ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইবার বাড়ানোর উপায়

বর্তমান সময়ে সবচেয়ে জনপ্রিয় ভিডিও শেয়ারিং প্লাটফর্ম হলো ইউটউব। আর উক্ত ইউটিউবে ভিডিও আপলোড করে লোকেরা প্রচুর পরিমাণের টাকা আয় করছে।

ইউটিউব চ্যানেলের সাবস্ক্রাইবার বাড়ানোর উপায়
ইউটিউব চ্যানেলের সাবস্ক্রাইবার বাড়ানোর উপায়

আপনিও যদি একজন ইউটিউবার হয়ে থাকেন। তাহলে আপনার ইউটিউব থেকে আয় করার ভিউয়ারস প্রয়োজন হবে।

আর যারা নতুন ইউটিউবার তাদের ভিডিও গুলোতে তেমন ভিউ আসেনা এবং সাবস্ক্রাইবার ও হয় না। আপনার চ্যানেলে যদি সাবস্ক্রাইবার না হয় তাহলে কিন্তু ভিজিটর আপনার ভিডিও গুলা পাবে না।

এছাড়া ইউটিউব এর নীতিমালা অনুযায়ী আপনার চ্যানেলে যদি 1000 সাবস্ক্রাইবার না হয় তাহলে মনিটাইজেশন করতে পারবেন না।

আমি আপনার সুবিধার জন্য এই পোস্টে আপনাকে জানাতে যাচ্ছি ইউটিউব চ্যানেলের সাবস্ক্রাইবার বাড়ানোর উপায় সমূহ নিয়ে।

তাই আপনি যদি ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব বাড়াতে চান। তাহলে নিম্নোক্ত লেখা গুলো শেষ পর্যন্ত মনযোগ দিয়ে পড়ুন।

ইউটিউব চ্যানেল সাবস্ক্রাইবার বৃদ্ধি করার উপায়

আমরা জানি যে সকল ইউটিউব চ্যানেলে বেশি পরিমাণের সাবস্ক্রাইবার থাকে সেই চ্যানেল ব্র্যান্ডরুপে দাড়িয়ে যায়। চার দিক থেকে আয় হতে থাকে সেই সকল ইউটিউব চ্যানেল গুলোতে।

তবে একটি ইউটিউব চ্যানেল রাতারাতি সাবস্ক্রাইবার বাড়ানোর কোন উপায় নাই। কিছু ইউটিউব চ্যানেল এর ভিডিও ভাইরাল হওয়ায় তাদের হয়তো দ্রুত সাবস্ক্রাইব বৃদ্ধি পায়।

তবে এটি কোন পদ্ধতি না। সকল চ্যানেলের জন্য ভাগ্য এমন সুপ্রসন্ন হয় না। কিন্তু কিছু উপায় আছে যে গুলো অবলম্বন করে সাবস্ক্রাইবার বাড়ানো যায়।

আমি এখানে ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইবার বাড়ানোর জন্য কার্যকরী কৌল গুলো সম্পর্কে জানাব। সেই সাথে কিভাবে ইউটিউবে ভিউ ও ভিউয়াস এনগেজমেন্ট বাড়ানো যায় সেই বিষয়েও জানানোর চেষ্টা করব।

তো চলুন বিস্তারিত জেনে নেওয়া যাক। ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইবার বাড়ানোর উপায় সম্পর্কে।

See more:

মানুষ ইউটিউবে কি সার্চ করছে?

ইউটিউব চ্যানেলে ভিডিও আপলোড করার পরে, প্রথম অবস্থায় যদি কেউ ভিডিও গুলা না দেখে তাহলে সাবস্ক্রাইব করবে না। ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইবার বাড়নোর জন্য পূর্বশর্ত ভিডিও ভিউ হতে হবে।

আপনি কিভাবে ইউটিউব ভিডিওতে বেশি ভিউ পেতে পারেন। তার জন্য আপনাকে জানতে হবে ইউটিউব অনুসন্ধানে মানুষ যে বিষয় গুলোর নিয়ে সার্চ করে ও র‌্যাং করছে সেই সকল বিষয় এর উপায় ভিডিও তৈরি করতে হবে।

জনপ্রিয় বিষয় গুলো কিভাবে খুঁজে পাবেন?

