করতে পারবেন।

এছাড়া এই অ্যাপটি আপনারা বিভিন্ন ধরণের সুযোগ সুবিধা পেয়ে যাবেন। যে গুলো বাস্তব জীবনে প্রয়োগ করতে পারবেন।

Meesho | টাকা আয় করার সফটওয়্যার

উক্ত অ্যাপ ব্যবহার করে আপনারা এফিলিয়েট মার্কেটার হিসেবে কাজ করতে পারবেন। উক্ত উল্লিখিত অ্যাপ এ আপনারা বিভিন্ন প্রকার বড় কোম্পানির পণ্য গুলো দেখতে পারবেন।

সেই এপস গুলোর মাধ্যমে আপনার রেফারে যদি কোন পণ্য বিক্রি হয় তাহলে আপনি লাভবান হতে পারবেন।

মানে পণ্য বিক্রির উপর নির্ভর করে আপনি অনলাইনে টাকা ইনকাম করতে পারবেন। তার জন্য পণ্য বিক্রি করার জন্য যতটা কৌশলী হতে হবে ঠিক ততটা কৌশলী আপনাকে হতে হবে।

আপনার পণ্য বিক্রির মাধ্যমৈ বাস্তবিক জীবনে সেলপারসেন এর কাজ অনেক সুন্দর ভাবে কনভেন্স করতে পারবেন।

আরো দেখুনঃ

শেষ কথাঃ

তো আজ আমাদের এই পোস্টে জানতে পারলেন কোন সফটওয়্যার দিয়ে টাকা ইনকাম করা যায়। উক্ত অ্যাপ গুলো ব্যবহার করে লোকেরা বাংলাদেশ থেকে প্রচুর টাকা আয় করছে।

আপনিও যদি উক্ত সফটওয়্যার গুলো সম্পর্কে কোন প্রকার সন্দেহ থেকে থাকে। তাহলে সরাসরি গুগলে এবং ইউটিউবের রিভিউ গুলো দেখে নিতে পারেন। তাহলেই বুঝতে পারবেন কোন অ্যাপ দিয়ে কত টাকা আয় করতে পারবেন।

আমাদের দেওয়া আর্টিকেল আপনার কাছে কেমন লাগলো অবশ্যই একটি কমেন্ট করে জানাবেন। আর এই ওয়েবসাইট থেকে নিয়মিত আর্টিকেল পড়তে চাইলে ভিজিট করুন ধন্যবাদ।

আরও পড়ুন

Leave a Comment

Share via
Copy link
Powered by Social Snap