মোবাইলে গেম খেলে আয় করার কার্যকরি উপায়

মোবাইলে গেম খেলে আয়: মোবাইলে গেম খেলে আমরা আয় করতে পারি। তার জন্য আমাদের গেম বিষয়ে দক্ষতা ও অভিজ্ঞতা থাকতে হবে। দক্ষতা ও অভীজ্ঞতা ছাড়া বাস্তব জীবনে বা কর্মক্ষেত্রে যেমন আপনি টাকা ইনকাম করতে পারবেন না, ঠিক তেমনি কোনো বিষয়ে দক্ষতা ও অভীজ্ঞতা ছাড়া অনলাইন থেকে টাকা আয় করতে পারবেন না।

আপনাদের মধ্যে যারা গেম খেলতে পছন্দ করেন বা গেম খেলার প্রতি আসক্ত রয়েছেন অথবা, শখের বশে গেম খেলেন, তারা গেম খেলাটাকে আয়ের উৎসে পরিণত করতে পারেন। গেম খেলা আমাদের মধ্যে অনেকেরই কাছে খুব শখের একটা কাজ।

সাধাণরত কিশোর কিশোরিরা ও স্কুল কলেজের ছাত্র- ছাত্রীরা গেম খেলতে বেশ পছন্দ করে, তবে বর্তমানে শুধু তারা নয় ছোট থেকে শুরু করে বয়স্ক লোকেরাও আজকাল গেম খেলে থাকে।

আসলে যারা নিয়মিত গেম খেলে, তারা গেম খেলার প্রতি আসক্ত হয়ে পড়ে। গেম খেলার প্রতি অধিক আগ্রহের কারণে একসময় তাদের মধ্যে অনেকেই গেম খেলায় বেশ অভীজ্ঞ হয়ে উঠেছেন, অর্থ উপার্জনের কোনো সহজ উপায় নেই, আপনি যেখানেই কাজ করুন না ক্যান, আপনাকে কষ্ঠ করতে হবে ৷

অনলাইনে আপনি অনেক সময়ই টাকা আয়ের কিছু লোভনীয় উপায় দেখতে পাবেন, এগুলো বিশ্বাস করবেন না ৷ কারণ, কোনো ব্যাক্তি বা প্রতিষ্ঠান আপনাকে দিয়ে কোনো কাজ না করিয়ে টাকা দেবে না ৷ সেজন্য আপনি অনলাইনে সহজে টাকা আয়ের লোভনীয় উপায় দেখলে আপনি সেটাকে মিথ্যে হিসেবে ধরে নিবেন।

গেম খেলে অনলাইন থেকে আয় করার উপায়
গেম খেলে অনলাইন থেকে আয় করার উপায়

অনলাইনের যে মাধ্যম থেকেই আপনি টাকা আয় করুন না কেন, কেউ না কেউ সেই টাকা আপনাকে দিচ্ছে ৷ সেই টাকাটা আর এমনি চলে আসে না বা কেন। আপনি ঠান্ডা মাথায় চিন্তা করুন। যে ঐ ব্যক্তি বা, প্রতিষ্ঠান কেন আপনাকে টাকা দিবে।

অবশ্যই সে আপনার কাছ থেকে কোনো কাজ করিয়ে নিয়ে, আপনার কাছ থেকে সে লাভবান হচ্ছে। বিধায় আপনাকে টাকা দিচ্ছে। অতত্রব, অনলাইনের যে প্লাটফর্মেই আপনি অর্থ উপার্জনের চেষ্টা করুন না কেন, আপনাকে কোনো না কোনো বিষয়ে অভীজ্ঞ ও দক্ষ হতেই হবে ৷