বর্তমান সময়ে ফ্রিতে ইউটিউব ভিডিও কিওয়ার্ড রিসার্চ করার অনেক টুলস আছে। যে গুলো ব্যবহার করে, সহজে বর্তমান হট কিওয়ার্ড কোন গুলো সেটি জেনে নিতে পারবেন।

আমরা এই সাইটে জনপ্রিয় কিওয়ার্ড রিসার্চ এর কিছু টুলস নিয়ে একটি আর্টিকেল প্রকাশ করেছি। সেটি পড়ে নিতে পারেন।

আপনি উক্ত কিওয়ার্ড রিসার্চ টুলস গুলো ব্যবহার করেই সহজেই জনপ্রিয় বিষয় গুলো খুজে নিতে পারবেন। সেখান থেকে জেনে নিতে পারবেন আপনার কিওয়ার্ড গুলো কি পরিমাণের সার্চ হয় এবং সার্চ ভলিউম কত ইত্যাদি।

কিন্তু আপনি যদি কিওয়ার্ড গুলোর বিস্তারিত তথ্য জানতে চান। তাহলে আপনাকে পেইড ভাবে কিওয়ার্ড রিসার্চ টুলস কিনে নিয়ে ব্যবহার করতে হবে।

আপনি যদি ইউটিউব এ নতুন হয়ে থাকেন। তাহলে আপনি ফ্রিতে টুলস গুলো ব্যবহার করে কিওয়ার্ড রিসার্চ করতে পারেন।

মোট কথা আপনি যদি কিওয়ার্ড রিসার্চ করে আর্টিকেল লিখেন তাহলে সেগুলো দর্শকরা সার্চ করেই পেয়ে যাবে আর আপনার বেশি বেশি ভিউ হবে আর সাবস্ক্রাইবার বাড়বে।

ইউটিউব চ্যানেলের বিষয়বস্তু ঠিক রাখুন

শুধু মাত্র লোকেরা কোনো কিছু নিয়ে সন্ধান করছে তার মানে এই নয় যে, আপনার এই সম্পর্কে একটি ভিডিও তৈরি করা প্রয়োজন।

মনে করুন একটি ব্লগিং টিউটরিয়াল চ্যানেলে চলমান কোন হট টপিক যেমন- পদ্মা সেতু নিয়ে ভিডিও তৈরি করে আপলোড করা।

তাহলে কিন্তু আপনার ইউটিউব চ্যানেল ক্ষনিকের জন্য ভিউ পারবে। কারণ আপনার চ্যানেলে তৈরি করেছেন ব্লগিং টিউটরিয়াল নিয়ে এখানে যদি আপনি নিউজ করেন তাহলে আপনা ভিডিও গুলো লাগাতার ভিউ হবে না।

আর আপনি নির্দিষ্ট কোন নিশ নিয়ে কাজ করার পরে সেখানে হাবিজাবি বিষয় নিয়ে কাজ করলে আপনার ভিউ হবে না।

ভিডিওতে মানুষ যা খুঁজছে?

আপনার যদি ভিডিওর শিরোনাম/ টাইটেল ব্লগার টু ওয়ার্ড প্রেস হয় এবং আপনার ভিডিওর প্রথম তিন মিনিট যদি Wix, Zoom সম্পর্কে হয়। তাহলে আপনার দর্শক বাউন্স করে চলছে। এবং সাবস্ক্রাইব ও করবে না।

একটি ভাল ইউটিউব ভিডিও হচ্ছে যা দর্শকদের পছন্দ ও প্রয়োজন পূর্ণ করে। উক্ত বিষয় গুলো ভিডিওতে মানুষ খুজে থাকে।

ইউটউব দর্শকরা কি চায় সেটি কিভাবে জানবেন?

কিছূ বিষয় এর জন্য এটি অনেক সহজ। কিভাবে চকলেট কেক তৈরি করবেন। এর মত একটি বিষয় এর মানে হলো চকলেট কেক তৈরির বিষয়ে একটি টিউটরিয়াল চান।

অন্য বিষয় এর জন্য এটি এতটা সহজ না। মনে করুন পিসি ক্রিকেট গেম এ কথা বলা যায়। মানুষের কি রিভিউ দেখতে চান। নাকি গেমের একটি তালিকা বা লাইভ স্ট্রিম গেমপ্লে।

এটি খুজার জন্য ইউটিউবে সেই টপিক লিখে সার্চ করতে হবে। দেখতে হবে সার্চ ফলাফল কোন পার্ট র‌্যাংক করছে।

ইউটিউব যদি একটি নির্দিষ্ট ভিডিও ফর্ম্যাটকে র‌্যাংক করে থাকে যেমন- গেম তালিকা। সেই বিষয় নিয়ে ইউটিউব ভিডিও গুলো পরপর রেংক করছে। আপনার ভিডিও র‌্যাংক করানোর জন্য আপনাকে অবশ্যই প্রায় অনুরুপ কিছু বানাতে হবে।