অনলাইনে বিভিন্ন গেম রয়েছে, যা খেলে আমরা্র আয় করতে পারি ৷ কিন্তু এগুলো দিয়ে বেশি দিন আয় করতে পারবেন না৷ দুই-তিন মাসের জন্য সামান্য কিছু টাকা আয় করতে পারবেন হয়তো ৷ এর বেশি কিছু না ৷ মোবাইলে গেম খেলে আয় করতে হলে আপনাকে গেম খেলা শিখে ও খেলার মাধ্যমে গেম খালায় দক্ষ হতে হবে ৷ গেম খেলার প্রতি আগ্রহ
থাকতে হবে ৷

 গেম খেলে অনলাইনে আয় করার জন্য যে বিষয় গুলো  প্রয়োজনীয়

  • গেম খেলার প্রতি আগ্রহ থাকতে হবে ৷
  • গেমে আগ্রহ না থাকলে গেম থেকে আয় করতে পারবেন না ৷
  • ভালো মানের মোবাইল থাক্তে হবে ৷
  • গেম খেলায় অভীজ্ঞ হতে হবে ৷
  • ইন্টারনেট কানেকশন থাকতে হবে ৷
  • ভিডিও এডিটিং জানা থাকলে ভালো ৷
  • ভালো পরিমাণের সময় ব্যয় করতে হবে।

অনলাইনে গেম খেলে আয় করার অনেক উপায় রয়েছে। আপনে যদি ভালো গেমার হয়ে থাকেন, তাহলে আপনি খুব সহজেই অনলাইন থেকে বিভিন্ন ভাবে আয় করতে পাবেন। এতে আপনার আয় এর সময় কম লাগবে, মানে সহজ এ আপনি সবার আগে আগিয়ে জেতে পারবেন। মোবাইলে গেম খেলে আয় এর উপায় গুলো নিয়ে আমরা এখন আলোচনা করবো ৷

ইউটিউবে গেমিং চ্যানেল খুলে আয়

আজকাল মোবাইল এ গেম খেলার সাথে সাথে গেম এর ভিডিও এর চাহিদাও বেড়ে গেছে। তাই, গেম খেলে ইউটিউবে ভিডিও আপলোড করে ইউটিউব থেকে আয় করতে পারবেন ৷ ইউটিউবের মাধ্যমে আপনি খুব সহজেই মোবাইলে গেম খেলে আয়  করতে পারবেন।

ইউটিউবে গামেইং চ্যানেলগুলোর ভিডিও গুলোর মিলিওন মিলিওন ভিউ হয়ে থাকে। অন্যান্য সকল বিষয় এর ইউটিউবারদের মত অত কষ্ট করতে হয় না ৷

আপনি যদি অভীজ্ঞ গেমার হয়ে থাকেন, তাহলে ইউটিউব চ্যানেল খুলে গেমের বিভিন্ন রিভিউ, ইভেন্ট, খেলার লাইভ, চেলেঙ্গ, মজার কিছু ভিডিও তৈরি করে ইউটিউবে আপলোড করে গেম খেলার মাধ্যমে আয় করতে পারেন।

মোবাইলে গেম খেলে আয় এর বড় সুবিধা হচ্ছে যে, ভিডিও বানানোর জন্য আলাদা কোনো কনটেন্ট বানাতে হবে না ৷ আপনার গেম খেলর শখ ও চ্যানেলের ভিডিও বানানো একইসাথে করতে পারবেন ৷ আপনার যদি গেম সমন্ধে ভালো জ্ঞান থাকে, তাহলে আপনি রিভিউ ভিডিও বানিয়ে আপলোড করতে পারেন। রিভিউ ভিডিও বানাতে চাইলে, আপনাকে নিয়মিত নতুন-নতুন গেম সমন্ধে ধারনা রাখতে হবে ও খোজ-খবরও রাখতে হবে।