নির্দিষ্ট সময় পরপর ভিডিও প্রকাশ করুন

ইউটিউব এর পরিসংখ্যানে দেখা গিয়েছে যে সকল চ্যানেলে একটি নির্দিষ্ট সময় পরপর ভিডিও প্রকাশ করা হয়। তাদের ভিউয়ার্স ও সাবস্ক্রাইবার দ্রুত বৃদ্ধি পায়।

সাবস্ক্রাইবার’রা জানে আপনি কখন ভিডিও প্রকাশ করবেন। আপনার প্রতিটি ভিডিও এর জন্য তারা অপেক্ষা করে থাকবে।

নিয়মিত প্রকাশ এর সময়সূচীতে প্রতিশ্রুতি বদ্ধ হওয়ার মানে আপনি আরও ভিডিও তৈরি করতে সক্ষম হবে।

আরো ভিডিও কনটেন্ট মানে আরো ভিউ। মানে আরো বেশি মানুষ আপনার চ্যানেল সাবস্ক্রাইব করবে।

আপনি যদি ইউটিউবে আরো বেশি সাবস্ক্রাইবার পেতে চান। তাহলে প্রকাশনার জন্য সিডিউল করবেন। সাপ্তাহিক, মাসিক যে ভাবে আপনা ইচ্ছা।

অনেক লোক অনিয়মিত ভিডিও প্রকাশ করতে করতে প্রায়শই ভিডিও তৈরি করতে ভুলে যান। পরবর্তী সময়ে ভিডিও দেখতে সাবস্ক্রাইবারদের মাসের পর মাস অপেক্ষা করতে হয়।

যা সাবস্ক্রাইবার এনজেগমেন্ট কমিয়ে দেয়। ভিডিও পাবলিশ সিডিউল তৈরি করলে এরকম সমস্যা থেকে মুক্তি পাবেন। আর বেশি বেশি সাবস্ক্রাইবার পাবেন।

See more:

ইউটিউব প্লেলিষ্ট তৈরি করুন

ইউটিউবে আপনি একটি ভিডিও কে একাধিক প্লেলিষ্ট যুক্ত করতে পারবেন। প্লে লিস্ট গুলো সরাসরি সাবস্ক্রিপশন নিয়ে আসেনা। কিন্তু দর্শকদের একাধিক ভিডিও দেখাতে সাহায্য করে।

এবং ইউজার এক্সপিরিয়েন্স উন্নত করে। এছাড়া আপনার ব্লগে তাদের এনগেজমেন্ট বৃদ্ধি করে। ইউটিউব চ্যানেলে ভিউয়ারস যত বেশে এনগেজ থাকবে তত তারা সাবস্ক্রাইব বাটনে ক্লিক করতে উৎসাহিত হবে।

অন্য সাইটের সাথে ইউটিউব চ্যানেল লিংক তৈরি করুন

ইউটিউব চ্যানেলে বেশি ভিজিটর ও সাবস্ক্রাইব পেতে চাইলে ভিডিও গুলো বেশি বেশি মানুষের কাছে পৌছানো দরকার।

তার জন্য শুধু ইউটিউব গ্রাহকদের উপর নির্ভর করলেই হবে না। আপনার ব্লগের ভিডিও গুলাকে এনগেজন্ট করে লিংক তৈরি করতে হবে।

উক্ত করণে যারা ব্লগিং ও টিউটরিয়াল নিয়ে ভিডিও আপলো করে তাদের ভিডিও ভিউ ও সাস্ক্রাইব বেশি থাকে। তার কারণ তারা দুইটি সাইট, ইউটিউব এবং ওয়েবসাইট থেকে সমান ভাবে ভিজিটর এনগেজ করতে পারে।

See more:

শেষ কথাঃ

উপরিউক্ত উপায় গুলো ছাড়া, আরো অনেক উপায় আছে যে গুলো অনুসরণ করে কাজ করতে পারলে। আপনার ইউটিউব চ্যানেলে বেশি বেশি ভিউ পাবেন। আর দ্রুত ভাবে আপনার চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করতে পারবেন।

আমাদের দেওয়া ইর্টকেল আপনার কাছে কেমন লাগলো অবশ্যই কমেন্ট করে জানাবেন। আর বিশেষ করে একটি শেয়ার করবেন।

tags: ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইবার বাড়ানোর উপায় ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইবার বাড়ানোর উপায় ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইবার বাড়ানোর উপায়

ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইবার বাড়ানোর উপায় ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইবার বাড়ানোর উপায় ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইবার বাড়ানোর উপায়

এছাড়া, এই সাইট থেকে নিয়মিত আর্টিকেল পড়তে চাইলে ভিজিট করুন ধন্যবাদ।

আরও পড়ুন

Leave a Comment

Share via
Copy link
Powered by Social Snap