তবে যেকোন একটা গেম নিয়ে থাকা ভালো। কারণ আপনারা হয়ত জানেন যে বর্তমানে পাবজি ও ফ্রী-ফায়ার এর মত গেম গুলোর চ্যানেল গুলী অনেক তারাতারি ভালো পর্যায় এ আসছে। গেম খেলার সময় আপনি কমেডি করার মাধ্যমে গেমের ভিডিও টি বানাতে পারেন। গেম খেলার সময় গেমের ভিতরের কঠিন-কঠিন ধাবগুলোর ভিডিও তৈরি করে আপলোড করতে পারেন। ইউটিউবে গেমের কঠিন-কঠিন ধাপগুলো প্রচুর পরিমাণে সার্চ করা হয়।

আপনি যদি সঠিকভাবে ধাপগুলো পার করতে পারেন বা কি ভাবে সহজেই পার করা যায় তা বের করতে পারেন, তাহলে আপনি দ্রূতই ভাইরাল হতে পারবেন।

আরও পড়ুন:

ইউটিউবে গেমের ভিডিও সফল ভাবে আপলডের মাধ্যমে আপনে মোটা-মোটি ভালো টাকা আয় করতে পারবেন ৷ বিশ্বের সবচেয়ে বড় গেমিং চ্যানেলের নাম হচ্ছে PewDiePie, এই চ্যানেলের সাবস্ক্রাইব সংখ্যা ১১ কোটি ৷ এটি জনপ্রিয়তার তালিকায় ২য় স্থানে রয়েছে ৷

এই গেমিং চ্যানেলটি শুধুমাত্র গেমিং ভিডিও ইউটিউবে আপলোড করে প্রতি মাসে প্রায় ৫০০,০০০ ইউ এস ডলার আয় করে ৷ ইউটিউবে অনেক জনপ্রিয় গেমিং চ্যানেল রয়েছে আপনিও পারেন এই রকমের চ্যানেল বানাতে।

ওয়েবসাইট তৈরি করে আয়

আপনার নিজের নামে ওয়েবসাইট তৈরি করে গেমের রিভিউ লিখে ব্লগের মাধ্যমে অনলাইন থেকে আয় করতে পারেন ৷ এক্ষেত্রে
আপনাকে গেম সমন্ধে জানতে হবে ও গেমের ভালো-মন্দ দিকগুলো তুলে ধরতে হবে ৷

গেমিং ওয়েবসাইডগুলোতে অনেক ট্রাফিক থাকে। আপনি যদি ভালো গেমার হয়ে থাকেন তাহলে আপনি এই কাজটি সহজেই করতে পারবেন ৷ এক্ষেত্রেও আপনাকে কনটেন্ট রাইটিং সমন্ধে ভালো ধারণা থাকতে হবে ৷ সঠিকভাবে রিভিউ না লিখতে পারলে পাঠক রিভিউ পরতে চাইবেন না।

আপনি চাইলেই আপনার ইউটিউব থেকে আপনার ওয়েবসাইট এতে ভিউ নিতে পারবে। এর ফলে আপনার ওয়েবসাইট এর প্রচার এর সাথে সাথে আপনার ওয়েবসাইট এ ইনকাম বেড়ে যাবে।

এছারা আপনি ওয়েবসাইট খুলে আপনার নিজস্ব কিছু বাজেট রাখতে পারবেন, Coda-Shop এর মত আপনি চাইলেই একটা সাইট বানিয়ে নিয়ে ব্যাবসা বরতে পারবেন। কারন, এ সময় মানুষ গেম খেলার সাথে সাথে গেম এ টাকা খরচ বেশি করে।

যেকোন গেম এ টাকা খরচ এর মাধ্যম আছে, কিন্তু সকল এর কাছে স্তি কেনার মাধ্যম নেই আপনি চাইলেই আপনার ওয়েবসাইট কে ব্যাবসার কাজে লাগাতে পারেন। এতে আপনার বাইরে থেকে কিছু টাকা ইনকাম হবে কারন গুগল আপনাকে অ্যাড-সেন্স এর মাধ্যম এ টাকা দিয়ে থাকে।

গেমিং টুর্নামেন্ট খেলে আয়ঃ

টেকনোলজির উন্নতি সাধনের ফলে অনলাইনে গেম খেলার প্রবনতা বেড়েই চলছে ৷ বর্তমানে অনলাইনে অনেক ধরনের গেম রয়েছে এবং এই গেমগুলো প্রচুর মানুষ খেলছে ৷ গেমগুলো বিভিন্ন সময় টুর্নামেন্ট ছেড়ে থাকে ৷ FREE FIRE, PUBG, Call of duty এবং বাস ড্রাইভ গেম সহ বর্তমানে বিভিন্ন গেমের টুর্নামেন্টের আয়োজন করা হয়।

আপনি যদি অনেক অভীজ্ঞ হয়ে থাকেন, তাহলে টুর্নামেন্ট জিতে গেম খেলার মাধ্যমে আয় করতে পারেন ৷ এক এক টুর্নামেন্ট এ প্রচুর টাকা আয় করা সম্বভ। আমদের এই বাংলাদেশ এ বর্তমানে বাস ড্রাইভ নাবে এক গেম এর প্রচার হয়েছে, এই গেম এর লাইভ প্লে তে ১০ মিলিওন এর বেশি লোক দেখে। আপনি টুর্নামেন্ট এ অংশ নিয়ে ভিডিও বানালেও আপনার ইউটিউব থেকে আয় হবে। অথাৎ, মোবাইলে গেম খেলে আয় করতে গিয়ে আপনার সব দিক থেকেই আয় করা সম্বভ।

Twitch-এ গেম খেলার ভিডিও বানীয়ে আয়

Twitch এ গেমিং এর বিভিন্ন অংশ আপলোড করা যায়। ইউটিউবে ভিডিও বানাতে পারলে আপনি সহজেই Twitch এ গেমের ভিডিও আপলোড করে আয় করতে পারবেন ৷ Twitch এ ভিডিও মনিটাইজ করা অনেক সহজ ৷

এই ওয়েবসাইটটি গেমের লাইভ স্ট্রিমিং এর জন্য অনেক জনপ্রিয় ৷ এখানে আপনি অনেক গেমারের সাথে পরিচয় হতে পারবেন ৷ এই ওয়েবসাইটটি থেকে আপনি খুব কম সময়েই আয় করা শুরু করতে পারবেন, যদি আপনে অভীজ্ঞ হয়ে থাকেন ৷

গেম টেষ্ট করে আয়

গেম কোম্পানিগুলো নতুন গেম নামানোর আগে গেমের ভুল ও সমস্যাগুলো বের করবার জন্য গেমিটিকে টেষ্ট করানো হয় ৷ যাতে তারা সমস্যাগুলোর সমাধান করে গেমটাকে ভালো ও সকলের পছন্দের করে তুলতে পারে ৷ আপনি অধিক দক্ষ ও অভিজ্ঞ হয়ে থাকলে আপনি গেম টেষ্টার হিসেবে কাজ করে আয় করতে পারেন ৷ এই কাজ আপনি চাইলেই করতে পারবেন না।

গেম  টেষ্টার হতে হলে আপনাকে অনেক ধরনের গেম ও গেমের ফিচার সমন্ধে জানতে হবে। এক্ষেত্রে আপনাকে নিক্ষুত ভুল গুলোকে খুজে বের করতে হবে ৷

আপনি চাইলেই গেই এর খুঁটিনাটি গুলো গেম কোম্পানি গুলোকে ধরিয়ে দিয়ে টাকা আয় করতে পারবেন। শুধু মাত্র  মোবাইল ব্যাবহার করে আপনি টাকা আয় করতে পারবেন। শুরুর দিকে টাকা  কম আসলেও আপনাকে এই প্রসেস চালিয়ে যেতে হবে যাতে আপনি কিছু সময় পর ভালো কিছু করতে পারেন।

একবার এই প্রসেস এ আপনি ভালো ফলাফল করতে পারলে আপনাকে আর টাকা নিয়ে চিন্তা করতে হবে না। তবে,  মোবাইলে গেম খেলে আয় এর জন্য আপনার যা দরকার তা হইলো ধৈর্য করে চেষ্টা করে যাওয়া।

আরও কিছু গেম খেলে আয়

গুগল এ কিছু গেম এর অ্যাপ্লিকেশন আছে যেখান এ সাধারণত আপনাকে সাইন আপ করে খেলতে হবে। মোবাইলে গেম খেলে আয় ডলার  আয় করা যাবে, সরাসরি ডলার দিবে না কিন্তু সেন্ট দিবে আপনারা যারা খেলে আয় করতে চান তাদের জন্য আমি নিচে কিছু অ্যাপ সম্পর্কে বলবো। মোবাইলে গেম খেলে আয় করার যে অ্যাপ থেকে আপনি টাকা উয়িথড্র করতে পারবেন।

  • Bubble Burst এই অ্যাপ ইন্সটল করার পর, আপনাকে সাইন ইন করতে হবে। এর পর আপনাকে আপনার খেলার উপরে টাকা দেওয়া হবে। আপনি এখান থেকে প্রতিদিন ৫০০ থেকে ১০০০ টাকা আয় করতে পারবেন। আপনি এখানে টিকিট পাবেন সেই টিকিট থেকে আপনি সেন্ট এ কনভার্ট করতে পারবেন।
  • Gamee এই অ্যাপ এ আপনাকে শুধু খেলতে হবে আর টাকা জমাতে হবে এর পরে এই টাকা উইথড্র করতে হবে, বিকাশ এর মাধ্যম ।
  • Big Time Cash  এখানে আপনি লেভেল আপ করে গেম খেলতে হবে ১০$ আয় করা হইলে বিকাশ এর মাধ্যম এ আপনি টাকা উইথড্র করতে পারবেন।
  • Ludo King Make Money এই অ্যাপটি দিয়ে আপনারা সহজ এ আপনাদের coin কে কনভার্ট করতে পারবেন টাকা তে  এবং বিকাশঙ্গের মাধ্যম এ নিতে পারবেন।

এই ধরনের অ্যাপ গুলো সাধারণত এক এক সময় আলাদা আলাদা আপডেট এর মাধ্যম এ উইথড্র করার মাধ্যম, পরিমান ও আয় এর ধরন পরিবর্তন করে। তবে এখানে আয় করা সম্ভব, আপনারা চাইলেই মোবাইল এর মাধ্যম এ এই অ্যাপ গুলো থেকে টাকা আয় করতে পারেন।

 মতামত

আপনি যদি গেম খেলায় প্রচুর আগ্রহী ও দক্ষ হয়ে থাকেন তাহলে আপনি যেকোন সঠিক সোর্স এ গেম খেলে আয় করতে পারেন। তবে আমার কাছে ইউটিউব এর পদ্ধতি টি ভালো বলে মনে হয়েছে। তবে আপনার মতামত এর কাছে সবই। আয় এর জন্য দরকার পর্যাপ্ত প্রচার এর, এর জন্য আপনি আপনার গেম ভিডিও তে মজা এর বিষয় বেশি রাখতে পারেন।

অনেকেই বলে থাকে যে এতো সহজ এ ভালো ইউটিউবার হওয়া যায় না। আপনি এসব কথায় কান দিবেন না, কারন এসব আমাদের দক্ষতা কে দেখানোর সময় দেয় না। আর আপনারা নিঃস্বই চান না যে আপনাদের এই দক্ষতা লুকিয়ে থাকুক।মোবাইলে গেম খেলে আয় করাটা আপনাদের মত গেমপ্রিয় লোকদের জন্য অনেক ভালো বিষয়। আপনার এসব বিষয় কেমন লাগলো আমাদের কমেন্ট করে জানাবেন।

আরও পড়ুন

Leave a Comment